মানবতাবিরোধী অপরাধ

মৌলভীবাজারে ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ জুলাই ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২৪
একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় মৌলভীবাজারের রাজনগরে তখনকার রাজাকার বাহিনীর চার সদস্যকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ টাইব্যুনাল। বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে গঠিত তিন সদস্যের এই ট্রাইব্যুনাল গতকাল এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চার আসামি  হলেন- মৌলভীবাজার রাজনগর উপজেলার সাবেক মাদ্‌রাসা শিক্ষক আকমল আলী তালুকদার, একই উপজেলার আবদুন নূর তালুকদার ওরফে লাল মিয়া, আনিছ মিয়া ও আবদুুল মোছাব্বির মিয়া। এদের মধ্যে আকমল আলী তালুকদার ছাড়া বাকিরা পলাতক। গতকাল রায়ের সময় আকমল আলীকে ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়। রায়ে বলা হয়, আসামিদের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের আনা দু’টি অভিযোগই প্রমাণিত হয়েছে। এর মধ্যে রাজনগরে গণহত্যার দায়ে চার আসামির সবাইকে মৃত্যুদণ্ড এবং দুই জনকে অপহরণ করে আটক রেখে নির্যাতন ও হত্যার ঘটনায় চার আসামির সবাইকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।


পলাতক তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করে সাজা কার্যকর করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশের মহাপরিদর্শককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে রায়ে। নিয়ম অনুযায়ী ট্রাইব্যুনালের মামলায় রায়ের এক মাসের মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে আপিল করতে পারবেন দণ্ডপ্রাপ্তরা। তবে, পলাতক আসামিকে আপিল করতে হলে আত্মসমর্পণ করতে হবে।

২০১৬ সালের ২৩শে মার্চ এ মামলায় চার আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন  চূড়ান্ত করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। প্রতিবেদনে ৫৯ জনকে হত্যা, ছয়জনকে ধর্ষণ, ৮১টি বাড়িতে লুটপাট অগ্নিসংযোগের অভিযোগ আনা হয় আসামিদের বিরুদ্ধে। অভিযোগ গঠনের মধ্যে দিয়ে গত বছরের ৭ই  মে এ মামলার বিচার শুরু হয়। সূচনা বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে ৪ঠা জুলাই সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়। প্রসিকিউশন ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে গত ২৭শে মার্চ মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ (সিএভি) রাখে আদালত। প্রসিকিউশনের পক্ষে এ মামলার শুনানিতে ছিলেন প্রসিকিউটর সৈয়দ হায়দার আলী।

সঙ্গে ছিলেন শেখ মুশফিক কবীর ও সায়েদুল হক সুমন। কারাগারে থাক আসামি আকমলের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী আবদুস সোবহান তরফদার। পলাতক আসামিদের পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী আবুল হাসান শুনানি করেন। যুদ্ধাপরাধের অভিযোগের তদন্ত শুরুর পর ২০১৫ সালের ২৬শে নভেম্বর এই আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে ট্রাইব্যুনাল। ওইদিনই রাজনগরের পাঁচগাঁও গ্রাম থেকে আকমল আলীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে ট্রাইব্যুনালের আদেশে কারাগারে পাঠানো হয়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আইসিইউতে রাজধানী

ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি সৃষ্টির চক্রান্ত করছে বিএনপি

ওয়ান ইলেভেনের বেনিফিশিয়ারি আওয়ামী লীগ

যেভাবে ঢাকার মেরামত সম্ভব

গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার ফারিয়া রিমান্ডে

৪০ লাখ বাংলাভাষী হবে বৃহত্তম রাষ্ট্রবিহীন জনগোষ্ঠী!

ইমরান খানই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

মওদুদের বাড়ি ঘেরাও করে রাখায় মির্জা ফখরুলের নিন্দা

বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য ও আন্দোলনের খসড়া রূপরেখা তৈরি

আত্মমর্যাদা ও মানবাধিকারের স্বপক্ষে একক কণ্ঠস্বর

ঈদের আগে ছাত্রদের মুক্তি দিন: ড. কামাল

‘কার কাছে গেলে ছেলেকে ফেরত পাবো’

বাজপেয়ীকে শেষ বিদায়

পশুবোঝাই ট্রাক ‘ছিনতাই’ শঙ্কায় সিলেটের বেপারিরা

ভোগান্তি মাথায় নিয়ে ঈদযাত্রা

মওদুদ আহমদকে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ