নিজের বিয়ে নিজেই ভেঙে দিলো আয়শা

বাংলারজমিন

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি | ১৫ জুলাই ২০১৮, রোববার
বাউফল উপজেলায় নিজের বিয়ে নিজেই ভেঙে দিয়েছে আয়শা আক্তার (১২) নামে  পঞ্চম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী। ওই শিক্ষার্থী গতকাল বাউফল থানায় এসে এসআই আনোয়ার হোসেনের কাছে তাকে জোরপূর্বক বাল্যবিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন অভিযোগ করলে বন্ধ হয়ে যায় বিয়ের সব কার্যক্রম। স্থানীয়রা জানায়, বাউফল সরকারি কলেজের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী সূর্যমনি গ্রামের শাহজাদা হোসেনের ছেলে মান্নানের সঙ্গে রাজাপুর গ্রামের কামাল নাগাসীর মেয়ে আয়শা আক্তারের বিয়ে ঠিক করে তাতে রাজি হওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে আয়শার বাবা। আয়শা ওই বিয়েতে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর করে তার বাবা। বাবার মারধর সহ্য করতে না পেরে গতকাল সকালে আয়শা থানায় উপস্থিত হয়ে বাবা-মা জোর করে তাকে বাল্যবিয়ে দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন। আয়শা বাউফল আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। বাউফল পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে একটি ভাড়া বাসায় বাবা-মায়ের সঙ্গে বসবাস করেন। বাউফল থানার এসআই আনোয়ার হোসেন বলেন, মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে আয়শার বাবাকে ডেকে এনেছি।
আয়শার আঠারো বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবে না বলে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে অঙ্গীকার করেছেন আয়শার বাবা কামাল।





এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এবার বহিষ্কার হচ্ছেন বি চৌধুরী!

ইসির বৈঠকে কূটনীতিকদের উদ্বেগ আসছেন ইইউ’র দুই বিশেষজ্ঞ

বিদায় রুপালি গিটারের ফেরিওয়ালা

তিনদিনে ডিজিটাল আইনে ১৬ মামলার আবেদন

সিলেটে সমাবেশের অনুমতি মিলেনি

জনমতের প্রকৃত প্রতিফলন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

আওয়ামী লীগ মাহবুব তালুকদারের পদত্যাগ চায় না

মহানবীর রওজা জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী

সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য ঘাটতি

আওয়ামী লীগে স্বস্তি বিএনপিতে টানাপড়েন

আঞ্জু জানেন না স্বামী বেঁচে নেই

শেষ কলামেও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কথা লিখেছেন খাসোগি

সিলেটে চেয়ারম্যানপুত্রের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

ঢাকায় আকবরের নেটওয়ার্ক

এমপি রানার জামিন নামঞ্জুর

এরশাদের দিকে তাকিয়ে নেতাকর্মীরা