বিসিসি নির্বাচন

আওয়ামী লীগে ঐক্যের বাতাস

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল থেকে | ১২ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৮
ভয়ভীতি ভেঙে মাঠে নেমেছে বিএনপি নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার প্রচারণা শুরু হলেও একদিন পর অর্থাৎ বুধবার প্রকাশ্যে মাঠে নামে বিএনপি মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলররা। আওয়ামী লীগের সাদিক আবদুল্লাহ ও বিএনপির মজিবর রহমান সরোয়ার প্রকাশ্যে কোলাকুলি করে নির্বাচনে মাঠে নামায় সুষ্ঠু পরিবেশ নিয়ে আশাবাদী ভোটাররা।
গতকাল সকাল থেকেই বিএনপির ধানের শীষের পক্ষে প্রচারণায় নামে মাইক নিয়ে কর্মীরা। একই ভাবে বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীরাও গতকাল থেকে সরব হন। লিফলেট নিয়ে মাঠে নেমে পড়েন।  আওয়ামী লীগের সকল কাউন্সিলর প্রার্থী এবার ঠেলাগাড়ি মার্কা নিয়ে নির্বাচন করলেও বিএনপি একক মার্কার দিকে যায়নি।
তাদের একেক প্রার্থী একেক মার্কা নিয়ে নির্বাচন করছেন। তবে একটি বিষয় লক্ষণীয়, এবারই প্রথম বিএনপিতে কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী নেই। উল্টো যাদের বিদ্রোহ করার কথা সেই এবায়েদুল হক চান, বিলকিস আক্তার জাহান শিরিনও সরোয়ারের পক্ষে মাঠে নেমেছেন। বিভিন্ন এলাকায় ভাগ হয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। তবে গতকাল পর্যন্ত মাঠে নামেননি মেয়র ও বিএনপি নেতা আহসান হাবিব কামাল।
অপরদিকে আওয়ামী লীগ তাদের একক প্রার্থী সেরনিয়াবাদ সাদিক আবদুল্লাহ-এর পক্ষে প্রচারণায় মাঠে নেমে পড়েছেন। ঢাকা থেকে বলরাম পোদ্দারসহ একাধিক নেতা বরিশালে নৌকার পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। চষে বেড়াচ্ছেন এলাকার পর এলাকা।
তবে ভোটারদের মধ্যে এখনো শঙ্কা ও ভয় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তবে তারা প্রকাশ করছেন না কাকে ভোট দেবেন। সবাইকেই আশ্বস্ত করার কৌশল এঁটেছেন ভোটাররা। তালেব আলী নগরীর ৪ নং ওয়ার্ডের ভোটার। তার মতে নির্বাচনের ৪/৫ দিন আগে বোঝা যাবে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কিনা।
এদিকে ইশা, বাসদ ও সিপিবি তাদের নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করলেও আওয়ামী লীগ-বিএনপি-জাতীয় পার্টি নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেনি। হাতপাখা প্রতীক নিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মেয়রপ্রার্থী ওবাইদুর রহমান মাহবুব ১৬ দফা নির্বাচনী ইশতেহারে উন্নয়নের পাশাপাশি দুর্নীতি ও মাদকমুক্ত নগরী গড়ে তুলবেন বলে জানিয়েছেন।
নৌকা প্রতীকের মেয়রপ্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ কোনো ইশতেহার ঘোষণা না করার বিষয়ে বলেছেন নগরবাসীর সব ধরনের প্রয়োজনীয় বিষয়গুলো তিনি সমাধান করবেন বলে জানান। তবে বিএনপির  মেয়রপ্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ার তার নির্বাচনী ইশতেহার শিগগিরই প্রকাশ করবেন বলে জানিয়েছেন এবং তার ইশতেহারে নগরীর উন্নয়নের কথাই থাকবে বলে জানান। মই প্রতীকের বাসদ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ডা. মনীষা চক্রবর্তী তার ইশতেহার প্রকাশ করেছেন। কাস্তে প্রতীকের সিপিবি’র প্রার্থী একে আজাদ নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেছেন। লাঙল প্রতীকের জাতীয় পার্টির ইকবাল হোসেন তাপস এখনো ইশতেহার প্রকাশ করেননি। প্রার্থীরা দিনভর গণসংযোগ চালাতে পারলেও দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা অবধি মাইক ব্যবহারের সময় বেঁধে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এটি এখনো মেনে চলছেন প্রার্থীরা। লিফলেট মাইকিং বা পোস্টারের চেয়ে দ্বারে-দ্বারে প্রচারণায় বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন তারা। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ প্রচার-প্রচারণা চলছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘জিতলে জার্মান, হারলে অভিবাসী’: বিদায়বেলায় ওজিল

চীনে চাইলেই বিবাহ বিচ্ছেদ নয়

নেতাকর্মীকে থানায় নিলে থানা ঘেরাও করতে হবে

চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে আগুন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন,'সেফলি বের হয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করছি'

বিদেশে যেতে হাইকোর্টে ইমরানের রিট

গুলশান হামলায় ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

সিলেটে গণগ্রেপ্তারের অভিযোগ আরিফের

আইএমএফ প্রধানকে নিয়ে বিমানের জরুরি অবতরণ

সুন্দরী গুপ্তচরের গোপন কাহিনী ফাঁস

আলিঙ্গন হজম করতে পারছে না বিজেপি

কুমিল্লার আদালতকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে খালেদার আবেদন নিষ্পত্তির নির্দেশ

‘সরকারী কর্মকর্তাদের জনগণের কল্যাণে কাজ করতে হবে’

কয়লা গেল কই, আর গুপ্তধন?

‘নওয়াজের কিডনি পুরোপুরি বিকল হওয়ার পথে’

ই-গভর্নমেন্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের অগ্রগতি