আবারও বড় ঋণ কেলেঙ্কারিতে জনতা ব্যাংক

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৯ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৪:৪৭
জনতা ব্যাংকে আবারও বড় ঋণ কেলেঙ্কারির ঘটনা ঘটেছে। এবার ভুয়া রপ্তানি নথিপত্র তৈরি করে সরকারের নগদ সহায়তা তহবিল থেকে ১ হাজার ৭৫ কোটি টাকা তুলে নিয়েছে ক্রিসেন্ট গ্রুপ। এই কেলেঙ্কারিতে সহায়তা করার পাশাপাশি ক্রিসেন্ট গ্রুপকে বিপুল পরমাণ অর্থায়নও করেছে জনতা ব্যাংক।

প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ক্রিসেন্টের কাছে জনতা ব্যাংকের পাওনা ২ হাজার ৭৬০ কোটি টাকা। বিদেশে রপ্তানির ১ হাজার ২৯৫ কোটি টাকা আটকা রয়েছে। সব মিলিয়ে গ্রুপটি সরকারি ব্যাংক ও সরকারের তহবিল থেকে মাত্র পাঁচ বছরেই নিয়ে নিয়েছে ৫ হাজার ১৩০ কোটি টাকা। আর এত সব জালিয়াতি হয়েছে জনতা ব্যাংক ইমামগঞ্জ করপোরেট শাখার মাধ্যমে।  জানা যায়, শাখাটির মোট ঋণের ৯৮ শতাংশই এ গ্রুপের কাছে আটকা। যার সবই এখন খেলাপি হয়ে পড়েছে।
রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় শহরে ক্রিসেন্ট গ্রুপের পাদুকাসহ চামড়াজাত পণ্যের বিক্রয়কেন্দ্র রয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে এক গ্রাহককেই নিয়ম লঙ্ঘন করে জনতা ব্যাংকের ৫ হাজার ৫০৪ কোটি টাকার ঋণ ও ঋণসুবিধা দেয়ার খবর বের হয়েছিল। আবারও একই ব্যাংকের নতুন এক কেলেঙ্কারির খবর মিলল।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনা তুঙ্গে, যুদ্ধের আশঙ্কা

৪৭ বছর পর ক্ষমা চাওয়ার বিষয় কেনো এলো?

শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন

সৌদি ক্রাউন প্রিন্সের পাকিস্তান সফর বিলম্বিত

আজিমপুর-ধানমন্ডি-মোহাম্মদপুর-মিরপুরে ২৪ ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ

সি জিনপিংয়ের বৈশ্বিক স্বপ্নে বাধা

ইয়াবা ও অস্ত্র জমা দিয়ে ১০২ মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

নাটোরে অগ্নিকান্ডে সর্বশান্ত দিনমজুর

রূপপুর প্রকল্পে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে রাশিয়ান নাগরিকের মৃত্যু

‘মিয়ানমার বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের ওপরে আঘাত করেছে’

কবি আল মাহমুদের মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক

ভোট শুরুর ৫ ঘন্টা আগে নির্বাচন পিছানো হলো নাইজেরিয়ায়

জামায়াত থেকে আমাকে বহিস্কার করা হয়েছে

শিকাগোয় অস্ত্রধারীর গুলিতে নিহত ৫

এ কী বললেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান!

কেউ কি আরেকটি সোনালী কাবিন লিখতে পেরেছে?