মাশরাফিদের ভিড়ে নার্ভাস মিশু

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৬ মে ২০১৮, বুধবার
মাত্র ১৯-এ পা রেখেছেন পেসার ইয়াসিন আরাফাত মিশু। তাই জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে ক্যাম্পে ডাক পেয়ে একটু অবাকই হয়েছেন। তারচেয়ে বড় বিষয় দেশের সব তারকাদের দেখে ভীষণ নার্ভাসও তিনি। তবে নতুন এ অভিজ্ঞতা তাকে দিয়েছে সামনে এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা। অন্যদিকে ক্যাম্পের প্রথম দিনটা ভালোয় ভালোয় কাটলেও দ্বিতীয় চোখের ইনফেকশনের কারণে ফিটনেস ট্রেনিংয়ে যোগ দিতে পাররেনি। যদিও চিকিৎসক বলেছেন ভয়ের কিছু নেই, ড্রপ দিলেই সেরে উঠবেন দ্রুত। তাই তিনি মুখিয়ে আছেন মাশরাফি, রুবেল, তামিমদের সঙ্গে ক্যাম্পে নিজেকে নতুন ভাবে এগিয়ে নিতে। ক্যাম্পের অনুভূতি নিয়ে দৈনিক মানবজমিন-এর সঙ্গে তিনি বলেন, ‘প্রথম দিন ক্যাম্পে এসে খুব নার্ভাস ছিলাম।
কি করবো, কাকে কি বলবো কোনো কিছুই বুঝতে পারছিলাম না। একটা সময় মনে আমি হয়তো এত সিনিয়রদের মাঝে মানিয়ে নিতে পারবো না। কিন্তু ধিরে ধিরে মাশরাফি ভাই, রিয়াদ ভাই, তামিম ভাই কথা বলতে শুরু করলেন। একটু সাহস পেলাম। এখন ধীরে ধীরে সেট হচ্ছি। আমি জাতীয় দলে সুযোগ কবে পাব বা পাব কিনা তা নিয়ে ভাবছি না। এখান থেকেই আমি বুঝতে পেরেছি দেশের সর্বোচ্চ ক্রিকেটের প্রতিযোগিতায় টিকে থাকা কতটা কঠিন। তাই এ শিক্ষাগুলো সামনে কাজে লাগাতে চাই।’
দেশের অন্যতম পেসার মাশরাফি বিন মুর্তজা। যাকে দেখেই মিশু নিজেকে এগিয়ে নিচ্ছে সামনের দিকে। সেই মাশরাফির সঙ্গে অবশ্য এতদিন খুব একটা কথাও হয়নি তার। এমনকি ক্যাম্পে এসেও সাহস হচ্ছিল না কথা বলার। তবে মাশরাফি নিজেই বলেছেন কথা। দেশ সেরা এ পেসারের প্রথম কথাটি তাই বেশ ভালোভাবেই মনের মধ্যে গেঁথে নিয়েছেন তিনি। মিশু বলেন, ‘মাশরাফি ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলতেও সাহস লাগে। তিনি আমাদের দেখে কথা বলেছেন। তার প্রথম কথাটি ছিল- তোরা সুযোগ পেয়েছিস, নতুন। কিন্তু যে কারণে এ সুযোগ সেই লক্ষ্যটা যেন ঠিক থাকে। যে কাজের জন্য এখানে আসা সেটি যেন সঠিক ভাবে হয়। আমি তার এ কথাগুলো মনের মধ্যে গেঁথে নিয়েছি।’
আফগানিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য ৩১ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। সাকিব ও মোস্তাফিজ ক্যাম্পে নেই আইপিএল-এ খেলার কারণে। এছাড়াও মিশুর চোখে ইনফেকশন হওয়াতে তিনিও গতকাল ছিলেন বিশ্রামে। নিজের চোখের অবস্থা নিয়ে তিনি বলেন, ‘গতকাল (সোমবার) রাত থেকেই চোখে একটু সমস্যা মনে হচ্ছিল। আজ সকালে দেখলাম চোখ লাল হয়ে পানি ঝরছে। চিকিৎসককে দেখিয়েছি। তিনি বলেছেন চিন্তার কোনো কারণ নেই ড্রপ দিলেই ঠিক হয়ে যাবে দ্রুত।’ এ ক্যাম্প থেকেই শুরুতে আফগানিস্তান ও পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে জন্য দল ঘোষণা হবে। তবে নবাগত এ পেসার এখনো আশা করতে পারছে না এত দ্রুত তার জাতীয় দলে জায়গা হবে। তবে ক্যাম্পে কাটানো দিনগুলো তার জন্য সামনে এগিয়ে যাওয়ার দরজা খুলে দিচ্ছে বলেই মনে করেন তিনি। মিশু বলেন, ‘আমি জাতীয় দলে ডাক পাওয়া নিয়ে কোনো চিন্তাই করছি না। আমার জন্য এ ক্যাম্পইতো নতুন কিছু। এখানে এসে দেখলাম যে লেভেলে খেলে এসেছে তার সঙ্গে কত পার্থক্য। এটাইতো এদেশের সর্বোচ্চ লেভেল। এখানে যদি আমি কাজ করতে পারি তাহলে সামনে আমার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ নিতে অনেক বেশি সুবিধা হবে।’
তরুণ এ পেসার এতদিন খেলেছেন বিভিন্ন বয়স ভিত্তিক দলে। তবে সেখানে পাওয়া ট্রেনিংয়ের সঙ্গে জাতীয় দলের ক্যাম্পের সঙ্গে অনেক পার্থক্যই অবিষ্কার করেছেন তিনি। এ বিষয়ে তরুণ এ পেসার বলেন, ‘আমি যে বয়স ভিত্তিক দলে খেলেছি বা সেখানে যেভাবে ফিটনেস ট্রেনিং করেছি, স্কিল ট্রেনিং করেছি এখানে তা অনেক পার্থক্য। প্রথমদিনই আমার ফিটনেস ট্রেনিংয়ে ভীষণ কষ্ট হয়েছে। তখনই বুঝেছি এই লেভেলে ফিটনেস বড় একটি পার্থক্য। তবে এখন যেহেতু বুঝতে পারছি তাই আগের চেয়ে অনেক বেশি সচেতন হবো। নিজেকে এ কঠিন পরিস্থিতিতে মানিয়ে নিতে আরো কঠোর পরিশ্রম করবো।’



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এবার বহিষ্কার হচ্ছেন বি চৌধুরী!

ইসির বৈঠকে কূটনীতিকদের উদ্বেগ আসছেন ইইউ’র দুই বিশেষজ্ঞ

বিদায় রুপালি গিটারের ফেরিওয়ালা

তিনদিনে ডিজিটাল আইনে ১৬ মামলার আবেদন

সিলেটে সমাবেশের অনুমতি মিলেনি

জনমতের প্রকৃত প্রতিফলন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

আওয়ামী লীগ মাহবুব তালুকদারের পদত্যাগ চায় না

মহানবীর রওজা জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী

সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য ঘাটতি

আওয়ামী লীগে স্বস্তি বিএনপিতে টানাপড়েন

আঞ্জু জানেন না স্বামী বেঁচে নেই

শেষ কলামেও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কথা লিখেছেন খাসোগি

সিলেটে চেয়ারম্যানপুত্রের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

ঢাকায় আকবরের নেটওয়ার্ক

এমপি রানার জামিন নামঞ্জুর

এরশাদের দিকে তাকিয়ে নেতাকর্মীরা