সিলেটে ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে ক্ষোভ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ২৩ জুন ২০১৮, শনিবার
সিলেটে ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে বিদ্রোহ চলছে। ইতিমধ্যে ঘোষিত দুটি কমিটি থেকে ৯ জন পদত্যাগ করেছেন। আবার রাজপথেও তারা একপক্ষ অপর পক্ষের মুখোমুখি হয়েছেন। পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিও পালন করা হচ্ছে। এ কারণে সিলেটের ভোটের মাঠে ছাত্রদলের ভেতরে ক্ষোভ ও উত্তেজনা দুটিই বিরাজ করছে। নতুন মুখ দিয়ে এবার সিলেট ছাত্রদলের কমিটি সাজানো হয়। তবে, এবারের কমিটিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে সিলেটের ‘মীরাবাজার গ্রুপ’। ছাত্রদলের ওই গ্রুপ বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সামসুজ্জামান জামানের অনুসারী।
কমিটির পদবী বণ্টনে মিরাবাজার গ্রুপের কর্মীদের বাদ দিয়ে অন্যসব গ্রুপ নিয়ে করা হয়। আর দুটি কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যারা হয়েছেন তাদের ছাত্রত্ব নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে। জামান বলয়ের নেতাকর্মীরা এই কমিটির জন্য দুষছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরকে। তারা বলেন, খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির তার বলয়ের নেতাকর্মীদের দিয়ে কমিটি দুটি গঠন করেছেন। এ কারণে দলের শহর কেন্দ্রিক মাঠ দখলে থাকা নেতারা কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত হননি। ২০ থেকে ২৫টি মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে লন্ডনে রয়েছেন অ্যাডভোকেট জামান। ২০১৪ সালের নির্বাচনের সময় জামান তার দলবল নিয়ে কাপিয়েছেন সিলেট নগর। এর আগে ইলিয়াস আলীর গুমকে কেন্দ্র করে তিনি সিলেটে আন্দোলন গড়ে তুলেছিলেন। মাঠের আন্দোলন করতে গিয়ে জামান ও তার অনুসারীরা একের পর এক মামলার আসামি হয়েছেন। কিন্তু এবার ভিন্ন ঘটনা ঘটেছে। সিলেটের মীরবক্স টুলার মিজান গ্রুপ, সাপ্লাইয়ে শাহীন গ্রুপ, জিন্দাবাজারের পুরানলেন গ্রুপসহ কয়েকটি গ্রুপের যোগ্য নেতাদের পাশ কাটিয়ে ১৩ই জুন ঘোষণা করা হয় সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি। জেলার নতুন কমিটির সভাপতি করা হয়েছে সিলেটের কাজিরবাজারের আলতাফ হোসেন সুমন ও সাধারণ সম্পাদক উপশহরের তের রতন এলাকার তিন সন্তানের জনক দেলোয়ার হোসেন দিনারকে। মহানগরের সভাপতি করা হয়েছে সুদীপ জ্যোতি দে ও সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি আহসানকে। এই দুটি কমিটি ঘোষণা করার পর সিলেট ছাত্রদলের ক্ষোভ দেখা দেয়। পদবঞ্চিতরা একদিকে অবস্থান নিয়ে আলাদা বলয় গড়ে তুলেছেন। আর নতুনরাও কমিটির ফ্রেমের ভেতরেই বলয় গড়ে তুলেছেন। এ নিয়ে ঈদের আগে থেকেই সিলেটের রাজপথে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে ছাত্রদল। ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণার পরপরই সিলেট থেকে জেলার সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি শিহাব খান, মহানগরের সহ-সভাপতি মাশরুর রাশেল, আনোয়ার রাজু, যুগ্ম সম্পাদক সুহেল ইবনে রাজাসহ ৯ জন পদত্যাগের ঘোষণা দেন। তারা অনেকটা সমর্থন দিচ্ছে মাঠে থাকা নেতাকর্মীদের। তবে, সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের নবাগত কমিটির দায়িত্বপ্রাপ্তরা জানিয়েছেন, এবার যোগ্য দেখেই কমিটিতে স্থান দেয়া হয়েছে। এ কারণে কমিটি ঘোষণার পরপরই সিলেটের রাজপথে সক্রিয় ভূমিকা রাখতে শুরু করেছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘হামলা চালিয়ে পুলিশ নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছে’

স্পিকারের ঘোষণা: পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছেন রাজাপাকসে

বিনা উস্কানিতে পুলিশের ওপর হামলা:ডিসি মতিঝিল

একপক্ষ নির্বাচন করবে, আর আমরা আদালতে আসবো তা হতে পারে না

ছররা গুলির স্প্লিন্টারে আহত মানবজমিন প্রতিবেদক রুদ্র মিজান

‘নয়া পল্টনে সরকারের পরিকল্পিত হামলা’

ফের হেলমেট বাহিনী!

গণভবন ঘিরে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ঢল

রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা ক্ষমার অযোগ্য

তৃতীয় দিনেও বিএনপির মনোনয়নপত্র কিনতে উপচে পড়া ভিড়

পশ্চিমবঙ্গের নাম বাংলা করা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের আপত্তি

সরকারী টাকায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচার বন্ধের দাবি বিএনপির

২৮ বছর বয়সেই ফোর্বস ম্যাগাজিনে নাম!

ট্রেন চলাচল বন্ধ

কক্সবাজারে উজ্জ্বীবিত বিএনপি

ডিসেম্বরে শুনানি শেষে চূড়ান্ত রায় শ্রীলঙ্কা সুপ্রিম কোর্টের