ঝিনাইদহ ছাত্রদলের সভাপতিসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বাংলারজমিন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি | ১০ আগস্ট ২০১৮, শুক্রবার
ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সৌমেনুজ্জামান সৌমেনসহ ৮ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে নতুন করে নাশকতা ও সরকার উৎখাতের মামলা হয়েছে। মামলায় ঝিনাইদহ সরকারি কেসি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক বখতিয়ার ও সাবেক সভাপতি মাসুমকেও আসামি করা হয়েছে। ঝিনাইদহ সদর থানার এসআই সামছুর রহমান বাদী হয়ে মামলাটি করেন। এই মামলায় ঝিনাইদহ রেলপথ আন্দোলনের কর্মী রেল আব্দুল্লাহকেও আসামি করা হয়েছে। এদিকে হরিণাকুণ্ডু উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি খায়রুল ইসলামসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করেছে পুলিশ। এই মামলায় হরিণাকুণ্ডু পৌর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী ও সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরুল হাসান মিঠুসহ ১৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, গত শুক্রবার ঝিনাইদহ শহরের আলহেরা স্কুল মাঠে বিএনপি জামায়াতের কর্মীরা সরকারের কর্মক্ষমতা দুর্বল ও ক্ষতিসাধনের জন্য গোপন বৈঠক করছিল। এ সময় পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।
সেখান থেকে আব্দুল্লাহ নামে একজনকে আটক করে পুলিশ। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক মামলায় ৮ জনকে আসামি করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৫টি ককটেল, লাঠি, পেট্রোল ও ১০টি স্যান্ডেল উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে ঝিনাইদহ ও হরিণাকুণ্ডু ছাত্রদলের শীর্ষ নেতাদের নামে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির সভাপতি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবেক হুইপ মসিউর রহমান। মুঠোফোনে দেয়া বিবৃতিতে তিনি মামলা দু’টি ষড়যন্ত্রমূলক ও মিথ্যা বলে দাবি করেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘রাতে ভক্তদের সঙ্গে নিয়ে কেক কেটেছি’

পাচার হওয়া নারী নিজেই যেভাবে হয়ে গেলেন পাচারকারী

নিরাপত্তার অভাবে এলাকা ছাড়লেন রেজা কিবরিয়া

উদ্বেগ-আতঙ্ক

হামলার বিচার চেয়ে লতিফ সিদ্দিকীর অবস্থান

নির্বাচনের আগে চারটি জনসভা করবেন শেখ হাসিনা

ভারতীয় নেতারা বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের স্বীকৃতি দেননি

নির্বাচন না হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে

অভিযোগের প্রতিকার নেই ইসিতে

নির্বাচনে বলপ্রয়োগ গ্রহণযোগ্য হবে না

পরিস্থিতি নো ইলেকশনের দিকেই যাচ্ছে

হাসিনা না খালেদা ভারতের উভয় সংকট

ঐক্যফ্রন্টের শোভাযাত্রায় জনতার ঢল

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহার আজ

নির্বাচনকে সামনে রেখে ভারত থেকে আসছে অস্ত্র

ভারতীয় নেতারা বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের স্বীকৃতি দেন নি