মুক্তামনিকে আর বাঁচানো গেল না

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৩ মে ২০১৮, বুধবার, ১১:২৫
মুক্তামনিকে আর বাঁচানো গেল না। বাবা-মা আর চিকিৎসকদের সব চেষ্টা ব্যর্থ করে শিশু মুক্তামনি তার কষ্টের জীবন ছেড়ে চিরদিনের জন্য চলে গেল না ফেরার দেশে। সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কামারবায়সা গ্রামে বাবা-মায়ের সামনেই বুধবার সকাল ৬টা ৫৯ মিনিটে মৃত্যু হয়  বিরল রোগ হেমানজিওমায় আক্রান্ত ১২ বছরের শিশুটির।

শোকে বিহ্বল মুক্তামনির বাবা ইব্রাহিম হোসেন বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই তার অবস্থা খারাপ হচ্ছিল। আজ ভোরে বমি শুরু হয়। একবার পানি খেতে চাইল। পানি আনতে আনতে সব শেষে।  
ডান হাতে দেড় বছর বয়সে হাতে বড় আকারের ফোলা নিয়ে গত ১১ জুলাই ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি হয় মুক্তামনি। চিকিৎসকরা তার রোগ শনাক্ত করেন রক্তনালীর এক ধরনের টিউমার হিসেবে।
ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসকের একটি দল মুক্তামনির হাতে ছয় দফা জটিল অস্ত্রোপচার করেন। কিছুটা ভালো বোধ করলে গত বছরের ২২ ডিসেম্বর তাকে বাড়ি ফেরার অনুমতি দেন চিকিৎসকরা।

কিন্তু গত কিছুদিনে মুক্তামনির অবস্থার অবনতি হলে  ইব্রাহিম হোসেন আবার ঢাকা মেডিকেলে যোগাযোগ করলে চিকিৎসকরা ঈদের পর মেয়েকে ঢাকায় যেতে বলেছিলেন। কিন্তু তার আগেই মুক্তামনি মারা যায়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এইচএসসিতে ফেল করায় আত্মহত্যা

ইজিবাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের পর ছাত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা

সোনাগাজীতে সেফটি ট্যাংকির উপর গৃহবধুর লাশ

ভারতে ৬ রাজ্যে নতুন গভর্নর নিয়োগ

এক ডজন ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করেন ইউসুফ

মারা গেছেন দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দিক্ষিত

মিন্নির পক্ষে লড়বেন ঢাকার আইনজীবীরা

পানিতে ডুবে দুই ভাইয়ের মৃত্যু

বন্যায় ৭২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা

প্রিয়া সাহার বাসার সামনে বিক্ষোভ

বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, অত:পর......

চাইনিজ তাইপেকে নয় গোলে হারিয়ে সপ্তম বাংলাদেশ

মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে ঘরে যাবো: দুদু

ভারতীয়রা ঋষিদের বংশধর, বানরের নয়: বিজেপি সাংসদ

নারায়ণগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত ১

জাপায় কোনো বিভেদ নেই: জিএম কাদের