মিয়ানমার ও লাওসের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ভিসায় কড়াকড়ি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ জুলাই ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:০০
যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেয়া নিজেদের নাগরিকদের গ্রহণে অস্বীকৃতি জানানোর কারণে মিয়ানমার ও লাওসের বিরুদ্ধে ভিসা দেয়ার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটি (ডিএইচএস) এক বিবৃতিতে বলেছে, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ওই দুটি দেশের কিছু নাগরিককে বহিষ্কার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তাদেরকে গ্রহণ করতে প্রত্যাখ্যান করছে ওই দুটি দেশ অথবা তারা অযৌক্তিভাবে তাদের নাগরিকদের গ্রহণে বিলম্ব করছে। ডিএইচএসের নির্দেশনার ভিত্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মিয়ানমারে ও লাওসে তাদের কনসুলার অফিসারদের ভিসা দেয়ার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপের নির্দেশ দিয়েছে। সুনির্দিষ্ট একটি ক্যাটেগরিতে ভিসা আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে এ নিয়ম বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। ডিএইচএস আরো বলেছে, মিয়ানমার ও লাওস থেকে উপযুক্ত কোনো সাড়া না পাওয়া গেলে এই স্থগিতাদেশের পরিধি আরো বিস্তৃত করা হবে। উল্লেখ্য, মিয়ানমার ও লাওসের যেসব মানুষকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে তাদেরকে যুক্তরাষ্ট্রের সমাজের জন্য ভয়াবহ অপরাধী হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। এ বিষয়ে আর বিস্তারিত কিছু বলা হয় নি।
তবে বৈধ অথবা অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিবাসন নীতি কড়াকাড়ি করা হয়েছে। এটা আগে থেকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এরশাদ কন্যা মৌসুমীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

প্রেস পাস পুনর্বহাল সাংবাদিক অ্যাকস্টার

গাংনীতে অস্ত্র-মাদকসহ আটক ১

এরশাদকে ছেড়ে যাবো না

ভারতভুক্তির তিন বছর পর সাবেক ছিটবাসীরা জমির স্বত্ব পাচ্ছেন

‘পাকিস্তানকে বলির পাঁঠা বানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র’

ফিরলেন এরশাদ

মহারাষ্ট্রে সেনাবাহিনীর অস্ত্রভান্ডারে বিস্ফোরণে নিহত ৬

বাংলাদেশী রেজাউরের কাণ্ড!

সরকারি কাজে ইভানকার ব্যক্তিগত ইমেইলের ব্যবহার

নারী দেখলেই আপত্তিকর আচরণ বন্দিদের

ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন, তৃতীয় দিনের মতো চলছে সাক্ষাৎকার

টেক্সাস সীমান্তে দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে বাংলাদেশীদের অপতৎপরতা

টেকনাফে ‘বন্ধুক যুদ্ধে’ ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

সমঝোতা সত্ত্বেও যুদ্ধ চলছে ইয়েমেনে

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ মিয়ানমারের কর্মকর্তাদের