সৌম্যের ব্যাটে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের জয়

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ আগস্ট ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:০৪
জাতীয় দলের হয়ে ক’দিন আগেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেন সৌম্য সরকার। কিন্তু সেখানেও ব্যর্থতার বৃত্তেই ছিলেন। তবে আয়ারল্যান্ড সফরের প্রথম আনঅফিসিয়াল টি-টোয়েন্টিতে তার ব্যাটে ভর করেই জয় পেল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ৪ উইকেটের এ জয়ে সৌম্য’র ব্যাট থেকে আসে ৫৭ রানে দুর্দান্ত এক ইনিংস। সঙ্গে নাজমুল হোসেন শান্ত ও তরুণ আফিফ হোসেনদের ব্যাটও কথা বলেছে। প্রথমে ব্যাট করা আইরিশ ‘এ’ দল নির্ধারিত ওভারের শেষ বলে ১৫২ রানে অলআউট হয়। জবাবে ১৮ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় সফরকারী বাংলাদেশ। ১৫৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা অবশ্য টাইগার ‘এ’ দলের ভালো হয়নি।
ওপেনার জাকির হোসেন দলীয় শূন্য রানে বোল্ড হয়ে ফেরেন। তবে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৬২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন এ ম্যাচে নেতৃত্বে থাকা সৌম্য ও শান্ত। শান্ত ২৩ বলে ৩৮ করে ফিরে গেলেও হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন সৌম্য। ৪১ বলে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৫৭ করেন এই ওপেনার। শেষ দিকে ২১ বলে অপরাজিত ৩৫ করে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান আফিফ। ডাবলিনে এর আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সিমি সিংয়ের ৪১ ও ওপেনার স্টুয়ার্ট টমসনের ২৮ রানে ভর করে দেশড় রানের কোটা পার করে স্বাগতিকরা। তবে বাংলাদেশি বোলারদের তোপে নিয়মিত উইকেট হারায় তারা। শরিফুল ইসলাম, তাইজুল ইসলাম ও মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ২টি করে উইকেট নেন। একটি করে উইকেট পান নাঈম হাসান ও আফিফ হোসেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

babu miah

২০১৮-০৮-১৪ ০২:৪৩:২২

congratulations

আপনার মতামত দিন

ভোট হয়েছে রাতেই, নেতাদের প্রতিও ক্ষোভ

নাটেশ্বরের ঘরে ঘরে কান্না

গাড়িতে গাড়িতে ‘গ্যাস বোমা’

রাসায়নিকের গোডাউন ওয়াহেদ ম্যানশন

সরকারকে দায়ী করে বিএনপির মন্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন: তথ্যমন্ত্রী

চ্যালেঞ্জ ছুড়ে সিলেটে মাঠে ৫ বিদ্রোহী আওয়ামী লীগে দ্বিধাবিভক্তি

সড়কে মৃত্যুর মিছিল যেন স্বাভাবিক

বাংলাদেশের জনগণ ভালো থাকলে কিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে যায়

গা ঢাকা দিয়েছেন গোডাউন মালিকরা

চার জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৫

কোথায় হারালো দুই বোন

আজিমপুরে শোকের মাতম

কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে বাতাস

কন্যার স্মৃতিতে পিতা

বাংলাদেশের জনগণ ভালো থাকলে কিছু মানুষ অসুস্থ হয়ে যায়

দরিদ্র্যতা নয় লোভের বলি