বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান সুলতান মনসুরের

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ জুন ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৬
ডাকসু’র সাবেক ভিপি ও সাবেক সংসদ সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ দলমত ও ধর্ম নির্বিশেষে অসহায় বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন। অনতিবিলম্বে মৌলভীবাজারসহ বন্যাকবলিত এলাকাসমূহকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিও জানান তিনি। গতকাল ফেসবুকে নিজের আইডি থেকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি এই আহ্বান জানান। ডাকসুর সাবেক এই নেতা আরো বলেন, বাংলাদেশের হবিগঞ্জ, পার্বত্য চট্টগ্রামসহ অন্যান্য বন্যাদুর্গত এলাকাকে ছাপিয়ে সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির এখন আরো অবনতি ঘটেছে। কুলাউড়া, রাজনগর ও কমলগঞ্জ উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। ঘরবাড়ি, দোকানপাট, স্কুল-কলেজ ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় পানি ঢুকছে। লোকজন ঈদের জামাত পর্যন্ত পড়তে পারেনি। আমার প্রশ্ন বিগত প্রায় দশ বছর ধরে যারা অবৈধ ভাবে জনপ্রতিনিধিত্ব করে চলেছেন তারা এখন কোথায়? সাধারণ মানুষ আজ অসহায় ও পানিবন্দি।
নিয়মিত ড্রেজিং, নদী খনন, বাঁধ নির্মাণ, সংরক্ষণ, দুর্যোগ মোকাবিলার প্রস্তুতি নেই কেন? মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলার অধিকার এই সরকার ও  স্বঘোষিত এই ব্যর্থ  জনপ্রতিনিধিদের কে দিয়েছে? সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বলেন, জেনারেল আতাউল গনি উসমানী, হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী, আলহাজ আব্দুস সামাদ আজাদ, এম সাইফুর রহমান, শাহ এএমএস কিবরিয়া, দেওয়ান ফরিদ গাজী, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, এডমিরাল মাহবুব আলী খানের মতো ব্যক্তিরা দায়িত্বে থাকতে কখনোই এত অব্যবস্থাপনা দেখা যায়নি। প্রবাসী অধ্যুষিত, হযরত শাহজালাল (রহ.)-এর পুণ্যভূমি যা চা, পাথর, বালি, আনারস, কমলালেবু আর প্রাকৃতিক গ্যাসের জন্য বিখ্যাত। এখন অবস্থাদৃষ্টে মনে হয় এখন এটা লুটেরাদের চারণভূমিতে পরিণত হয়েছে। সিলেট বিভাগের স্থানীয় নেতৃত্বের পাশাপাশি জাতীয় নেতৃত্বের ধারাবাহিক ব্যর্থতা এই অঞ্চলকে প্রাপ্য উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত করছে। অব্যবস্থাপনা, পরিকল্পনাহীনতা, যোগ্য নেতৃত্বের অভাবে আজ এই অঞ্চল বারংবার অবহেলিত হচ্ছে। অবাক লাগে ১ বছর অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা সহ হাওরাঞ্চলে ভয়াবহ দুর্যোগের জন্য দায়ীদের বিচার পর্যন্ত হলো না। আজ মৌলভীবাজার শহর প্রতিরক্ষা বাঁধের একাধিক স্থান দিয়ে এখনো পানি  ঢুকছে। সেনাবাহিনীর একটি টিম শহর প্রতিরক্ষা টিকিয়ে রাখতে বালির বস্তা ফেলছে ও উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে। আমি সর্বস্তরের জনগণকে অনুরোধ জানাই আপনারা সিলেটের নিম্নাঞ্চল বিশেষ করে জকিগঞ্জ, কানাইঘাট, গোয়াইনঘাট সহ প্রত্যেকটি এলাকার দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ান এবং অনতিবিলম্বে মৌলভীবাজার সহ বন্যাকবলিত এলাকাসমূহকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করার আহ্বান জানাই।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kazi

২০১৮-০৬-২০ ০২:১৯:২৯

বাংলাদেশ ও ভারতের পূর্বাঞ্চলের অতি বৃষ্টির পরিণাম কোন সরকার রুখে দিবার শক্তি নাই। বন্যাই এর পরিণতি । তবে গতবারের বন্যার কারণের জন্য দোষী ব্যক্তিদের বিচার না হওয়া/না করার জন্য সরকার দায়ী। একদিন জবাবদিহি করতে হবে জনগণের কাছে। বেশী দূরে নয় সেই দিন।। ২০১৮ সাল তামামির খাতায় সেই পরিণাম হবে । সিলেটের দুই মন্ত্রীই ব্যর্থ। একজন ব্যাংক ডাকাতদের গডফাদার। আরেকজন ____?

আপনার মতামত দিন

ইরানে সামরিক কুচকাওয়াজে গুলি, বহু হতাহত (ভিডিও)

প্রতিমা ভাংচুর করায় ইউপি সদস্য আটক

সাকা চৌধুরীর কবরের নাম ফলক উপড়ে ফেলেছে ছাত্রলীগ

কুষ্টিয়ায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু

পেট্রোল বোমাসহ ৫ শিবিরকর্মী আটক

বরিশালের উজিরপুরে ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা

এবার সড়কপথে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণা

ঐক্যের সমাবেশে যোগ দিচ্ছেন ফখরুল

নাটোরে গ্রেনেড উদ্ধার

যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

বন্দুক তাক করে থাকলে বিদেশে গিয়ে লিখবেন ছাড়া কি গণভবনে বসে লিখবেন ?

রূপগঞ্জে বিল থেকে অজ্ঞাতনামা যুবকের লাশ উদ্ধার

ডিএনসিসি'র প্যানেল মেয়র ওসমান গণি আর নেই

সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা

সড়ক দুর্ঘটনার নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নিহত

পরিবারের সদস্যদের বেঁধে রেখে দুই বোনকে ধর্ষণের অভিযোগ, পুলিশ বলছে নাটক