অক্টোবরে গঠিত হতে পারে নির্বাচনকালীন সরকার

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:২৬
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য নির্বাচনকালীন সরকার চলতি বছরের অক্টোবরেই গঠিত হতে পারে। তিনি বলেন, নির্বাচনকালীন সরকারের  আকার ছোট হবে। তবে, বিষয়টি পুরোপুরি প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার সচিবালয়ের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে নির্বাচনকালীন সরকার দায়িত্ব গ্রহণ করবে। নির্বাচনকালীন সরকার বলতে নতুন কোনো সরকার গঠিত হবে না। বর্তমান সরকারই নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব নেবে।
তবে নির্বাচনকালীন সরকারের আকার এত ঢাউস হবে না। মন্ত্রিপরিষদের আকার ছোট হবে।

বিএনপি নির্বাচনে না আসলে নির্বাচন একতরফা হবে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আগামী সংসদ নির্বাচন হবে অংশগ্রহণমূলক। সে নির্বাচনে অনেক দলই অংশ নেবে। বিএনপি না এলেও সে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, বিএনপি জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে কেন সংশয় প্রকাশ করছে তা আমার বোধগম্য নয়। কারণ, সিটি করপোরেশন নির্বাচনগুলোতে তো বিএনপি অংশ নিচ্ছে। কুমিল্লায় জিতেছে, খুলনায় অংশ নিয়েছে, গাজীপুরে অংশ নিচ্ছে। ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি বরিশাল এবং রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী দেবে। এ সমস্ত নির্বাচনে যদি তারা অংশ নিতে পারে তবে, জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে কোথায় তাদের ভয়- সে বিষয়টি আমাদের কাছে স্পষ্ট নয়। তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনে তো সরকারের কোনো প্রভাবই থাকবে না। তারপরেও নির্বাচনে অংশ নিতে তাদের কেন সংশয় সেটা তারাই বলতে পারবে।

উল্লেখ্য, সংবিধান অনুযায়ী দশম সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ৯০ দিনের মধ্যে সংসদ নির্বাচন করতে হবে। এ হিসেবে নির্বাচন করতে হবে ৩০শে অক্টোবর থেকে ২৮শে জানুয়ারির মধ্যে। আওয়ামী লীগ সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনের কথা বললেও বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলো নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দাবি করে আসছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

শহীদ

২০১৮-০৬-২১ ২০:০১:০৩

স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সরকার পরিবর্তন হয় না। যে সরকার প্রধান সে যদি নির্বাচন কমিশনকে পরিচালনা করে নিশ্চয়ই সে তার পরাজয় চাইবে না। যে কোন প্রকারে হোক তার জয় নিশ্চিতই তার উদ্দেশ্য। বাংলাদেশে নির্বাচন কমিশন স্বাধীন নয়। নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার সরকারের অধিনস্থ কর্মকর্তা। কেহ আসলে আসুক না আসলে নাই আমরা নির্বাচন করে ফেলব সেটা কোন সরকার বলতে পারে না। এটা সম্পূর্ণ স্বাধীন নির্বাচন কমিশনারের বক্তব্য।

আপনার মতামত দিন

খালেদার গুলশান কার্যালয়ের ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্নের অভিযোগ

মাদার অব হিউম্যানিটি পদক প্রদানের সিদ্ধান্ত

খালেদার সাজা স্থগিতের আবেদন

তারেকের ব্যাপারে ইসির কিছু করার নেই

আওয়ামী লীগের প্রার্থিতা এখনো চূড়ান্ত হয়নি

ভালো প্রার্থীদের জামিন না দিয়ে শুনানি বিলম্ব করা হচ্ছে

ছাত্রদল নেতার পরিবারের আর্তি

বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল

বিবিসি’র প্রেরণাদায়ী নারীর তালিকায় সেই মা

সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সব সমন্বিত পরিকল্পনা নিন

দ্বিতীয় দিনের মতো বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার, নেতাকর্মীদের ভিড়

শ্রিংলা বললেন জড়িত হওয়ার সুযোগ নেই

গণফোরামে সাবেক ১০ সেনা কর্মকর্তা

‘প্রশাসন-পুলিশের ভূমিকা পক্ষপাতমূলক নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি হয়নি’

নারায়ণগঞ্জে সাত খুন মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

আমজাদ হোসেনের শারীরিক অবস্থার অবনতি