ময়মনসিংহে যুবলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে | ২০ জুন ২০১৮, বুধবার, ১০:০৪
ময়মনসিংহ শহরের আকুয়া হাবুন বেপারী কলাবাগান এলাকায় মহানগর যুবলীগের দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। আজ বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এক শিশুসহ তিনজন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন ৬ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি স্বপন সরকার (২৫), যুবলীগকর্মী মোর্শেদ (১৮) ও বাপ্পী (১২)।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ সময় পুলিশের মোটরসাইকেলও ভাঙচুর করা হয়।

এ বিষয়ে প্রত্যক্ষদর্শী আকুয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, একই এলাকার মহানগর যুবলীগের সদস্য শেখ আজাদ ও শেখ ফরিদের মধ্যে কয়েকদিন ধরে সংঘর্ষ চলে আসছিল। আজ দুপুরে দুই পক্ষের ৩০ থেকে ৪০ জন সমর্থক দেশীয় অস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্রসহ ককটেল নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রায় আধ ঘণ্টা গোলাগুলি, ককটেল বিস্ফোরণ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া চলে।
এ সময় তিনজন আহত হন।

শফিকুল ইসলাম শফিক আরো জানান, সংঘর্ষের সময় হাবুন বেপারী মোড়ে প্রয়াত আফাজ চেয়ারম্যানের অফিসে গুলি চালানো হয়। এ সময় অফিসের ভেতরে কয়েকজন নারী পুলিশ কর্মরত ছিলেন।

ঘটনার পর গোয়েন্দা পুলিশ ও কোতোয়ালি থানার পুলিশ এলাকায় অবস্থান নিয়েছে। এ বিষয়ে ঘটনাস্থলে থাকা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) খন্দকার শাকের আহামেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘ওই তিনজন কীভাবে আহত হয়েছেন এখনি বলা যাচ্ছে না। আমরা শান্তি বজায় রাখতে কাজ করছি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা,স্বামী আটক

যাত্রাবাড়ীতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ১, দগ্ধ ৬

‘তার সঙ্গে খুবই স্বাচ্ছন্দ্যে কাজ করছি’

প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে ইসির অনাপত্তি, মুহিতকে নিষেধ

নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের স্ট্যাটাস কী হবে জানতে চান কূটনীতিকরা

বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের উদ্বেগ

টেনশনে প্রার্থীরা

কারাগারে থেকে ভোটের প্রস্তুতি

শহিদুল আলমের জামিন

ধানের শীষে লড়বে ঐক্যফ্রন্ট

নিপুণ রায় চৌধুরী গ্রেপ্তার

আতঙ্ক উপেক্ষা করে পল্টনে ভিড়

বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত

কুলাউড়ায় সুলতান মনসুরের বিপরীতে কে?

ঢাকার প্রচেষ্টা ব্যর্থ

নির্বাচন পেছাবে না ইসির সিদ্ধান্ত