পশ্চিমবঙ্গে সিন্ডিকেট রাজ চলছে

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৬ জুলাই ২০১৮, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৩৮
মাত্র দুই ঘন্টার পশ্চিমবঙ্গ সফরে এসে সোমবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পশ্চিমঙ্গের তুণমূল কংগ্রেস সরকারকে তুলোধোনা করেছেন। তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, গণতন্ত্র, নির্বাচন, বিচার ও পঞ্চায়েত ব্যবস্থায় যাদের ভরসা নেই, তারা ছাড় পাবেন না। প্রধানমন্ত্রী  মেদিনীপুর শহরে আয়োজিত কৃষক সমাবেশে কৃষকদের জন্য তার সরকারের উদ্যোগের কথা জানানোর পাশাপাশি রাজ্যের অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, রাজ্যে মা মাটি মানুষের নামে সিন্ডিকেট রাজ চলছে। সিন্ডিকেট রাজের নামে জোর করে গরিবের আয় ছিনিয়ে নেওয়া হচ্ছে। তিনি মন্তব্য করেছেন,  সিন্ডিকেট ছাড়া পশ্চিমবঙ্গে কিছু করা অসম্ভব।
নতুন সংস্থা খুলতে হলে, ইট, বালি, সিমেন্ট কিনতে হলে, এমনকি কলেজে ভর্তি হতে হলে সিন্ডিকেটের কাছে যেতে হয়। মোদীজি স্পষ্ট করে এদিনের সমাবেশে বলেছেন, ভোট ব্যাঙ্কের জন্য সিন্ডিকেটকে ব্যবহার করা হচ্ছে । বিরোধীদের হত্যা করার জন্যও সিন্ডিকেটকে কাজে  লাগানো হচ্ছে। তিনি বলেছেন, বাম শাসনে যে হাল ছিল, বাংলার অবস্থা এখন তার চেয়েও খারাপ । এদিন বেলা বারোটা নাগাদ প্রধানমন্ত্রীর বিমান কলাইকুন্ডা সামরিক বিমান বন্দরে নামে।  সেখান থেকে তিনি হেলিকপ্টারে করে সভাস্থলে আসেন। মেদিনীপুর শহরের কলেজ ময়দানে আয়োজিত এই সমাবেশে লক্ষাধিক মানুষের সমাগম হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলায় তার ভাষণ শুরু করেছেন। রাস্তায় তৃণমূল কংগ্রেসের একটি সমাবেশের জন্য লাগানো হাতজোড় করে মমতার অজ¯্র্র কাটআউট ও পোষ্টার দেখে মোদীজি কৌতুকের সুরে বলেছেন, আমাকে স্বাগত জানানোর জন্য মমতাদিদিকে অসংখ্য ধন্যবাদ। এদিনের কৃষক সমাবেশে রাজ্য বিজেপির পক্ষ থেকে কৃষকদের উৎপাদিত ১৪ খরিফ ফসলের সহায়ক মূল্য দেড়গুন বৃদ্ধির জন্য সম্বর্ধনা জানানো হয়েছে। সমাবেশে আসার পথে বিপুল জনসমাগম দেখে মোদী সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি এদিনের সমাবেশে সরকার কৃষকদের কল্যাণে যে সব প্রকল্প নিয়ে তার কথা জানিয়েছেন। তবে এদিনের সমাবেশে মোদী আসলেই রাজনৈতিক প্রচার সেরে গিয়েছেন। আগামী লোকসভা নির্বাচনের জন্য রাজ্যে বিজেপির নেতা ও কর্মীদের উজ্জীবিতই করে গিয়েছেন। তিনি বলেছেন, পঞ্চায়েত নির্বাচনে একের পর এক দলিত কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে । তা সত্ত্বেও আপনারা আশা ছাড়েন নি, এটাই বাংলার ভবিষ্যতের লক্ষণ। এদিনের সভায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক রাহুল সিনহা ও রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ভাষণ দিয়েছেন।  
 মোদীর সভায় প্যান্ডেল ভেঙ্গে আহত ২২ : মোদীর সভাস্থলে প্যান্ডেলের একাংশ ভেঙ্গে প্রায় ২২ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে অনেকে মহিলা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, লোহার রেলিংয়ে অনেকের উঠে পড়ার ফলেই একাংশ হুড়মুড়িয়ে ভেঙ্গে যায়। তবে আরও বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটার হাত থেকে মানুষ  রক্ষা পেয়েছে। আহতদের সকলকে স্থানীয় মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী ভাষণ দেবার সময়ই এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। প্রধানমন্ত্রী সকলকে সতর্ক করে দেন। এদিন ভাষণ শেষে মোদী নিজে হাসপাতালে গিয়ে আহতদের দেখে গিয়েছেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

শতভাগ কারখানায় বেতন দেয়া হয়েছে: বিজিএমইএ

প্রস্তত কুয়াকাটা

তুরস্কে মার্কিন দূতাবাসে গুলি

খুলনায় মেঘনা তেল ডিপোতে অগ্নিকান্ডে নিহত ২

পাবনায় ছয়তলা ভবনে আগুন

স্বৈরশাসনের যাতাকলে পিষ্ট হয়ে গোটা জাতি আতঙ্কিত: রিজভী

প্রধামন্ত্রীর গাড়ি বহর নিলামে তুলছেন ইমরান খান

অর্গানিক পদ্ধতিতে গরুর চাহিদা কেন বাড়ছে?

নাইজেরিয়ায় জঙ্গি হামলায় নিহত ১৯

মুক্তি পেলেন আরো ৯ শিক্ষার্থী

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট

‘একটি অশুভ শক্তি চক্রান্তে মেতেছে’

ড. কামাল-বি. চৌধুরীর বৈঠক

খাগড়াছড়িতে আধাবেলার সড়ক অবরোধ চলছে

ফেনীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই যুবক নিহত

ফেনীতে গরুর ট্রাক-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে নিহত ৬, আহত ৮