ভারতে একটি পরিবারের ১১ জনের গণ আত্মহত্যা

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১ জুলাই ২০১৮, রোববার
একজন, দুইজন নয়, একসঙ্গে একটি পরিবারের ১১ জনের গণ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে দিল্লির বুখারি এলাকায়। প্রতিবেশিদের কাছে খবর পেয়ে রবিবার সকালে পুলিশ ঘরের দরজা ভেঙ্গে দেখে ১১ জনের ঝুলন্ত লাশ। প্রত্যেকের চোখ ও মুখ কাপড়ে বাঁধা ছিল। হতবাক হয়ে যান পুলিশ কর্তারাও। রবিবার সকালে এমনই ঘটনার সাক্ষী হল বুখারি। জানা গেছে এরা সকলেই একটি পরিবারের। মৃতদের মধ্যে ৫টি শিশু রয়েছে। কোনও আত্মহত্যার নোট পাওয়া যায়নি।
পুলিশ লাশগুলি ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে জানিয়েছে, এটা মনে করা হচ্ছে গণ আত্মহত্যার ঘটনা। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, ২০ বছর ধরে বুখারি এলাকার ২৪ সন্ত নগরের দোতলা বাড়িতে থাকত ওই পরিবারটি। দুই ভাই ললিত এবং ভুবনেশ্বর তাদের পরিবার নিয়ে ওই বাড়িতে থাকতেন। সঙ্গে থাকতেন তাদের মা, এক বিধবা বোন। তাদের আসল বাড়ি রাজস্থানে। পারিবারিক মুদির দোকানের ব্যবসা রয়েছে ললিত-ভুবনেশ্বরদের। এ ছাড়াও বড় ভাই ললিতের একটি আসবাবের দোকানও ছিল বাড়ির নীচেই। প্রতিবেশিরা জানিয়েছেন, দুই ভাই এক সঙ্গেই থাকতেন। তাদের পরিবারে কোনও আর্থিক অস্বচ্ছলতা ছিল বলে কোনও দিনই মনে হয়নি। এমনকি, পারিবারিক দ্বন্দ্বের কোনও ঘটনাও শোনা যায়নি। পরিবারটি খুব মিশুক ছিল বলেও জানিয়েছেন তারা। পুলিশ জানিয়েছে, ময়নাতদন্তের পরই মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। পাশাপাশি খুন না আত্মহত্যা সেই বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নাটক করছে ঐক্যফ্রন্ট

হাসপাতালে যেমন আছেন খালেদা

ইমরুলের ব্যাটে বঞ্চনার ‘জবাব’

অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের তাগিদ

মইনুলের বিরুদ্ধে দুই মামলা, জামিন

অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন উদ্বেগ প্রশমিত করতে পারে

দেশে ৩ কোটি মানুষ দরিদ্র এক কোটি হতদরিদ্র

আড়াইহাজার ও রূপগঞ্জে ৫ যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ

স্টেট ডিপার্টমেন্টের সর্বোচ্চ সম্মাননা পেলেন বার্নিকাট

ভোটের হাওয়া ভোটারের চাওয়া

তরুণদের কাছে ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

আমীর খসরু কারাগারে

প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাতের পর তফসিল: ইসি সচিব

সড়কে সেই আগের চিত্র

পররাষ্ট্র দপ্তরের সর্বোচ্চ সম্মাননা পেলেন বার্নিকাট

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন কাল