দৃষ্টান্ত

রকমারি

জহুরুল ইসলাম | ১০ আগস্ট ২০১৮, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৯
‘নিরাপদ সড়ক চাই’ দাবিতে সমপ্রতি হয়ে যাওয়া শিশু-কিশোরদের আন্দোলন আমাদের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকলো। প্রচলিত অনিয়মগুলো তারা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিলো। সেই সঙ্গে আইন মেনে, নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলার বিষয়টিও বুঝিয়ে দিলো। তারা দেখিয়েছে রাজধানীর ব্যস্ততম সড়কে কত চালক লাইসেন্স ও কত যানবাহন ফিটনেসবিহীন অবস্থায় চলাচল করে। এ ছাড়াও দেখিয়েছে জরুরি লেনসহ সারিবদ্ধভাবে যানবাহন চলাচলের সুবিধা। নতুন প্রজন্ম নিয়ে চারদিকে যে হা-হুতাশ ছিল সেই গ্লানি থেকেও তরুণেরা নিজেদের বের করতে পেরেছে এ আন্দোলনে।
বাংলাদেশের ইতিহাসে অহিংস এক আন্দোলনের নতুন অধ্যায়। এ আন্দোলন উদাহরণ হয়ে থাকবে বহুদিন। কিন্তু এত পরিচ্ছন্ন আন্দোলনকে রাজনীতির কালিমালিপ্ত করা হয়েছে যা খুবই দুঃখজনক। একপক্ষ এই আন্দোলনকে সামনে রেখে ফায়দা লুটতে চাইলো আরেকপক্ষ করলো অমানবিক দমন-পীড়ন। সুন্দরভাবে শুরু হওয়া অরাজনৈতিক আন্দোলনটি রাজনৈতিক মারপ্যাঁচে কিছুটা হলেও শ্রী হারালো, যা আমাদের জন্য লজ্জার।

লিখেছেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী জহুরুল ইসলাম।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কোটা সংস্কার ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের কর্মীদের মুক্তি দাবি

ফারিয়া গুজব ছড়াতে পূর্বে ধারণকৃত অডিও প্রচার করেছেন, দাবি র‌্যাবের

এক যুবকের মমিকে ঘিরে রহস্য

ঢাকায় পাইলটের ব্যর্থ চেষ্টা, শখের ইলিশ রেখেই ছাড়তে হলো এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান

নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বেশ কিছু নির্দেশনা

ছাত্রীকে গণধর্ষণ, আটক-২

অজ্ঞান পার্টি, জাল নোট চক্র ও মাদক ব্যবসা চক্রের ৭৯ সদস্য গ্রেপ্তার

নির্বাচন প্রক্রিয়া পরিবর্তনের সুযোগ নেই: ওবায়দুল কাদের

চারদিকে আওয়ামী লীগের পতনের শব্দ শোনা যাচ্ছে: রিজভী

গাজা উপত্যকায় ইসরাইলের গুলিতে দুই ফিলিস্তিনি নিহত

কেরালায় বন্যা-ভূমিধ্বসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩২৪

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট হ্যাকিং হলে কী করবেন?

শপথ নিলেন ইমরান খান

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুটে ফেরি চলাচল ব্যহত

বিক্ষোভ দমন বন্ধ করার আহবান অ্যামনেস্টির, গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তি দাবি

৩০ হাজার ইয়াবাসহ গোয়েন্দা পুলিশের এসআই আটক