ভুল করে বলে ফেলেছিলেন ট্রাম্প!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ জুলাই ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫৫
নিজ দেশের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর রিপোর্টকে হেয় করে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পক্ষ নেয়ায় প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে কংগ্রেসে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এমন কি তার দল রিপাবলিকানের অনেক বড় মাপের নেতা পল রায়ান, সিনেটর জন ম্যাককেইনের মতো ব্যক্তিদের সমালোচনার পর অবস্থান থেকে ফিরে এলেন ট্রাম্প। তিনি স্বীকার করলেন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ তিনি প্রত্যাখ্যান করেছিলেন ভুল করে। পুতিনের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি যা বলেছেন তা ছিল ‘মিস-স্পেকেন’। অর্থাৎ ভুল করে বলে ফেলেছেন। এবং তিনি মানেন যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর রিপোর্ট মানেন যে, ২০১৬ সালের নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করেছিল মস্কো।
এ রিপোর্ট দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। ফিনল্যান্ডের রাজধানী হেলসিংকিতে সোমবার দীর্ঘ দুই ঘন্টা রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন ট্রাম্প ও পুতিন। এরপর যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেন তারা। সেখানে পুতিন দাবি করেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার দেশ হস্তক্ষেপ করে নি। তার কথায় সায় দেন ট্রাম্প। তিনিও বলেন, রাশিয়া নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করে নি। এতে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। বলা হয়, তিনি পুতিনের পক্ষ নিয়ে নিজের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে ছোট করেছেন। এ জন্য কংগ্রেসের ভিতরে তীব্র ক্ষোভ দেখা দেয়।এর ফলে ট্রাম্প তার বক্তব্য ক্লারিফাই করেন। এর মধ্য দিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর ওপর তার আস্থা প্রকাশ করেন। উল্লেখ্য, মাঝে মাঝেই ট্রাম্প ভুল বক্তব্য দেন। কিন্তু তা আর সংশোধন করেন না। কিন্তু এবার যেহেতু ক্ষোভটি প্রকাশ করা হচ্ছে রিপাবলিকান শিবিরের ভিতর থেকে, তাই তাকে সেই ভুলটি সংশোধন করতে হয়েছে। নিজের মন্ত্রীপরিষদ ও কংগ্রেশনাল রিপাবলিকানদের সঙ্গে তার একটি বৈঠককে সামনে রেখে তিনি ওই সংশোধন দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ওই সংবাদ সম্মেলনে তার বক্তব্যটি হওয়ার কথা ছিল ‘আই ডোন্ট সি এনি রিজন হোয়াই...ইট উড নট বি রাশিয়া’। কিন্তু সেখানে ‘উড নট’ এর জায়গায় শুধু ‘উড’ শব্দটি ব্যবহার করেছেন। একই বাক্যে দু’বার নেতিবাচক শব্দ ব্যবহার না করার জন্যই এমনটা করেছিলেন। তিনি বলেন, আমি যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রাশিয়া হস্তক্ষেপ করেছিল গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর এমন রিপোর্ট আমি মেনে নিয়েছি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আইসিইউতে রাজধানী

ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি সৃষ্টির চক্রান্ত করছে বিএনপি

ওয়ান ইলেভেনের বেনিফিশিয়ারি আওয়ামী লীগ

যেভাবে ঢাকার মেরামত সম্ভব

গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার ফারিয়া রিমান্ডে

৪০ লাখ বাংলাভাষী হবে বৃহত্তম রাষ্ট্রবিহীন জনগোষ্ঠী!

ইমরান খানই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

মওদুদের বাড়ি ঘেরাও করে রাখায় মির্জা ফখরুলের নিন্দা

বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য ও আন্দোলনের খসড়া রূপরেখা তৈরি

আত্মমর্যাদা ও মানবাধিকারের স্বপক্ষে একক কণ্ঠস্বর

ঈদের আগে ছাত্রদের মুক্তি দিন: ড. কামাল

‘কার কাছে গেলে ছেলেকে ফেরত পাবো’

বাজপেয়ীকে শেষ বিদায়

পশুবোঝাই ট্রাক ‘ছিনতাই’ শঙ্কায় সিলেটের বেপারিরা

ভোগান্তি মাথায় নিয়ে ঈদযাত্রা

মওদুদ আহমদকে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ