১৫ লাখ শ্রমিক নেয়ার চুক্তি পর্যালোচনা করবে মালয়েশিয়া

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৪ মে ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪১
বাংলাদেশ থেকে ১৫ লাখ শ্রমিক নেয়ার চুক্তি পর্যালোচনা করবে মালয়েশিয়া। আর এর অধীনে কমিয়ে আনা হবে বিদেশী শ্রমিক। অগ্রাধিকার দেয়া হবে মালয়েশিয়ানদের। ২০১৬ সালে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যে এ বিষয়ে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। মালয়েশিয়া বলছে, এখন তারা ওই চুক্তিটি নতুন করে পর্যালোচনা করবে। দেশটির মানবসম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী এম কুলাসেগারান বলেছেন, বিদেশী শ্রমিকদের ওপর নির্ভরতা কমিয়ে আনতে চাইছে তাদের সরকার।  তাই সব কিছুই রিভিউ করা প্রয়োজন। আমরা বিদেশী শ্রমিকদের বিষয়ে বেশি সচেতন। তাই তাদের ওপর নির্ভরতা কমিয়ে আনতে চাই।
অত্যাবশ্যক খাতেই শুধু আমরা বিদেশী শ্রমিকদের অনুমোদন দেবো।  বৃহস্পতিবার ইন্ডাস্ট্রিয়াল কোর্ট পরিদর্শন শেষে তিনি সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সময় মন্ত্রী বলেন, আমরা মালয়েশিয়ার শ্রমিকদেরকে সবার আগে অগ্রাধিকার দেবো। আগে ভাববো মালয়েশিয়ার মানুষের কথা। দ্বিতীয় পর্যায়ে ভাববো অন্যদের। তিনি এ সময় আরো বলেন, অন্য যেসব দেশের সঙ্গে চুক্তি আছে তাও পর্যালোচনা করা হবে। তবে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য আপাতত কোনো ভয় নেই বলে তিনি জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, যারা বৈধতার অধীনে মালয়েশিয়ায় কাজ করছেন তাদেরকে যথাযথ প্রক্রিয়া ছাড়া চলে যেতে বলা হবে না। তার ভাষায়, এক্ষেত্রে কিছু সময় লাগবে। মালয়েশিয়ায় যারা কাজ করছেন তাদেরকে অবিলম্বে বাক্সপ্যাটরা গুটিয়ে চলে যেতে বলা হবে না। তারা এখানে আসার জন্য দেশ ছেড়েছেন। তাই আমরা যতটুকু পারি ততটুকু করবো। মন্ত্রী বলেন, এক সময় যে চাকরিগুলো বিদেশীরা করতেন সেখানে শূণ্য পদ সৃষ্টিতে কাজ করবে সরকার। এসব শূন্যপদ পূরণ করে তাদেরকে নতুন করে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। যদি আপনি নিউজিল্যান্ড বা অস্ট্রেলিয়া যান তাহলে সেখানে কোনো বিদেশী শ্রমিক পাবেন না। আমাদেরও তাই করতে হবে। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১৮ই ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশ সরকার একটি সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষর করে। এতে বলা হয়, তিন বছরের মধ্যে ১৫ লাখ বাংলাদেশী শ্রমিক নেবে মালয়েশিয়া।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

তৃতীয় ধাপের ১১৭ উপজেলায় ভোট আগামীকাল

শীর্ষ আলেমদের জন্য দেহরক্ষী চাইলেন আল্লামা শফী

জুয়ার ঘর ভেঙে দিল বিক্ষুদ্ধ জনতা

ঝুঁকির মুখে ফেসবুকের ৬০ কোটি ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড

ছবিতে আজকের শিক্ষক আন্দোলন

চিকিৎসা নিতে এসে আটক আহত ছিনতাইকারী

গাজীপুরে বাসচাপায় ২ বন্ধু নিহত

চট্টগ্রামে এক রাতে প্রাণ গেল ৫ জনের

রাজনৈতিক প্রভাবে পরিবহন খাতে বিশৃঙ্খলা: কামাল

রাজধানীতে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ১

‘জৈশ-ই-মোহাম্মদ’ নিয়ে চীনের আগ্রহ কোথায়?

কাদের আউট, রওশন উপনেতা

সিরিয়ায় আইএস নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার দাবি

ভীতুদের দায়িত্ব ছাড়তে বললেন গয়েশ্বর

প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করতে নুর-আখতারের আপত্তি

নরসিংদীতে স্কুলছাত্র নিহতের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ