ঈদ যাত্রায় বাসে ভাড়া নৈরাজ্য, ট্রেনে শিডিউল বিপর্যয়

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ জুন ২০১৮, বুধবার, ১২:১৬ | সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৫
প্রতিবছরের মতো এবারও ঈদুল ফিতরে অতিরিক্ত ৩০ হাজার যাত্রীবহনের জন্য চালু হয়েছে স্পেশাল ট্রেন। তবে যাত্রার প্রথম দিনেই শিডিউল বিপর্যয়ে পড়ে স্পেশাল ট্রেন। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হন সাধারণ যাত্রীরা।
একই রকমভাবে ভিড় রয়েছে বাস টার্মিনালগুলোতে। অতিরিক্ত ভাড়া, নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে দেরি করে আসাসহ নানা রকম নৈরাজ্য সহ্য করতে হচ্ছে বাস যাত্রীদের।
আজ বুধবার রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে উত্তরবঙ্গ, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শেরপুর, জামালপুর ও সিলেট রুটের দূরপাল্লার বাস ছেড়ে যায়। এর মধ্যে উত্তরবঙ্গ ও সিলেট রুটের ক্ষেত্রে অগ্রিম টিকিটের যাত্রীদের দেখা গেলেও বাকি অন্যান্য রুটের ক্ষেত্রে অগ্রিম টিকিটের কোনো বালাই নেই।
অভিযোগ রয়েছে, টাঙ্গাইলের নিরালা পরিবহন ও বিনিময় পরিবহন সাধারণ ভাড়ার চেয়ে ২০ থেকে ৩০ টাকা বেশি নিচ্ছে। কিন্তু উত্তরবঙ্গ রুটের বাসগুলোর ক্ষেত্রে অগ্রিম টিকিট দেওয়া থেকে শুরু করে ভাড়া পর্যন্ত ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছেন যাত্রীরা।

কাউন্টার থেকে ইচ্ছে করেই বিক্রি হয়ে গেছে বলে অগ্রিম টিকিট আটকে রাখা হয়। এরপর যাত্রীর চাপ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা অতিরিক্ত দামে বিক্রি করা হয়।
এছাড়াও জানা যায়, দিনের প্রথম ট্রেন ঢাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জের উদ্দেশে সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে ছাড়ার কথা থাকলেও সেটি প্রায় ৫০ মিনিট দেরিতে ছাড়ে। দিনের দ্বিতীয় স্পেশাল ট্রেন সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে ঢাকা থেকে লালমনিরহাটের উদ্দেশে ছাড়ার কথা থাকলেও তা প্ল্যাটফর্মে এসে পৌঁছায় সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটেও।
রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানান, স্পেশাল ট্রেনের প্রথমটির আগে নির্ধারিত ট্রেন ছাড়ার কারণে দেরি হয়েছে।  
তবে ট্রেনটি আসতে কতক্ষণ সময় লাগবে সে বিষয়ে বলা মুশকিল। বুধবার ঢাকা থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে আরও তিনটি স্পেশাল ট্রেন ছেড়ে যাবে। সেগুলো হলো- রাত ৯টা ১৫ মিনিটে ঢাকা থেকে রাজশাহী, রাত ১০টা ৫০ মিনিটে ঢাকা থেকে পার্বতীপুরে, রাত ১২টা ৫ মিনিটে ঢাকা থেকে খুলনা। এদিকে বাস ভাড়ার নৈরাজ্য বিষয়ে মহাখালী কাউন্টারে যাত্রীদের দুর্ভোগ নিরাময়ে রয়েছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) স্টল ও সঙ্গে অভিযোগ বাক্স। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানান, বেশি ভাড়া নিয়ে অভিযোগ পেলে তৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছেন।  মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এসব সমস্যার সমাধান করা হবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kazi

২০১৮-০৬-১৩ ০১:৪০:২৩

সব বিপর্যয় মেনে নিয়েই চলতে হবে। হঠাৎ মাত্রাতিরিক্ত যাত্রী বহনের মত অতিরিক্ত ট্রেনের ব্যবস্তা করার মত পর্যাপ্ত ট্রেন বাংলাদেশে নাই। সীমিত সম্পদে সব ব্যবস্তা করতে বিপর্যয় কিছুটা হবেই।

আপনার মতামত দিন

‘নিজের সঙ্গে যুদ্ধে জিতেছি’

রেকর্ড ম্যান সাকিব

এই লিটনকেই দেখতে চায় বাংলাদেশ

মারা গেলেন মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোরসি

বিরোধিতার মুখে ১৫ হাজার কোটি টাকার সম্পূরক বাজেট পাস

লাল-সবুজের ‘ফেরিওয়ালা’ বিলেতি নারী

‘যে’ কারণে রুবেল নয়, লিটন

স্বরূপে মোস্তাফিজ, ফর্ম জারি সাইফুদ্দিনের

ভাগ্নেকে ফিরে পেতে সোহেল তাজের সংবাদ সম্মেলন

বছরে বিশ্বজুড়ে আড়াই কোটি শরণার্থী পাড়ি দেন ২শ’ কোটি কিলোমিটার পথ

দুশ্চিন্তায় সঞ্চয়পত্রের গ্রাহকরা

‘গণপিটুনির ভয়ে পলাতক ছিলেন’

ব্যাংকে টাকা আছে, তবে লুটে খাওয়ার মতো টাকা নেই

‘রোল মডেল’ হতে চায় সিলেট বিএনপি

ভুল করেই পাসপোর্ট সঙ্গে নেননি পাইলট ফজল

দেশে ফিরতে রাজি ভূমধ্যসাগরে আটকা ৬৪ বাংলাদেশি