ছোট বড় সকল নির্বাচনে স্বচ্ছতা দেখতে চায় ইইউ

অনলাইন

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ১৯ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৫:৫২ | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৫৩
বাংলাদেশে স্থানীয় ও সংসদ দুই ক্ষেত্রের নির্বাচন সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ অনুষ্ঠিত হতে দেখতে চায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।
 রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় আজ বাংলাদেশের সঙ্গে ইইউ-এর মধ্যে তৃতীয় ফরেন অফিস কনসালটেশন বৈঠক শেষে প্রতিনিধি দলের নেতা গানার উইগান্ড একথা বলেন। তিনি বলেন,  ইইউ চায় ছোট বড় সকল নির্বাচনে স্বচ্ছতা। অন্যদিকে  রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ অনুসরণীয় কাজ করেছে। তবে তাদের জন্য সকলেরই আরো কাজ করতে হবে।

ইইউর সঙ্গে বাণিজ্য ভাল, তবে তা আরো বাড়ছে এটা ইতিবাচক দিক। বাংলাদেশি শ্রমিকদের বেতন ভাতা পাওনার বিষয়ে সাম্যের কথা বলেন। কিছুদিন পর পরিদর্শন টিম সফরে আসবে বলেও তিনি জানান।

 বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক এবং ইইউ প্রতিনিধি দলের নেতা সংস্থাটির এশিয়া প্যাসিফিক বিভাগের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গানার উইগান্ড। তার সঙ্গে আসা সাত সদস্যের প্রতিনিধি দল বৈঠকে যোগ দেন।
২০১৬ সালের এপ্রিলে ঢাকায় প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে ফরেন অফিস কনসালটেশন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গতবছর ১৫ ফেব্রুয়ারি ব্রাসেলসসে দ্বিতীয় বৈঠক হয়।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, দুই পক্ষে প্রায় সকল বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে।
বিশেষ করে রাজনীতি, সামাজিক ও উন্নয়ন ছাড়াও আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক  প্রেক্ষাপট আলোচনা হয় বৈঠকে।

রোহিঙ্গা ইস্যু প্রাধান্য পেয়েছে, কারণ ইইউ প্রথম থেকেই এ বিষয়ে সহযোগিতা করে যাচ্ছে এবং সামনে করবে বলে জানিয়েছে।
এসডিজি বাস্তবায়নসহ ইউরোপে নিয়মছাড়া যে বাংলাদেশি রয়েছে তাদের নিয়েও কথা হয়েছে। প্রতিনিধি দলের নেতা বলেন, আমরা সকল দলের অংশ গ্রহণমূলক সুষ্ঠু অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেখতে চাই।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহযোগিতার বিষয়ে ইইউ এককভাবে সবচেয়ে বড় অর্থের  জোগানদাতা।  ইইউ-এর বাইরে অন্য দেশের এ বিষয়ে আরো যোগদান করা উচিৎ। রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও সম্মানের সঙ্গে প্রত্যাবাসনের পক্ষে কাজ করে যাবে ইইউ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সিলেটের জনসভার দায়িত্ব সুলতান মনসুর, শাহজাহানের

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম

আপনারা চাইলে আমি পদত্যাগ করবো- মাহাথির

চট্টগ্রামে বিএনপির শীর্ষ দুই নেতাকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ

৪ বছরে বন্ধ হয়েছে ১২০০ গার্মেন্ট কারখানা

যাত্রাবাড়ীতে দুই বাসের রেষারেষিতে যুবকের মৃত্যু

মিশরে সমালোচনামূলক বই লেখায় অর্থনীতিবিদ গ্রেপ্তার

‘সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট’

চীন-যুক্তরাষ্ট্র বানিজ্যযুদ্ধ থেকে লাভবান হতে পারে ভারত

‘দুই বছরের মধ্যে ঢাকার সড়কে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে’

আলোচিত মুনির হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি, একজনের যাবজ্জীবন

সৌদি আরবকে শাস্তি দিতে চাপ বাড়ছে

ফের ভোল পাল্টালো সৌদি আরব, সালমানকে বাঁচানোর চেষ্টা

খাসোগির পরিবারের প্রতি সৌদি বাদশাহ, ক্রাউন প্রিন্স ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সমবেদনা

খাসোগি হত্যার নগ্ন সত্য উন্মোচন করবেন এরদোগান

শিবগঞ্জ সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশি নিহত