ছিনতাইয়ের শিকার সেই জার্মান তরুণীর বাংলাদেশ ত্যাগ

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ জুন ২০১৮, মঙ্গলবার
জার্মান তরুণী সুইন্ডে উইদারল্যান্ড। বাংলাদেশের একটি ফটোগ্রাফি ইনস্টিটিউটে এসেছিলেন  ফটোগ্রাফি শিখতে। শেখার পাশাপাশি নিজের ক্যামেরায় বন্দি করেছিলেন এদেশেরই সব প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য  ও গুরুত্বপূর্ণ কিছু স্থাপনা। শুধু তাই নয়, বিশ্বের অনেক স্থানে ঘুরে বেড়ানোর ছবিও ছিল এই তরুণীর কাছে। কিন্তু সেসব ধরে রাখতে পারেননি সুইন্ডে। গত বৃহস্পতিবার ঢাকার ধানমন্ডি এলাকায় ছিনতাইয়ের শিকার হয়ে সব হারিয়েছেন ওই জার্মান তরুণী।
আর বাংলাদেশ থেকে নেয়া এই তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে কাঁদতে কাঁদতে স্বদেশে ফিরে গিয়েছেন সুইন্ডে। গত শুক্রবার সকালেই জার্মানির উদ্দেশে রওনা হন তিনি। সুইন্ডে তার ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘একটি ঘটনা পুরো বাংলাদেশ ভ্রমণে অভিজ্ঞতাটি কালো মেঘে ঢেকে দিলো। না, এটা (বাংলাদেশ) ভ্রমণের জন্য নিরাপদ নয়। একা ভ্রমণ না করাই ভালো।...আমি কেবল একটি কথাই বলতে পারি, দেখে-শুনে চলো, নিজের ক্ষেত্রে সাবধানে থেকো।...আমার চোখ দিয়ে পানি পড়ছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই আমি বাংলাদেশ ছাড়ছি।’ এই ছিনতাইয়ের ঘটনায় ধানমন্ডি থানায় একটি মামলা করেছেন সুইন্ডে। তাতে তিনি উল্লেখ করেছেন, ভোরবেলায় এলিফ্যান্ট রোডে নিজের অস্থায়ী আবাসে রিকশায় করে যাওয়ার সময় একটি সাদা গাড়ি থেকে এক ব্যক্তি তার ব্যাকপ্যাকটি টান মেরে নিয়ে যায়। ওই ব্যাগে তার ল্যাপটপ, ক্যামেরা, ক্রেডিট কার্ড এবং দুটি হার্ডডিস্কসহ অন্যান্য জিনিস ছিল। সুইন্ডের বন্ধু শশাঙ্ক সাহা জানান, গত জানুয়ারিতে ধানমন্ডির পাঠশালা সাউথ এশিয়ান মিডিয়া ইনস্টিটিউটে ফটোগ্রাফি কোর্স করতে ঢাকায় আসেন সুইন্ডে। তিনি চট্টগ্রামে জাহাজভাঙা শিল্প, সুন্দরবন, কুয়াকাটাসহ অনেক জায়গার প্রচুর ছবি তুলেছিলেন। সেই ছবিগুলো বিভিন্ন বন্ধুর কম্পিউটারে জমা ছিল। বুধবার রাতে শঙ্কর বাসস্ট্যান্ডের কাছে এক বন্ধুর বাড়িতে অন্য বন্ধুসহ রাতে থেকে তিনি সব ছবি তার হার্ডডিস্কে স্থানান্তর করেন। ভোরবেলা এলিফ্যান্ট রোডের বাটা সিগন্যালের অস্থায়ী আবাসে ফিরতে তিনি একটি রিকশা ভাড়া করেন। রিকশাটি জিগাতলা পার হয়ে সীমান্ত স্কয়ারের ফটকে আসামাত্র একটি সাদা গাড়ি থেকে তার ব্যাগটি টান দিয়ে নিয়ে যায়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

১০ বাংলাদেশি লিবীয় উপকূলে জীবিত উদ্ধার

প্যারিস বিমানবন্দরে ফ্রান্স টিম

ফ্রান্সের রাস্তায় রাস্তায় স্লোগান আমরা চ্যাম্পিয়ন

মামলা, পুলিশ কর্মকর্তার মাথায় পিস্তল ঠেকানোর অভিযোগ আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে

ওসমানী হাসপাতালে স্কুলছাত্রী ধর্ষিত, ইন্টার্ন চিকিৎসক আটক

বাংলাদেশের নির্বাচনে একপেশে নীতি ভারতের পক্ষে যাবে না

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের ওপর হামলা নজিরবিহীন

মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করিনি

যারা শিক্ষকের ওপর আঙ্গুল তোলে তারা ছাত্র নামের কলঙ্ক

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নিরপেক্ষ থাকার নির্দেশ মাহবুব তালুকদারের

প্রত্যেক উপজেলায় ‘স্বতন্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্র’ হচ্ছে

নিখোঁজ তারেকের সন্ধান চায় পরিবার

সরকারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি বিটিআরসির

শফিককে জবাব দিতে মাঠে লুনা

নজর কাড়ার চেষ্টায় বিএনপি লিটন বলছেন মিথ্যাচার

২,১৫৪ জনে অনাপত্তি মিয়ানমারের তবে...