রাখাইন উপদেষ্টা পরিষদের প্রভাবশালী সদস্যের পদত্যাগ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ জুলাই ২০১৮, শনিবার
রাখাইনের রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে গঠিত মিয়ানমারের আন্তর্জাতিক উপদেষ্টা পরিষদের প্রভাবশালী সদস্য কবসাক চুটিকুল পদত্যাগ করেছেন। তিনি উপদেষ্টা পরিষদের সেক্রেটারির দায়িত্বে ছিলেন। এ নিয়ে উপদেষ্টা পরিষদের দুই জন সদস্য পদত্যাগ করলেন। বিশ্লেষকরা বলছেন, দুই সদস্যের পদত্যাগের কারণে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট ওই পরিষদের ভবিষ্যৎ নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

খবরে বলা হয়, সহিংসতা শুরু হওয়ার পর জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান সরজমিন রাখাইন পরিদর্শন করেন। তিনি সংকট নিরসনের জন্য মিয়ানমারের কাছে সুনির্দিষ্ট কিছু সুপারিশমালা পেশ করেন। এসব সুপারিশ বাস্তবায়ন করার জন্য মিয়ানমার ‘কমিটি ফর ইম্পিলিমেন্টেশন অব দ্য রিকমেন্ডেশন অন রাখাইন স্টেট’ নামে একটি উপদেষ্টা পরিষদ গঠন করেন। কিন্তু শুরুতেই মার্কিন রাজনীতিবিদ বিল রিচার্ডসন এই পরিষদ থেকে পদত্যাগ করলে এর ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কা দেখা দেয়। এবার আরেক প্রভাবশালী সদস্য কবসাক চুটিকুল পদত্যাগ করলেন।

কবসাক চুটিকুল আগে থাইল্যান্ডের কূটনীতিক ছিলেন। পদত্যাগের বিষয়ে ব্যাংকক থেকে তিনি বলেন, গত মঙ্গলবার এক বৈঠকে আমি মৌখিকভাবে পদত্যাগের কথা বলেছি। মিয়ানমারের কর্তৃপক্ষ মনে করে, তারা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উদ্বেগ নিরসনে যথেষ্ট কাজ করেছে। পাশাপাশি মিয়ানমার সব সময় রোহিঙ্গা সংকটকে তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে আখ্যা দেয়। তারা মনে করে, নির্যাতনের যেসব কথা বলা হচ্ছে এসব তাদের নামে অপপ্রচার। বাস্তবে তারা কোনো ভুল করেনি।

মিয়ানমারে স্বাধীনভাবে কাজ করার ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হওয়ার কথা উল্লেখ করেন কবসাক। তিনি বলেন, উপদেষ্টা পরিষদকে আন্তর্জাতিক তহবিল সংগ্রহ করতে দেয়া হয়নি। এমনকি মিয়ানমারে কোনো স্থায়ী কার্যালয় নির্মাণেরও অনুমতি দেয়া হয়নি। পরিষদের সদস্যদের এক জায়গায় জমায়েত হওয়ার ক্ষেত্রেও প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয়েছে। তাদের অনলাইনে বৈঠক করতে পরামর্শ দিয়েছে সরকার। এসব প্রতিকূল পরিবেশের কারণেই মূলত পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

তবে, কবসাকের পদত্যাগ নিয়ে মিয়ানমার কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি। দেশটির কার্যত নেত্রী অং সান সুচির দপ্তর থেকেও কিছু বলা হয়নি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভর্তুকি দিয়ে হলেও চাল রপ্তানি করা হবে: অর্থমন্ত্রী

ঠিকাদারি বিল বন্ধের নির্দেশ, দুই তদন্ত কমিটি

‘আগ্রাসন ও পরিণতি’ নিয়ে জিসিসি, আরব লীগের জরুরি বৈঠক ডেকেছে সৌদি আরব

হাসপাতালের মর্গে লাশ, স্ত্রীর দাবি জীবিত, কর্মচারিদের সঙ্গে ধস্তাধস্তি (ভিডিও)

পাকিস্তানে আজ সবার চোখ থাকবে বিলাওয়াল, মরিয়মের দিকে

পারস্য উপসাগরে তেলস্থাপনায় হামলায় গভীর উদ্বেগ বাংলাদেশের

মুক্তিযোদ্ধার বয়স নির্ধারণে সংশোধিত পরিপত্র বেআইনি

জীবন্ত মাটিচাপা দেয়া শিশুকে উদ্ধার করল কুকুর (ভিডিও)

আমরণ অনশনে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা

আর্নল্ড সোয়ার্জেনেগারকে লাথি মারলো যুবক (ভিডিও)

কৃষক ক্ষেতে আগুন দিচ্ছে, সরকার নির্বিকার: দুদু

লক্ষ্মীপুরে ৭ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতন, অভিযুক্ত ইউপি সদস্য পলাতক

বেরোবির ভর্তি পরীক্ষার সোয়া কোটি টাকা বন্টন, শিক্ষক-কর্মকর্তাদের অসন্তোষ

সারাক্ষণ ভয়ে থাকেন তারা

তিতুমীরের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

ঈদযাত্রায় এবারের প্রস্তুতি যে কোন সময়ের চেয়ে ভালো: ওবায়দুল কাদের