বৈচিত্র্যময় শশী

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ মে ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৯
ছোট পর্দায় এখন যারা নিয়মিত ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন তাদের মধ্যে অভিনেত্রী শশী অন্যতম। বিভিন্ন বৈচিত্র্যময় চরিত্রে একেকটি ধারাবাহিকে দর্শকের সামনে নিজেকে উপস্থাপন করছেন তিনি। কখনো সমাজকর্মী, কখনো পরিবারের চঞ্চলা মেয়ে, কখনো প্রতিবাদী মেয়ের চরিত্রে দর্শক তাকে দেখছেন বলে জানান। শশীর ভাষ্য, আমি ছোট পর্দায় নিয়মিত অভিনয় করছি। সেই কারণে আমাকে ভেবে-চিন্তে অভিনয় করতে হয়। গল্প ও চরিত্রে নতুনত্ব না থাকলে দর্শক একজন শিল্পীকে সব সময় গ্রহণ করে না। আমি বরাবরই ভিন্ন উপস্থাপনা ও নতুনত্ব নিয়ে দর্শকের মনে দাগ কাটতে চাই। এই অভিনেত্রীর হাতে এখন এসএম শাহীনের ‘সোনাভান’ দেবাশীষ বড়ুয়া দ্বীপের ‘ভালোবাসা প্রেম নয়’ ও সালাহউদ্দিনের ‘মায়া মসনদ’, রুলিন রহমানের ‘ভালোবাসা কারে কয়’ ও শাহীন সরকারের ‘জ্ঞানীগঞ্জের পণ্ডিতেরা’ এবং ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ শীর্ষক ধারাবাহিকগুলো রয়েছে।
এই সময়ের ধারাবাহিকগুলো দর্শকের কাছে কতটা গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি সত্যি এখন ধারাবাহিকের গল্প নিয়ে নানা রকম মন্তব্য শোনা যায়। একটি ধারাবাহিকের কয়েকটি পর্ব প্রচার হওয়ার পর গল্পের সমন্বয় থাকে না। তবে আমাদের এটিও মনে রাখতে হবে, এখন চ্যানেলের সংখ্যা অনেক। সুতরাং, নাটকের সংখ্যাও বেড়েছে। সব নাটক মানহীন হচ্ছে বলা যাবে না। ভালো গল্পের নাটকও নির্মাণ হচ্ছে। বিভিন্ন কারণে হয়তো সেগুলো দর্শক দেখছেন না। আমার অভিনীত ‘সোনাবান’, ‘মায়া মসনদ’সহ কয়েকটি নাটকের কথা বলতে পারি। সেগুলোর নির্মাণশৈলী ও গল্প সবকিছু ভালো হচ্ছে। এদিকে ধারাবাহিকের বাইরে শশী এরইমধ্যে আসছে ঈদের নাটক-টেলিছবির কাজ শুরু করেছেন বলে জানান।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

শাহবাগে ‘অবস্থান’ কর্মসূচি ঘোষণা সাধারণ ছাত্র পরিষদের

ক্রিমিয়ায় কলেজে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১৮

মহাঅষ্টমীতে কুমারী পূজা সম্পন্ন

সম্পাদক পরিষদের দাবির প্রতি পূর্ণ সমর্থন সাংবাদিক নেতাদের

পদত্যাগ করলেন এম জে আকবর

এইচটি ইমাম অসুস্থ, হেলিকপ্টারে ঢাকায় আনা হয়েছে

ম্যান বুকার পেলেন আইরিশ লেখিকা আনা বার্নস

ইঁদুর গিলছে ধান!

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সংকুচিত হয়েছে

লাহোরে শিশু জয়নাবের ধর্ষক ও হত্যাকারীর ফাঁসি কার্যকর

বাহুবলে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ, যুবক আটক

তিতাসের ৫ কর্মকর্তা সাময়িক বরখাস্ত

বৈশ্বিক সক্ষমতায় পিছিয়ে বাংলাদেশ

পাকিস্তান চায় মার্কিন সেনারা আফগানিস্তানে থাকুক

ঢাবিতে 'গ' ইউনিটে ফেল করা পরীক্ষার্থী 'ঘ' ইউনিটে প্রথম

কুচকাওয়াজে হামলার মূল হোতাকে হত্যার দাবি ইরানের