খুলনা জেলা দায়রা জজ জেসমিন আনোয়ারকে প্রত্যাহার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে | ১৪ জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার
আদালতের বিচারিক কাজে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে খুলনার জেলা ও দায়রা জজ (সিনিয়র জেলা জজ) বেগম জেসমিন আনোয়ারকে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগে সংযুক্ত করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপ-সচিব (প্রশাসন-১) মো. মাহবুবার রহমান সরকার স্বাক্ষরিত স্মারকে এক পত্রে মঙ্গলবার এ আদেশে হয়েছে।
আদেশে বলা হয়, ১২ই জুন জেলা জজ জেসমিন আনোয়ার খুলনার জেলা জজের বর্তমান পদের দায়িত্বভার ছেড়ে দিয়ে পরবর্তী জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার নিকট হস্তান্তর করে অবিলম্বে বদলিকৃত কর্মস্থলে যোগদান করবেন।
খুলনার আদালতের পরিবেশ শান্তিপূর্ণ রাখতে গত ২৫শে এপ্রিল একজন মন্ত্রী, দুই এমপি, কেসিসি’র নব-নির্বাচিত মেয়র এবং জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বাক্ষরিত একটি পত্র আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়। ওই পত্রে খুলনা জেলা ও দায়রা জজ (সিনিয়র জেলা জজ) বেগম জেসমিন আনোয়ার-এর বিরুদ্ধে নানা ধরনের অনিয়ম ও অবিচারিক কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগের কারনে খুলনা থেকে প্রত্যাহারের সুপারিশ করা হয়। সুপারিশকারীরা হলেন- মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদ্য নির্বাচিত কেসিসি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, জেলা সাধারণ সম্পাদক এসএম মোস্তফা রশিদী সুজা এমপি, মহানগর সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান এমপি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মসজিদ-উল নববীর ইমাম কারাগারে ‘মারা গেছেন’

জনগণের আস্থার মর্যাদা সমুন্নত রাখতে হবে

ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে ভোট ২৮শে ফেব্রুয়ারি

এমন মৃত্যু আর কত?

এক কিংবদন্তির প্রস্থান

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির ১০ কমিটি

স্পাইসগার্ল টি-শার্ট এবং বাংলাদেশের গার্মেন্ট খাত

ইভিএমের কারচুপি জেনে ফেলায় খুন হন বিজেপি নেতা!

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে শাহবাগে ফের অবরোধ

ইজতেমা নিয়ে আদালতে আসা লজ্জাকর

তিনি সজ্জন, ভালো মানুষ

দেশে গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একসঙ্গে এগিয়ে যাবে- প্রধানমন্ত্রী

সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান ব্যারিস্টার মৌসুমী কবিতা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আফজালের সব সম্পদ জব্দের নির্দেশ

মির্জাপুরে বিএনপির ৪০ নেতাকর্মী কারাগারে

মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সুবিধা আরো বাড়লো