ঈদ ছুটিতে দেশের বাইরে রেকর্ড সংখ্যক কর্মকর্তা

শেষের পাতা

দীন ইসলাম | ১৫ জুন ২০১৮, শুক্রবার
প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদ ছুটিতে রেকর্ড সংখ্যক কর্মকর্তা বিদেশ যাচ্ছেন। বিদেশ যাত্রায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর ও পরিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সংখ্যাই বেশি। বেশির ভাগ কর্মকর্তা তীর্থস্থান ভ্রমণের জন্য ভারত যাচ্ছেন। অনেকে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদ করতে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানাডা  যাচ্ছেন। শিক্ষা, স্বরাষ্ট্র ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েক দিন পাঁচ শতাধিক সরকারি আদেশ জারি করা হয়েছে। এর মধ্যে ১১ ও ১২ই জুন সবচেয়ে বেশি সরকারি আদেশ জারি করা হয়েছে।
এছাড়া গতকালও কয়েকটি আদেশ জারি করা হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, গতকালও কয়েক জন কর্মকর্তা ছুটিতে যাওয়ার সরকারি আদেশ পেয়েছেন। এদিন টিকিউআই-২ প্রকল্পের সহকারী প্রকল্প পরিচালক ড. রেহেনা খাতুন ভারতে ভ্রমণের জন্য সাত দিনের ছুটি পেয়েছেন। একই দিন ইডেন মহিলা কলেজের উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ফাতেমা তুজ জোহরা ওমান, তুরস্ক, সুইজারল্যান্ড ও ফ্রান্স সফরের জন্য ১৬ দিনের বহিঃবাংলাদেশ ছুটি পেয়েছেন। এছাড়া সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ইতিহাসের অধ্যাপক মিতা ভট্টাচার্য্য ভারত সফরের জন্য ১৫ দিন, পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের অধ্যাপক প্রফেসর ড. মো. শাহজাহান ভারত ও ভুটান সফরের জন্য ১১ দিন, টঙ্গী সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড. আহমাদুল্লাহ মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর সফরের জন্য আট দিন, সরকারি তোলারাম কলেজের সহকারী অধ্যাপক খালেদা আক্তার ভারত সফরের জন্য আট দিন, সরকারি তিতুমীর কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক গুলশান আরা বেগম যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণের জন্য ২৭ দিন, ভারত ও ইন্দোনেশিয়া সফরের জন্য ইংরেজির সহকারী অধ্যাপক তামান্না মুস্তারী সাত দিন, বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যাপক জিনুন নাহার ভারত সফরের জন্য ১০ দিন, ঢাকা কলেজের পরিসংখ্যানের সহযোগী অধ্যাপক মোসাঃ রাফিজা বেগম যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণের জন্য ১৫ দিনের ছুটিসহ অনেক কলেজ শিক্ষক ঈদের ছুটিতে দেশের বাইরে যাচ্ছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এ মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রভাষক, সহকারী অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক বা অধ্যাপকদের মধ্যে আরো তিন শতাধিক শিক্ষক ঈদের ছুটিতে বিদেশে গেছেন। কলেজ শিক্ষকদের বাইরেও ১১ই জুন গণভবন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফৌজিয়া আহমেদকে যুক্তরাষ্ট্র যেতে ১২০ দিনের ছুটি দেয়া হয়েছে। এছাড়া ১০ই জুন জারি করা দুইটি আদেশে সাত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে বিদেশ যাত্রার জন্য ছুটি দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে পাঁচ জন কর্মকর্তা ভারতে তীর্থস্থান ভ্রমণের জন্য যাবেন। এদিকে রোজার সময় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে অনেক কর্মকর্তা ওমরাহ হজ করতে ছুটি নিয়ে গেছেন। এছাড়া অনেক কর্মকর্তা হজের জন্য আগাম ৪৯ দিনের ছুটি নিয়েছেন। বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সবচেয়ে বেশিসংখ্যক কর্মকর্তা ঈদের আগে ভারত, ভুটান, নেপাল, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ডে গেছেন। আবার কোনো কোনো কর্মকর্তা যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা ও ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত বিভিন্ন দেশে ঈদের ছুটি কাটাচ্ছেন। এ বছর বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকদের মধ্যে রীতিমতো বিদেশ যাত্রার হিড়িক পড়েছে এবার। চিকিৎসকদের অনেকে এরই মধ্যে ভারতের ধর্মীয় স্থান আজমীর শরিফ ও দর্শনীয় স্থান আগ্রাসহ আরো কয়েকটি স্থানে যাওয়ার জন্য ঈদের আগে জিও নিয়েছেন। মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়া আবেদনে কর্মকর্তারা ঈদের ছুটিতে ধর্মীয় গুরুত্বপূর্ণ জায়গা পরিদর্শনে যাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেন। ঈদের আগে এ সংক্রান্ত অন্তত ৩০টি সরকারি আদেশ জারি করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এবার সহকারী ও সহযোগী অধ্যাপকরা ঈদের ছুটিতে সবচেয়ে বেশি দেশের বাইরে গেছেন। তারা পরিবারের অন্য সদস্যদেরও নিজের খরচে বিদেশ নিয়ে যাওয়ার কথা আবেদনে উল্লেখ করেছেন। রমজানের শুরু থেকেই এই প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, অতিরিক্ত সচিব, যুগ্ম সচিব, উপ-সচিব, সিনিয়র সহকারী সচিব ও সহকারী সচিব পদমর্যাদার শতাধিক কর্মকর্তা এবার ঈদের ছুটিতে বিদেশে গেছেন। অধিকাংশ কর্মকর্তাই বহিঃবাংলাদেশ ছুটি নিয়ে বিদেশে গেছেন। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন যুগ্ম সচিব বলেন, ঈদ এলেই কর্মকর্তারা আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে দেখা করার জন্য উদগ্রীব হয়ে পড়েন। এছাড়া ধর্মীয় ও দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করতেও অনেকে ছুটে যান। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর এবং স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের চার থেকে পাঁচজন প্রকৌশলী ঈদের ছুটিতে দেশের বাইরে রয়েছেন। পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাও ঈদের ছুটিতে দেশের বাইরে গেছেন। তবে এক্ষেত্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বিভিন্ন দেশ থেকে আমন্ত্রণপত্র সংগ্রহ করে তা ছুটির আবেদনের সঙ্গে যুক্ত করে দিয়েছেন। অধিকাংশ কর্মকর্তার ছুটির প্রক্রিয়া শেষ করে সরকারি আদেশ জারি করা হয় ঈদের আগেই। এসব ক্যাডার পদে কর্মকর্তাদের বাইরে পানি উন্নয়ন বোর্ড, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ, খাদ্য অধিদপ্তর, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ ব্যুরো, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) শতাধিক কর্মকর্তা এবার ঈদের ছুটি দেশের বাইরে কাটাচ্ছেন। গতকাল সরকারিভাবে অফিস-আদালত খোলা থাকলেও এদের কেউ অফিসে হাজির হননি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

চলে গেলেন কফি আনান

খাগড়াছড়িতে ব্রাশফায়ারে নিহত ৭

ছিনতাইকারীদের কল্যাণ তহবিল ৮ লাখ টাকা উদ্ধার

‘মত প্রকাশের জগৎ ছোট হলে গুজব ছড়ায়’

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ইমরানের শপথ

গুজব ছড়াতে ফারিয়া ধারণকৃত অডিও প্রচার করেছেন- র‌্যাব মহাপরিচালক

দুর্ভোগ সঙ্গী করেই বাড়ি ফিরছে মানুষ

দৃষ্টি হাসিনা-মোদি বৈঠকের দিকে

খালেদার সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ

এইচএসসিতে ৩২৯১ জনের ফল পরিবর্তন

সড়ক নিরাপদ করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশনা

চলছে দর দাম বিক্রি কম

বিমানের প্রথম ড্রীম লাইনার আসছে কাল

‘বিএনপি না এলে, ৩০০ আসনে প্রার্থী দিয়ে নির্বাচন করব’

রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে ড. কামাল ও কাদের সিদ্দিকীর বৈঠক

বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের নামে ফেইক অ্যাকাউন্ট থেকে সতর্ক থাকার পরামর্শ