সম্পর্ক পরকীয়ায় দিকে ঝুঁকছে যে কারণে

শরীর ও মন

অনলাইন ডেস্ক | ৬ আগস্ট ২০১৮, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৩৬
ব্যস্ততম জীবনে মানুষ নানান মিথস্ক্রিয়ায় ভুগছে। এর ওপর বাড়তি প্রতিযোগিতা তাকে রাখছে সময়ের দৌড়ে। যুক্ত হয়েছে ডিজিটাল উপকরণ। দেখা গেছে স্বামী-স্ত্রী দুজন যখন বাড়িতে একসঙ্গে আছে কিন্তু পৃথক রুমে আইফোনে ব্যস্ত। তাদেও নিজেদের ভাববিনিময় হচ্ছে কমই। আর এ কারণে তৈরি হচ্ছে দূরত্ব। বিবাহিতাদের পরকীয়ায় জড়ানোর পেছনে সমাজ গবেষকরা খুঁজে বের করেছেন ৫ কারণ।

একাকীত্ব
দুজনই চাকরি করেন। দুজনের রুটিন দুরকম।
দুজনের ছুটি দুদিনে। তাতে এক ছাদের নিচে বাস করলেও তাদের নিজেদেও মধ্যে দেখা হচ্ছে কমই। বরং চাকরিতে দিনের বেশিরভাগ সময় দেয়ায় পাশের চেয়ারের মানুষটির সঙ্গে ভাবের আদান-প্রদান অনেক বেশি হচ্ছে। অনেকে নারী চাকরি থেকে সন্ধের মধ্যে ঘরে ফেরেন। কিন্তু তাদের স্বামীরা হয়তো ফেরেন মধ্যরাতে। অনেকের স্বামী আবার অন্য শহরে বা দেশে কাজ করেন। এর ফলে বিবাহিতাদের মধ্যে একাকীত্ব বাড়ছে। আর তা থেকেই পরকীয়ায় জড়ানোর সম্ভাবনা বাড়ছে।

লালসা

বিবাহিত জীবনে যৌন-সম্পর্কে অতৃপ্তি রয়েছে দু’নম্বর কারণ হিসেবে। অনেকেই ব্যস্ততার কারণে ক্লান্ত একে অন্যের ইচ্ছের পূর্ণতা দিতে পারে না। এতে নিজেদের মধ্যে অবসাদ তৈরি হয়।  

মনোযোগের অভাব
বিবিধ কারণে অনেকের ক্ষেত্রেই স্বামী বা স্ত্রী একে অন্যের প্রতি যথাযথ মনোযোগ দেন না। তা থেকেই আসে হতাশা। এর পরিণতি, পরকীয়া।

বুদ্ধিবৃত্তিক দূরত্ব, মতপার্থক্য
স্বামী এবং স্ত্রীর মধ্যে বুদ্ধিবৃত্তিক তারতম্য, বা ইন্টেলেকচুয়াল ডিফারেন্সও পরকীয়ার আর এক কারণ। অনেক সাম্প্রতিক ইস্যু নিয়ে আলোচনায় দুজনের বিপরীত অবস্থানও অনেক সময় তাদেও মধ্যে তফাত গড়ে দেয়।

অর্থ এবং ক্ষমতার ভারসাম্য
আর্থিক ক্ষমতার ভারসাম্য বেশিরভাগ ক্ষেত্রে নারী-পুরুষের মধ্যে তফাত গড়ে দেয়। নিজের স্বামীর অর্থ ও ক্ষমতার প্রতি আস্থা হারালে অনেক সময় স্ত্রীরা আবার উল্টো ঘটনাও ঘটতে পারে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

গ্রেনেড হামলা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য সামঞ্জস্যহীন ও রহস্যাবৃত: রিজভী

নারী ত্রাণকর্মীকে গুলি করে হত্যা করলো বোকো হারাম

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার রায় ২৯শে অক্টোবর

জাফরুল্লাহ’র বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা

আসামে ৩১ বাংলাদেশী আটক

অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সবকিছু করবে কমিশন: সিইসি

প্রত্যাবাসনের জন্য রোহিঙ্গা শরণার্থীদের থেকে কোন আবেদন পায়নি মিয়ানমার

খাসোগি হত্যার কথা স্বীকারের কথা ভাবছে সৌদি আরব

ঢাবির ঘ-ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ বিকালে

যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ‘মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত

মির্জাপুরে ট্রাক উল্টে মা-বাবা-মেয়ে নিহত

আইজিপি গেলে চুড়ান্ত অভিযান

‘সবাইকে জানিয়েই কাজটি করবো’

সম্পাদকদের নজিরবিহীন মানববন্ধন

আলোচনা অনুষ্ঠানে অসত্য তথ্য দিলে জেল-জরিমানা

বাকস্বাধীনতা খর্বের প্রতিবাদে মাহবুব তালুকদারের ওয়াকআউট