মাদকাসক্ত ছেলের ছুরিকাঘাতে পিতা খুন

অনলাইন

বগুড়া প্রতিনিধি | ১০ জুন ২০১৮, রোববার, ১২:৫০ | সর্বশেষ আপডেট: ১:৩১
বগুড়ায় মাদকতাসক্ত ছেলের ছুরিকাঘাতে পিতা খুন হয়েছে। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে  পৌরসভার ১৫ নং ওয়ার্ডের ছোটকুমিড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। নিহতের নাম আব্দুর রশিদ (৫৮)। তিনি ছোটকুমিড়া পশ্চিমপাড়া এলাকার মৃত ইয়াছিন আলীর পুত্র। রাতেই পুলিশ ঘাতক পুত্রকে গ্রেপ্তার করেছে। পুত্রের নাম স্বপন ওরফে সুটকু (১৯)। সে পেশায় স্থানীয় একটি গ্রীলের দোকানের কর্মচারি। স্বপন একজন মাদকাসক্ত বলে জানা গেছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ঘাতক স্বপন প্রতিনিয়ত মাদক সেবন করতো এবং বখাটে ছেলেদের সাথে মেলামেশা করতো। বিষয়টি তার পিতার অপছন্দ ছিলো। মাঝে মাঝে পিতার কাছে মাদক কেনার জন্য চাপ প্রয়োগ করে টাকা আদায় করতো। এ নিয়ে পিতা পুত্রের মাঝে ঝগড়া বিবাদ ও কথা কাটাকাটি লেগেই থাকতো। এরই ধারাবাহিকতায় গতরাতে এলাকার একটি স্থানে স্বপন মাদকসেবীদের সাথে আড্ডা ও মাদক সেবনের সময় তার পিতা আব্দুর রশীদ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাকে জোর করে বাড়িতে নিয়ে চায়। এসময় মাদকাসক্ত স্বপন তার কাছে থাকা বার্মিজ ছুরি দিয়ে পিতাকে আঘাত করে। এসময় আহতের চিৎকারে লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়।
এদিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর শফিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনা ঘটার আধা ঘন্টার মধ্যে রাত ১১টার দিকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত বার্মিজ ছুরিসহ চারমাথা এলাকা থেকে ঘাতক স্বপনকে গ্রেপ্তার করে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন চারজন

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সারাদেশে র‌্যালি করবে বিএনপি

হাইকোর্টের নতুন বেঞ্চে মিন্নির জামিন আবেদনের শুনানি

কোহলিদের প্রাণনাশের হুমকি!

তিন তালাক: গৃহবধুকে পুড়িয়ে হত্যা

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির অবস্থা অতিসঙ্কটজনক

ইরানের ১৩ কোটি ডলারের তেলবাহী সেই ট্যাংকার ছেড়ে দিয়েছে জিব্রাল্টার

এক বছর নিষিদ্ধ শেহজাদ

মেসিহীন আর্জেন্টিনা দলে নেই আগুয়েরো-ডি মারিয়াও

সড়ক মন্ত্রীর বিদায়ের পরই চলন্তিকায় ক্ষোভ, প্রতিবাদ

এফ আর টাওয়ারের মালিক ফারুক গ্রেপ্তার

ইতিহাসের প্রথম বদলি ব্যাটসম্যান ল্যাবুশান

বিশ্ববাসীকে জেগে উঠার আহ্বান ইমরানের

ফরিদপুরে ডেঙ্গুজ্বরে মসজিদের খাদেমের মৃত্যু

পদ্মায় গোসলে নেমে নিখোঁজ কিশোরের লাশ উদ্ধার

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে বাবা খুন