টঙ্গীতে সেপটিক ট্যাংকে নেমে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, টঙ্গী থেকে | ১০ জুলাই ২০১৮, মঙ্গলবার
টঙ্গীতে সেপটিক ট্যাংকে নেমে দুই ভাইসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরে টঙ্গীর খৈরতুল এলাকায় একটি নির্মাণাধীন ভবনে এ ঘটনা ঘটে বলে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আশিকুর রহমান জানান। নিহতরা হলেন- রংপুরের কাউনিয়ার নাজিরগাঁও এলাকার জহিরুল ইসলামের ছেলে  মো. ফারুক মিয়া (১৮), ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থানার কালাদহ এলাকার শহীদুল ইসলামের ছেলে মো. শাহীন (২৪) ও তার বড়ভাই মো. আতিক (২৮)। ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা আশিকুর বলেন, বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ইউসুফ আলী নামের এক ব্যক্তির নির্মাণাধীন বাড়ির সেপটিক ট্যাংক নির্মাণ ও পরিষ্কার করতে যান তিন শ্রমিক। ট্যাংকটির মুখ ছোট হওয়ায় প্রথমে এক শ্রমিক ভেতরে নামেন। দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও তিনি ফিরে না আসায় পর্যায়ক্রমে বাকি দুইজন ভেতরে নামেন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে গুসলিয়া ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ট্যাংক নির্মাণের জন্য খুঁড়ে রাখা গর্তে অক্সিজেনের অভাবে এবং বিষাক্ত গ্যাস জমে থাকার কারণে তারা অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন বলে ধারণা ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তার।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন