আরামপ্রিয়দের জন্য দুঃসংবাদ!

শরীর ও মন

| ৩ আগস্ট ২০১৮, শুক্রবার
সারাদিন অফিসের এক চেয়ারেই কাটান৷ এরপর বাসায় গিয়ে সোজা সোফায় গা এলিয়ে দেন৷ ভাবেন শরীরের বিশ্রাম প্রয়োজন৷ কিন্তু আসলে তা নয়৷


নড়চড় কম
সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, মাত্র ৯ ভাগ জার্মান নাগরিক পরিপূর্ণ স্বাস্থ্যকর জীবনপদ্ধতি অনুসরণ করেন৷ এর প্রধান কারণ, খুব বেশি নড়াচড়া হয় না৷ গড়ে প্রতিদিন সাড়ে সাত ঘণ্টা বসে বসে দিন কাটান৷ শুধু জার্মানরাই নন, ইদানিং এই প্রবণতা সারাবিশ্বেই দেখা যায়৷

বসে থাকা আর ধূমপান করা একই কথা?
স্বাস্থ্যঝুঁকির মাত্রা বিবেচনায় বসে থাকাকে ‘নিউ স্মোকিং’ বা নব্য ধূমপান বলা হয়৷ দেখা গেছে, ১৫ বছর ধরে যারা এভাবে বসে বসে দিন কাটান তাদের মধ্যে নিম্ন রক্তচাপ, দূর্বল রক্তপ্রবাহ, ক্যানসার, হৃদরোগ ও ডায়বেটিসের প্রবণতা প্রবল৷

সব বসে থাকা এক নয়
তবে অফিস চেয়ারে বসে থাকার চেয়ে বসে বসে টিভি দেখা বেশি ক্ষতিকর৷ যারা টিভিসেটের সামনে একটা লম্বা সময় বসে কাটান, তাদের ক্ষেত্রে রোগাক্রান্ত হবার প্রবণতা খুব বেশি৷

রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমছে
বিশেষ করে যেসব নারী বেশিরভাগ সময় বসে থাকেন, বয়স বাড়লে তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়৷ তো যারা এতদিন বসে বসে কাটিয়েছেন, তারা ভয় পাচ্ছেন৷ ভয় পাবার কিছু নেই৷ গবেষকরা বলছেন, যদি অভ্যাস বদলাতে পারেন, অর্থাৎ আগের মতো বসে না থেকে নড়াচড়া শুরু করেন, তাহলে ফিরে পাবেন আপনার সুস্বাস্থ্য৷

শুরু করছেন নড়াচড়া?
গবেষকরা বলছেন, যত বেশি আপনি বসে থাকছেন তত বেশি আপনার মৃত্যুঝুঁকিও তৈরি হচ্ছে৷ কিন্তু যদি আপনি একবারে ৩০ মিনিটের বেশি বসে না থেকে একটু নড়াচড়া করেন তাহলে ঝুঁকি এড়াতে পারবেন৷ তারা বলছেন, ৩০ মিনিট বসে থাকার পর অন্তত পাঁচ মিনিট একটু নড়াচড়া বা হাটাচলা করুন৷

দাঁড়ানো ডেস্ক
যারা অফিসে বসে বসে কাজ করেন, তাদের অবশ্য অন্য উপায়ও নেই৷ তবে এখন বেশ অ্যাডজাস্টেবল ডেস্ক পাওয়া যায়, যেগুলোতে আপনি কখনো দাঁড়িয়ে ও কখনো বসে কাজ করতে পারেন৷ তবে গবেষকদের কাছে এটা খুব ভালো কোনো সমাধান নয়৷ কারণ যদিও আপনি দাঁড়িয়ে কাজ করছেন, আপনি খুব বেশি শক্তিক্ষয় করছেন না৷

এখানেই শেষ নয়
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটা ঠিক যে যত কম বসে থাকবেন, তত স্বাস্থ্যের জন্য ভালো৷ তবে শরীরচর্চার বিকল্প কিন্তু নেই৷ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, সপ্তাহে দেড়শ’ মিনিট মাঝারি ধরনের শরীরচর্চা অথবা ৭৫ মিনিট কঠিন শরীরচর্চা করা উচিত৷

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বস্তিবাসীদের জন্য গড়ে তোলা হবে বহুতল ভবন: প্রধানমন্ত্রী

ট্রেনের শিডিউল লণ্ডভণ্ড, দুর্ভোগ

নওশাবার মুক্তি চেয়ে শিল্পী সংঘের বিনীত অনুরোধ

শহিদুল ও আটক শিক্ষার্থীদের মুক্তি দাবি

অবশেষে ৪২ শিক্ষার্থীর জামিন, পরিবারে স্বস্তি

আলোর মুখ দেখছে সরকারি চাকরি আইন

কোটা আন্দোলনের নেতাদের পরিবারে কান্না

পবিত্র আরাফাত দিবসে আজ হজ

জমে উঠেছে পশুর হাট, বেড়েছে বিক্রি

অবরুদ্ধ করে মওদুদের গুরুত্ব কেন বাড়াবো

পুলিশ আমাকে বলেছে, বাড়ি থেকে যেন বের না হই

সৌদি থেকে নির্যাতিত নারীর করুণ আর্তি

সরকার নিরীহ শিক্ষার্থীদের ওপর বিতর্কিত আইনের অপপ্রয়োগ করছে- সুপ্রিম কোর্ট বার

শতাধিক নেতার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের উদ্যোগ বিএনপির

জাতীয়করণ হওয়া ২৭১ কলেজ পরিচালনা নিয়ে গোলকধাঁধা

অনলাইনে জমজমাট পশুর হাট