ধলাই প্রতিরক্ষা বাঁধে ভাঙন পানিবন্দি ২৫০ পরিবার

বাংলারজমিন

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ১৩ জুন ২০১৮, বুধবার
টানা বর্ষণে ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে কমলগঞ্জের ধলাই নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধের পৌর এলাকার গোপালনগর ও বিকালে মুন্সীবাজার ইউনিয়নের সুরানন্দপুর এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে প্রবল স্রোতে বানের পানি লোকালয়ে প্রবেশ করায় কমলগঞ্জ পৌর এলাকার গোপালনগর, নাগড়া যোদ্ধাপুর, করিমপুর, বড়গাছ, সুরানন্দপুর, ধাতাইলগাঁও, মইডাইলসহ উপজেলার ১১টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে ওই গ্রামের রাস্তাঘাট, ফসলি জমি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পানিতে নিমজ্জিত হওয়ায় ভেসে গেছে পুকুর ও ফিসারীর কয়েক লাখ মাছ। এতে পৌর এলাকার ২৫০ পরিবারসহ প্রায় ৩৫ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। বানের পানিতে তলিয়ে গেছে জেলা সদরের সাথে সংযুক্ত প্রধান সড়ক কমলগঞ্জ-মৌলভীবাজার সড়কটি। থেমে থেমে ভারী বর্ষণের ফলে ধলাই নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় পৌর এলাকাসহ ধলাই প্রতিরক্ষা বাঁধের ১১টি স্থানে ফাটল দেখা দিয়েছে। ধলাই প্রতিরক্ষা বাঁধে ভাঙনের পর পরই কমলগঞ্জের ইউএনও মোহাম্মদ মাহমুদুল হক, কমলগঞ্জ পৌর মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ ও পানিবন্দি এলাকা পরিদর্শন করেন। কমলগঞ্জের ইউএনও মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, বন্যা পরিস্থিতিতে উপজেলা সদরে একটি মনিটরিং শেল খোলা হয়েছে।
বন্যা আক্রান্তদের জন্য উপজেলা প্রশাসন ও পৌরসভার উদ্যোগে শুকনো খাবার হিসাবে প্রাথমিকভাবে চিড়া ও গুড় বরাদ্দ করা হয়েছে। এদিকে অব্যাহত বর্ষণে ধলাই নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার আশংকা করা হচ্ছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

৪৭ বছর পর ক্ষমা চাওয়ার বিষয় কেনো এলো?

শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন

সৌদি ক্রাউন প্রিন্সের পাকিস্তান সফর বিলম্বিত

সি জিনপিংয়ের বৈশ্বিক স্বপ্নে বাধা

ইয়াবা ও অস্ত্র জমা দিয়ে ১০২ মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

নাটোরে অগ্নিকান্ডে সর্বশান্ত দিনমজুর

রূপপুর প্রকল্পে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে রাশিয়ান নাগরিকের মৃত্যু

রূপগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় দুই নৃত্যশিল্পী নিহত

‘মিয়ানমার বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের ওপরে আঘাত করেছে’

কবি আল মাহমুদের মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক

ভোট শুরুর ৫ ঘন্টা আগে নির্বাচন পিছানো হলো নাইজেরিয়ায়

জামায়াত থেকে আমাকে বহিস্কার করা হয়েছে

শিকাগোয় অস্ত্রধারীর গুলিতে নিহত ৫

এ কী বললেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান!

কেউ কি আরেকটি সোনালী কাবিন লিখতে পেরেছে?

আমিন ধ্বনিতে মুখরিত তুরাগ পাড়, শেষ হলো প্রথম পর্বের ইজতেমা