আদিয়ালা জেলে নওয়াজ ও মরিয়ম

শেষের পাতা

মানবজমিন ডেস্ক | ১৫ জুলাই ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:০৫
সামাজিক মর্যাদার কথা বিবেচনা করে রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা জেলে বি-শ্রেণির সুবিধা দেয়া হয়েছে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে। দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত নওয়াজ ও তার মেয়ে শুক্রবার লন্ডন থেকে দেশে ফেরেন। এর পরপরই তাদেরকে বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। পাকিস্তানি সূত্রকে উদ্ধৃত করে ভারতের অনলাইন জি নিউজ বলছে, পাকিস্তানের রাজনীতিতে এ দু’জন ভিভিআইপি কঠোর নিরাপত্তাবেষ্টিত আদিয়ালা জেলে প্রথম রাত কাটিয়েছেন। সেখানে তাদেরকে বি-শ্রেণির সুবিধা দেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে পাকিস্তান সরকারের সিনিয়র কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করা হয়েছে। ওদিকে ইসলামাবাদ প্রশাসন থেকে একটি নোটিফিকেশন ইস্যু করা হয়েছে। তাতে তারা রাজধানী ইসলামাবাদে সিহালা পুলিশ প্রশিক্ষণ কলেজের একটি রেস্ট হাউজকে সাব-জেল হিসেবে ঘোষণা করেছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত তাদেরকে সেখানে রাখার কথা। অন্যদিকে সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে জিও নিউজ জানায়, কর্তৃপক্ষ পাকিস্তানের এই দুই ভিভিআইপিকে এখনকার মতো আদিয়ালা জেলে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গতকালই ইসলামাবাদের একজন ম্যাজিস্ট্রেট ও সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে একদল চিকিৎসক আদিয়ালা জেলের ভেতরে নওয়াজ ও মরিয়মের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছেন। তারা তাদেরকে সুস্থ বলে ঘোষণা দিয়েছেন। এখানে উল্লেখ্য, পাকিস্তানে এ এবং বি শ্রেণিভুক্ত বন্দিদের জন্য কোনো কঠোর শ্রম আরোপ করা হয় না। তবে অন্যদের শিক্ষিত করতে বা পড়াশোনা করানোর কাজ দেয়া হয় তাদেরকে। এক্ষেত্রে নওয়াজ ও মরিয়মের বেলায় ওই একই নিয়ম প্রয়োগ করা হবে কিনা তা স্পষ্ট নয়। দ্য নিউজ রিপোর্ট করেছে, বি শ্রেণিভুক্ত বন্দিদেরকে জেলখানায় একটি খাট, একটি চেয়ার, স্যানিটারি সামগ্রী ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র দেয়া হয়। উল্লেখ্য, শুক্রবার নওয়াজ ও তার মেয়ে পাকিস্তানের লাহোরে অবতরণ করেন। এ সময় দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হওয়ায় তাদেরকে গ্রেপ্তার করেন জাতীয় জবাবদিহিতা বিষয়ক ব্যুরো (এনএবি)’র কর্মকর্তারা। নওয়াজ শরীফের স্ত্রী অসুস্থ। তিনি লন্ডনে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাকে দেখাশোনা করতে সেখানে গিয়েছিলেন নওয়াজ ও মেয়ে মরিয়ম। এ সময়ে তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির দায়ে অভিযোগ গঠন করে শাস্তি ঘোষণা করা হয়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন রোহিঙ্গা যুবক নিহত

দেশব্যাপী ধর্মঘট ডেকেছেন শ্রীলঙ্কার চিকিৎসকরা

হামলায় ইরানের সম্পৃক্ততার প্রমাণ দেবে সৌদি আরব

‘এখন বিহারে শুটিং করছি’

ডি মারিয়ার জোড়া গোলে রিয়ালকে উড়িয়ে দিলো পিএসজি

ছাত্রদলের ভোট শুরু

সেই যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

অভিযানে যুবলীগ নেতা খালেদের বাসায় যা পাওয়া গেল

পার্লামেন্ট স্থগিত নিয়ে রায় দেয়ার ক্ষমতা নেই আদালতের: সরকার পক্ষ

কী হবে যুবলীগের ট্রাইব্যুনালে?

দেশের অর্থনীতিতে বেক্সিমকোর অবদান অনস্বীকার্য: টিআইবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা

শেখ হাসিনা নরেন্দ্র মোদি বৈঠকে এনআরসি নিয়ে আলোচনা হবে

অর্থশাস্ত্রকে সামাজিক বিজ্ঞানে পরিণত করতে হলে পুনর্বিন্যাস জরুরি

নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১, লাশ দাফনে বাধা

পিয়াজের দাম আর কত বাড়বে?