কসবায় টিকিট কালোবাজারি গ্রেপ্তার ১

বাংলারজমিন

কসবা (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি | ১০ জুলাই ২০১৮, মঙ্গলবার
কসবা রেলস্টেশনের আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট কালোবাজারিদের দখলে চলে গেছে। প্রতিদিন সাধারণ যাত্রীরা টিকিট না পেয়ে কালোবাজারিদের কাছ থেকে অধিক দামে কিনছেন। অভিযোগ রয়েছে- স্টেশন মাস্টার কালোবাজারিদের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি করছেন। গত রোববার সন্ধ্যায় রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় ৩৩টি আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিটসহ খলিল মিয়া নামক এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় কসবা থানার এসআই আবদুর রহিম বাদী হয়ে ৪ টিকিট কালোবাজারির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তার হওয়া খলিল মিয়া (৩৫) কসবা পৌর শহরের খারপাড়া এলাকার আবদুল ছাত্তারের ছেলে।
গতকাল তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ, মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কসবা স্টেশনে আন্তঃনগর ট্রেন মহানগর এক্সপ্রেস, উপকূল, চট্টলা ও পাহাড়িকা ট্রেনের যাত্রা বিরতি রয়েছে। প্রতিদিন শ’ শ’ যাত্রী এ স্টেশন দিয়ে যাতায়াত করেন। এ স্টেশনে উপকূল ট্রেনে ঢাকাগামী ৭০টি, নোয়াখালীগামী ৪০টি, মহানগর এক্সপ্রেস ট্রেনে ঢাকাগামী ২০টি, চট্টগ্রামগামী ২০টি, চট্টলা ট্রেনে ঢাকাগামী ১৫টি, চট্টগ্রামগামী ১৫টি, পাহাড়িকা সিলেটগামী ২০টি এবং চট্টগ্রাম গামী ৩০টি আসন রয়েছে। প্রত্যেক ট্রেনের আসনের টিকিট ১০ দিন আগেই স্টেশন মাস্টারের যোগসাজশে টিকিট কালোবাজারিরা কিনে নেয়। ওই টিকিট উচ্চমূল্যে কিনে নিতে হচ্ছে যাত্রীদের। একটি টিকিট দেড় থেকে দুইশ’ টাকা বেশি দিয়ে কিনতে হচ্ছে। আসন না পেয়ে বাধ্য হয়েই আসনবিহীন টিকিট কিনছেন যাত্রীরা। গত রোববার বিকালে রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় টিকিট কালোবাজারিরা টিকেট বিক্রি করছেন খবর পেয়ে অভিযান চালায় কসবা থানা পুলিশ। এ সময় খলিল মিয়াকে ৩৩টি টিকিটসহ গ্রেপ্তার করলেও অন্যরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। কসবা রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী মাস্টার মো. জসিম বলেন, খলিল ছাড়াও অনেক টিকিট কালোবাজারি আছে। তাদেরকেও গ্রেপ্তার করা  হোক। খলিল তার পিএস কিনা জানতে চাইলে তিনি  কোন উত্তর দেননি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

চীনে চাইলেই বিবাহ বিচ্ছেদ নয়

নেতাকর্মীকে থানায় নিলে থানা ঘেরাও করতে হবে

চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে আগুন

বিদেশে যেতে হাইকোর্টে ইমরানের রিট

গুলশান হামলায় ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

সিলেটে গণগ্রেপ্তারের অভিযোগ আরিফের

আইএমএফ প্রধানকে নিয়ে বিমানের জরুরি অবতরণ

সুন্দরী গুপ্তচরের গোপন কাহিনী ফাঁস

আলিঙ্গন হজম করতে পারছে না বিজেপি

কুমিল্লার আদালতকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে খালেদার আবেদন নিষ্পত্তির নির্দেশ

‘সরকারী কর্মকর্তাদের জনগণের কল্যাণে কাজ করতে হবে’

কয়লা গেল কই, আর গুপ্তধন?

‘নওয়াজের কিডনি পুরোপুরি বিকল হওয়ার পথে’

ই-গভর্নমেন্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের অগ্রগতি

কানাডায় অস্ত্রধারীর গুলিতে নিহত ১, গুলিবিদ্ধ ১৪

এক জঙ্গির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি