সমন্বয়হীনতার খেসারত দিলো আর্জেন্টিনা

শেষের পাতা

| ২৩ জুন ২০১৮, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:০২

আর্জেন্টিনা কোচের ভুল সিদ্ধান্ত ও খেলোয়াড়দের সমন্বয়হীনতার খেসারত দিয়েছে বলে মনে করেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক ও গোলরক্ষক আমিনুল হক। তিনি  বলেন, যতই স্টার-সুপার স্টার থাকুক দলে, নিজেদের মধ্যে সমন্বয় গড়ে তুলতে হয়। আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা বড় লীগের বড় বড় দলে খেলে। কিন্তু বিশ্বকাপের আগে তারা পর্যাপ্ত প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে সমন্বয় গড়ে তুলতে পারেনি। খেলোয়াড়দের মধ্যকার সমন্বয়হীনতা যে সুপার ফেভারিটদেরও বিপর্যস্ত করে এটা তার প্রমাণ। প্রথম ম্যাচে নবাগত আইসল্যান্ডের সঙ্গে ড্রয়ের পর ঘুরে দাঁড়ানোর বিকল্প ছিল না আর্জেন্টিনার সামনে।
কিন্তু বাজে ফুটবলের এক দুঃসহ প্রদর্শনী দেখিয়েছে দলটি। কোস্টারিকার সঙ্গে খেলা দেখে মনেই হয়নি এটি ম্যারাডোনার দেশ। মনেই হয়নি, পৃথিবীজুড়ে শত-কোটি মানুষের সমর্থনধন্য একটি দেশ খেলছে। আমিনুল বলেন, ম্যাচের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনেই হয়নি আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা জয়ের জন্য উদগ্রীব। মনেই হয়নি তারা জিততে চায়। অন্যদিকে ইউরোপের মাঝারি শক্তির দল ক্রোয়েশিয়া ছিল পজেটিভ, দুর্দান্ত। আমিনুল বলেন, প্রথম গোল হজম করার পর আর্জেন্টিনার জন্য ম্যাচটি কঠিন হয়ে যায় এবং তারা ধীরে ধীরে ম্যাচ থেকে হারিয়ে যায়। পরের গোলগুলো কেবল তাদের পরাজয়কে নিশ্চিত করেছে। তারা যখন অ্যাটাকে গেছে ডিফেন্স-মিডফিল্ড বল যোগান দিতে পারেনি, যখন প্রতিপক্ষ কাউন্টার অ্যাটাকে গেছে তখন রক্ষণ সামলাতে পারেনি। অন্যদিকে কাউন্টার অ্যাটাকে খেলে যতগুলো সুযোগ পেয়েছে তার সবই কাজে লাগিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। তিনি বলেন, ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে লিওনেল মেসি ছিলেন একেবারেই নিষ্প্রভ। এমন মেসিকে অতীতে কোনো ম্যাচে দেখা যায়নি, ফুটবলপ্রেমীদের কাছে এটা অবিশ্বাস্য। তার চেহারায় ছিল চাপের রেশ। এমনকি সে সতীর্থদের কাছে বলের জোগানও পায়নি। কোচের ফরমেশন, একাদশ নির্বাচন ও কৌশল নিয়েও সম্ভবত মেসি সন্তুষ্ট ছিলেন না। আর আর্জেন্টিনার কোচ অত্যন্ত চঞ্চল প্রকৃতির। সে সবসময় সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগে। তার ফরমেশন ও একাদশ নির্বাচন ছিল অনেকটাই আত্মঘাতী। এখন তাদের সামনে সম্ভাবনার রেখাটি খুবই ক্ষীণ। বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক কোচ জর্জ কোটানের দেখা অন্যতম সেরা গোলকিপার আমিনুল বলেন, আমি আগের লেখায় রোমেরোর অভাব অনুভবের কথা বলেছিলাম, সেটা হাড়ে হাড়ে অনুভব করেছে আর্জেন্টিনা। গোলরক্ষক হিসেবে কাবায়েরো জঘন্য। আমিনুল বলেন, অন্য ম্যাচে ফ্রান্সের বিপক্ষে পেরু খেলেছে দুর্দান্ত। অভিজ্ঞতার অভাব ও এমবাপ্পের দুর্দান্ত এক গোলের হার মেনেছে তারা। তবে নিজেদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের ইঙ্গিত দিয়ে গেছে। আরেক ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াও অসাধারণ খেলেছে। ডেনিশদের মতো শক্তিশালী দলকে তারা নাকানি-চুবানি খাইয়েছে। উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে তাদের সামনে।  
ব্রাজিল লড়াই করে জিতেছে বলে মনে করেন আমিনুল। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের নিউক্যাসল ইউনাইটেডে ডাক পাওয়া এ গোলরক্ষক বলেন, আগের লেখায় বলেছিলাম ব্রাজিলকে বেগ পেতে হবে। কোস্টারিকা তাদের গোলের অপেক্ষায় রেখেছে খেলার প্রায় পুরোটা সময়। তারা ডিফেন্স করে কাউন্টার অ্যাটাকে গেছে। অন্যদিকে সেলেকাওরা খেলেছে জয়ের জন্য, অলআউট কৌশলে। ম্যাচের একেবারের শেষপর্যায়ে তাদের মুখে হাসি ফুটেছে। স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে পৃথিবীজুড়ে দলটির শত-কোটি সমর্থক। খেলোয়াড়দের চেষ্টার পাশাপাশি ভাগ্যের সহায়তাও লাগে। ব্রাজিল সেটা পেলে গোলের সংখ্যা হতে পারত দ্বিগুণ। আমিনুল বলেন, নেইমার খোলস থেকে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে। কয়েকটি সুযোগ মিসের পর গোলও পেয়েছে। সবচেয়ে ভালো লেগেছে সে তার মধ্যে ফুটবলশৈলীর যে পসরা রয়েছে তার দুয়েকটির প্রদর্শন দেখিয়েছে  দ্বিতীয় ম্যাচে। দারুণ খেলেছে কুতিনহো। অন্যদিকে পোস্টের অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকায় ছিলেন কেইলর নাভাস। আমিনুল বলেন, রাশিয়া বিশ্বকাপে ফেভারিটদের জন্য আরও পরীক্ষা অপেক্ষা করছে। ফুরিয়ে যাচ্ছে ফেভারিটের তকমা নিয়ে সহজে এগিয়ে যাওয়ার দিন।
শনিবার অনুষ্ঠেয় তিন ম্যাচের পেডিকশন করতে গিয়ে আমিনুল বলেন, প্রথম ম্যাচে পরাজিত জার্মানির জন্য আজকের ম্যাচটি অগ্নিপরীক্ষা। তাদের জিততেই হবে। অন্যদিকে প্রথম ম্যাচে জার্মানিকে হারিয়ে দেয়া উজ্জ্বীবিত মেক্সিকোর সঙ্গে কঠিন লড়াই অপেক্ষা করছে দক্ষিণ কোরিয়ার সামনে। বেলজিয়াম-তিউনিসিয়ার ম্যাচটিও হবে জমজমাট।  
অনুলিখন: কাফি কামাল

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

১০ বাংলাদেশি লিবীয় উপকূলে জীবিত উদ্ধার

প্যারিস বিমানবন্দরে ফ্রান্স টিম

ফ্রান্সের রাস্তায় রাস্তায় স্লোগান আমরা চ্যাম্পিয়ন

মামলা, পুলিশ কর্মকর্তার মাথায় পিস্তল ঠেকানোর অভিযোগ আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে

ওসমানী হাসপাতালে স্কুলছাত্রী ধর্ষিত, ইন্টার্ন চিকিৎসক আটক

বাংলাদেশের নির্বাচনে একপেশে নীতি ভারতের পক্ষে যাবে না

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের ওপর হামলা নজিরবিহীন

মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করিনি

যারা শিক্ষকের ওপর আঙ্গুল তোলে তারা ছাত্র নামের কলঙ্ক

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নিরপেক্ষ থাকার নির্দেশ মাহবুব তালুকদারের

প্রত্যেক উপজেলায় ‘স্বতন্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্র’ হচ্ছে

নিখোঁজ তারেকের সন্ধান চায় পরিবার

সরকারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি বিটিআরসির

শফিককে জবাব দিতে মাঠে লুনা

নজর কাড়ার চেষ্টায় বিএনপি লিটন বলছেন মিথ্যাচার

২,১৫৪ জনে অনাপত্তি মিয়ানমারের তবে...