মেধাবী আমরিনের বাঁচার আকুতি

বাংলারজমিন

মাধবদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি | ১৩ জুন ২০১৮, বুধবার
মেধাবী ছাত্রী আমরিন আক্তার। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ থেকে অনার্স শেষ করে পড়ালেখা করছেন মাস্টার্সে। জন্মস্থান সিলেটের হবিগঞ্জ জেলায় হলেও বর্তমানে অবস্থান করছেন তার চাচার বাসা নরসিংদীর মাধবদীতে। যে বয়সে পড়ালেখা শেষ করে নতুন জীবনের স্বপ্ন দেখার কথা সে বয়সে নিশ্চিত মৃত্যুর দু:স্বপ্ন প্রতিনিয়ত তাকে তাড়িয়ে বেড়ায়। তার দুটি কিডনিই অকেজো। ২০১৪ সালে অনার্সে পড়াকালে তার কিডনি ড্যামেজের বিষয়টি ধরা পড়ে। আদরের মেয়েকে বাঁচাতে জমি বিক্রি করে চিকিৎসায় ব্যয় করেন তার বয়স্ক পিতা জজ মিয়া। গত ৪ বছরে আত্মীয়স্বজন সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে ধার-দেনা করে তার চিকিৎসায় খরচ করা হয় প্রায় ২০ লাখ টাকা।
বর্তমানে সপ্তাহে ২/৩ বার তার ডায়ালাইসিস করাতে হয়, না হলে শরীরে পানি জমে শুরু হয় অসহ্য যন্ত্রণা। ডায়ালাইসিসে মাসে ব্যয় হয় প্রায় ৪০ হাজার টাকা। এই বিশাল অঙ্কের ব্যয়ভার বহন করে অর্থাভাবে তার পরিবার এখন দিশেহারা। তদুপরি তার চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার দ্রুত কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট জরুরি। এ জন্য প্রয়োজন ৪ থেকে ৫ লাখ টাকা। নাহলে তাকে বাঁচানো যাবে না। এ অবস্থায় আমরিনের পরিবার চরম হতাশায় দিনাতিপাত করছেন।
আমরিনকে সাহায্য পাঠানোর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট: নাম- আমরিন আক্তার, হিসাব নম্বর: ১২৪২৩/০, জনতা ব্যাংক, মাধবপুর শাখা।
বিকাশ নম্বর : আমরিন-০১৭০৩৪৭৮১৭০ (পারসোনাল) অথবা যোগাযোগ করতে পারেন- মো. জামাল উদ্দিন (আমরিনের চাচা) ঢাকা ইলেক্ট্রনিক্স, স্কুল সুপার মার্কেট মেইন গলি, মাধবদী, নরসিংদী। মোবাইল- ০১৭১২ ১১৪৬০৩।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিমানবন্দরে আত্মহত্যার চেষ্টা করা রুনা বললেন আমি মরতে চাই

দুর্নীতিবাজদের নিয়ে জোট করে সরকার উৎখাতের চেষ্টা হচ্ছে

সহস্রাধিক সাইট পেজে নজরদারি

সাধারণের ভোট ভাবনা

মেজর (অব.) মান্নানকে দুদকে তলব

ডিজিটাল আইন স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়

২৯শে সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশ

ঢাকায় বৃহস্পতিবার বিএনপি’র সমাবেশ

জগাখিচুড়ির ঐক্য টিকবে না

৫৭ ধারার মামলায় চবি শিক্ষক কারাগারে

পদ্মার ডান তীরে ভাঙন ফের আতঙ্ক

মালদ্বীপে বিরোধীদের অভাবনীয় জয়

চট্টগ্রামে গণধর্ষণের শিকার দুই কিশোরী

বিচারকের প্রতি দুই আসামির অনাস্থা

ভালো মানুষকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন: প্রেসিডেন্ট

শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যাওয়ার কথা বলেননি ড. কামাল