এলআরবি’র গানের সুর নকল করে পাকিস্তানে বিজ্ঞাপন

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ মে ২০১৮, বৃহস্পতিবার
এলআরবির তুমুল জনপ্রিয় গান ‘সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে’ গানের সুর ব্যবহার করেছে পাকিস্তানের একটি ফ্যাশন হাউজ। ক্রসস্টিচ নামের প্রতিষ্ঠানটি তাদের বিজ্ঞাপনচিত্রের আবহ সংগীত হিসেবে ব্যবহার করেছে এই গানের বাঁশি সংস্করণ। বিজ্ঞাপনটি পাকিস্তানের অনলাইন টেলিভিশন বিজম্যাক্স টিভি প্রচার করছে তাদের ফেসবুক পেজ আর ইনস্টাগ্রামে। গত সোমবার সন্ধ্যায় ক্রসস্টিচের এই বিজ্ঞাপনচিত্র পাবলিশ করে বিজম্যাক্স। এরপর এই অনলাইন টিভির ফেসবুক পেজে অনেকেই প্রতিবাদ করেছেন। তবে ২০১৬ সালের ৫ই জুলাই ২ মিনিট ৪৮ সেকেন্ডের এই বাঁশি সংস্করণটি ইউটিউবে প্রকাশ করেন রাকিবুল ইসলাম নামের এক তরুণ শিল্পী। বিষয়টি নিয়ে গিটার লিজেন্ড ও এলআরবি ব্যান্ডের প্রধান আইয়ুব বাচ্চু বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। আমি জানি না এরকম কাজের প্রতিবাদের ভাষা কি হতে পারে।
ওরা খুব খারাপ কাজ করেছে। তিনি আরো বলেন, সত্যি বলতে একদিক দিয়ে আমার কিন্তু গর্বও হচ্ছে। বাংলাদেশের মিউজিকের আশ্রয় নিতে হলো পাকিস্তানকে। ওরা সুর তৈরি করার ক্ষমতাও এখন হারিয়েছে। আইয়ুব বাচ্চু ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, যিনি এই বাঁশি সংস্করণটি ইউটিউবে ছেড়েছিলেন, তিনিও আমাদের কাছ থেকে কোনো অনুমতি নেননি। এখন বিশ্বায়নের যুগ। যে যেখান থেকে যেভাবে পারছে, নিচ্ছে। এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেবেন কিনা জানতে চাইলে আইয়ুব বাচ্চু বলেন, দেশে এবং দেশের বাইরে সবাই জানে গানটা আমাদের। গানটার কপিরাইটও করা আছে। এখনই কোনো সিদ্ধান্ত জানাচ্ছি না। তবে অবশ্যই কোনো পদক্ষেপ নেবো।





এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

শাহবাগে ‘অবস্থান’ কর্মসূচি ঘোষণা সাধারণ ছাত্র পরিষদের

ক্রিমিয়ায় কলেজে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১৮

মহাঅষ্টমীতে কুমারী পূজা সম্পন্ন

পুলিশের ‘গায়েবি মামলা’ প্রবণতায় টিআইবি’র উদ্বেগ

সম্পাদক পরিষদের দাবির প্রতি পূর্ণ সমর্থন সাংবাদিক নেতাদের

পদত্যাগ করলেন এম জে আকবর

এইচটি ইমাম অসুস্থ, হেলিকপ্টারে ঢাকায় আনা হয়েছে

ম্যান বুকার পেলেন আইরিশ লেখিকা আনা বার্নস

ইঁদুর গিলছে ধান!

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সংকুচিত হয়েছে

লাহোরে শিশু জয়নাবের ধর্ষক ও হত্যাকারীর ফাঁসি কার্যকর

বাহুবলে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ, যুবক আটক

তিতাসের ৫ কর্মকর্তা সাময়িক বরখাস্ত

বৈশ্বিক সক্ষমতায় পিছিয়ে বাংলাদেশ

পাকিস্তান চায় মার্কিন সেনারা আফগানিস্তানে থাকুক

ঢাবিতে 'গ' ইউনিটে ফেল করা পরীক্ষার্থী 'ঘ' ইউনিটে প্রথম