সিনবাদকে খাওয়ানো হচ্ছে আঙ্গুর, মাল্টা

রকমারি

মোঃ মতিউর রহমান, সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি | ৮ আগস্ট ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪৯
পবিত্র ঈদুল আজহার হাট কাঁপাতে প্রস্তুত সাটুরিয়ার বিল্লাল হোসেনের ৪০ মন ওজনের ষাঁড় সিনবাদ। একবছর আগে কেনা এ ষাঁড়টি ঈদুল আযহা কে সামনে রেখে সম্পূর্ন দেশী পদ্বতিতে লালন পালন করে বড় করেছেন। এখন চলছে শেষ প্রস্তুতি। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রতিদিনই ভিড় করছে এক নজর সিনবাদকে দেখার জন্য।
যে সিনবাদ নামে ষাঁড়টি এবার ঈদে তাকলাগানোর জন্য শেষ প্রস্তুতি নিচ্ছে সে খামারি হচ্ছে মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার দরগ্রাম ইউনিয়নের সাফুল্লি গ্রামের  মৃত: আব্দুল মালেকের পুত্র বিল্লাল হোসেন (৪৫)।
বিল্লাল হোসেন ১ বছর আগে সাটুরিয়া উপজেলার গোপালপুর গ্রাম থেকে ২ বছর বয়সী হলিস্টিন ফ্রিজিয়ান জাতের ষাঁড়টি কিনে আনেন। কোরবানী ঈদে বিক্রি করার জন্য লালন পালন করবেন তাই নাম রাখেন সিনবাদ। শুরু থেকেই দেশীয় পদ্বতিতে সম্পূর্ন প্রাকৃতিক খাবার খাইয়ে লালন করতে থাকে সিনবাদকে।  
বিল্লাল হোসেন ৪০ মন ওজনের ষাঁড়টি দেখার জন্য আজ বুধবার সকালে বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় খামারি বিল্লাল তার সিনবাদকে যতœ নিতে ব্যস্ত।
পাকা গোয়ালে ঝক ঝক করছে। চারদিকে বাঁশের আড়ার সঙ্গে থড়ে থড়ে কলা, আঙ্গুর, মালটা সাজানো। রাখাল মাঝে মাঝে তা ছিড়ে খাওয়াচ্ছেন। পাকা মেজেতে বেশী ওজনের ষাঁড়টির পায়ের গোড়ালি ব্যাথা না হয় সে জন্য ম্যাট বসিয়েছেন। সার্বক্ষনিক ঠান্ডা করার জন্য ২ টি সিলিং ফ্যান, ২ টি ঝুড়ি ফ্যান ও একটি ষ্ট্যান্ড ফ্যান ব্যাবহার করা হয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাককে অন্য ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ২

পারমাণবিক অস্ত্র উৎপাদন বৃদ্ধির ঘোষণা ট্রাম্পের

সীমান্ত অস্ত্রমুক্ত করতে সম্মত দুই কোরিয়া

হাতিরঝিলে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

রেলস্টেশনে ৭ ঘন্টা ধরে দু’পক্ষের গোলাগুলি

‘তার কথা, গান ও স্মৃতিগুলো ভেসে আসছে বার বার’

মিয়ানমারের পাঁচ জেনারেলের ওপর অস্ট্রেলিয়ার নিষেধাজ্ঞা

কে এই কাহতানি

খাসোগিকে মারবে ভেবে ‘বডি ডাবল’ নিয়ে আসে সৌদি ঘাতক দল!

সৌদি আরবের সঙ্গে অস্ত্র চুক্তি ছিন্ন করলো জার্মানি

কাতার এয়ারওয়েজের জরুরি অবতরণ

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন গ্রেপ্তার

ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে বিপুল লোকসমাগমের প্রস্তুতি বিএনপির

চট্টগ্রাম ও সিলেটে বিএনপি নেতাকর্মীদের ধরপাকড়

মন্ত্রিসভা ছোট না করার ইঙ্গিত প্রধানমন্ত্রীর

অবাধ, বিশ্বাসযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের বার্তা দিয়েছি