ভারত থেকে বাংলাদেশে তিন বছরে চোরাচালান বৃদ্ধি পেয়েছে

অনলাইন

কলকাতা প্রতিনিধি | ২৫ জুন ২০১৮, সোমবার, ১২:৪৭
ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে চোরাচালান অনেকটাই কমেছে বলে কেন্দ্রীয সরকার বিভিন্ন সময়ে দাবি করেছে। কিন্তু সম্প্রতি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র  মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, এই সীমান্তে চোরাচালান অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। রীতিমত পরিসংখ্যান দিয়ে এই দাবি জানানো হয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, গত তিন বছরে দেশের সীমান্ত দিয়ে মাদক, অস্ত্র ও গরু চোরাচালানের ঘটনা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে। একই সঙ্গে দাবি করা হয়েছে, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, ভূটান, নেপাল এবং মায়ানমার সীমান্ত লাগোয়া অঞ্চলে অপরাধমূলক কার্যকলাপ অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০১৫ সালে সীমান্তে অস্ত্র, মাদক  ও গরু পাচারসহ চোরাচালানের সংখ্যা ছিল ১৯,৫৩৭। সেই জায়গায় ২০১৬ সালে এই সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২৩,১৯৮। ২০১৭ সালে তা আরও বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৩১,৫৯৩।
অন্যদিকে চোরাচালানের সঙ্গে যুক্তদের গ্রেপ্তারের ঘটনাও বেড়েছে। তবে বাংলাদেশ সীমান্তে তা কমেছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতে, অধিকাংশ চোরাচালান ও গ্রেপ্তারের ঘটনাই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে হয়েছে। ভারতের সঙ্গে ৪ হাজার কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে বাংলাদেশের। কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০১৫ সালে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ১৮,১৩২টি চোরাচালানের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৬ সালে এই সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে  ২১,৭৭১ এবং ও ২০১৭ সালে তা আরও বৃদ্ধি পেয়ে গিয়ে পৌঁছেছে ২৯,৬৯৩টিতে। অন্যদিকে বাংলাদেশ সীমান্তে চোরাচালানের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে ২০১৫ সালে যেখানে মাত্র ৬৫৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সেখানে সেখানে পরের দু বছরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে যথাক্রমে ৭৫১ ও ৬৩৩ জনকে। অন্য আন্তর্জাতিক সীমান্তগুলির মধ্যে ২০১৫ সালে নেপাল-সীমান্ত দিয়ে ১,১৫৮টি অস্ত্র, মাদক ও গরু চোরাচালানের ঘটনা ঘটেছে। পরের দু বছরে এই সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ১,১৭৩ ও ১,৫৬৩।রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ভারতের  বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে চোরাচালানের সময় ২০১৫ সালে ১,৬৩,১৮০টি গরু আটক করা হয়েছে। ২০১৬ সালে সংখ্যাটি ছিল ১,৭১, ৮৬৯ এবং ২০১৭ সালে তা দাঁড়িয়েছে ১,৩০,৮০৬।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘এর জন্য অপেক্ষাতো করতেই হবে’

কোথাও বাবাকে খুঁজে পাননি নাসরিন

যমজ সন্তান মর্গে এলো বাবাকে খুঁজতে

খালেদা তখন কী করছিলেন?

শ্রদ্ধা ভালোবাসায় অমর একুশে পালিত

রায় লিখুন বাংলায়, যাতে মানুষ বোঝে: প্রধানমন্ত্রী

বাবাকে খুঁজছে রাফিন

চারদিন পরই ছিল দু’জনের চূড়ান্ত পরীক্ষা

লিজার এজাহার ব্যবসায়ীদের জিডি

তিন জার্মান সাংবাদিকসহ আহত ৬

যেভাবে বিদেশে পাচার হচ্ছে অর্থ

শামিমাকে বাংলাদেশে প্রবেশের অনুমতি দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না

ঢামেকের বার্ন ইউনিটে কাতরাচ্ছেন ৯ জন

আগুনের লেলিহান শিখার মধ্যেও অক্ষত মসজিদ

বোনের বিয়ের বাজার করা হলো না রোহানের

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর জন্য নামেননি স্বামীও