‘তারেক রহমান পাসপোর্ট সমর্পণ করেছেন’

অনলাইন

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ২৩ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৯:২১ | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪৭
মেয়াদ উত্তীর্ণ পাসপোর্টের কপি আর বৃটিশ হোম অফিসের চিঠি প্রদর্শন করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ফের বললেন-বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তাঁর স্ত্রী-কন্যা তাঁদের পাসপোর্ট বৃটিশ সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সমর্পণ করেছেন। সেখান থেকে ওই পাসপোর্ট লন্ডনস্থ বাংলাদেশ মিশনে পাঠানো হয়েছে। পাসপোর্টগুলো এখন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে মিশনে রক্ষিত রয়েছে। এক দিন আগে লন্ডন আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এমনটাই দাবি করেছিলেন। তিনি পাসপোর্ট জমা দিয়ে দিয়েছেন উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী সেখানে বলেন- তারেক জিয়া বাংলাদেশের সবুজ পাসপোর্ট জমা দিয়ে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন। সেই তারেক রহমান কীভাবে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পালন করে?

এ বক্তব্যের পর সোমবার লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমান তার দেশে থাকা আইনজীবির মাধ্যমে প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ারকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠান।
ওই নোটিশে প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য মিথ্যা, বানোয়াট বলে উল্লেখ করেন। নোটিশ পাওয়ার ১০ দিনের মধ্যে শাহরিয়ার আলম জাতির কাছে বা তাঁর কাছে ক্ষমা না চাইলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। লিগ্যাল নোটিশ পাঠানোর খবর চাউর হলে সন্ধ্যায় গুলশানের নিজ বাসায় এক জরুরী সংবাদ সম্মেলন করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, আমি শুনেছি একটি উকিল নোটিশ ইস্যু করা হয়েছে। একটি বিষয় ভালো লাগল, বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থার প্রতি তাদের অস্থা বোধ হয় পুনঃস্থাপিত হয়েছে। কারণ প্রতিনিয়ত তারা অস্থাহীনতার কথা বলেন। নোটিশ পেলে জবাবের বিষয়টি দেখা হবে জানিয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেনÑ একজন কনভিকটেড ক্রিমিনাল এরকম একটি ভ্যালিড ডকুমেন্টের প্রেজেন্টেশনের পরও কীভাবে উকিল নোটিস দেন, দ্যাট বি ভেরি ইন্টারেস্টিং। তারা যদি মামলা করতে চান, উই উইল ডেফিনিটলি ফেইস ইট।

তারেক রহমানের পাসপোর্ট বিষয়ে শাহরিয়ার আলম বলেন, ২০০৮ সালে তিনি পাসপোর্টের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেন। তখন মেয়াদ বাড়িয়ে ২০১৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়। এরপর তিনি আর মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেননি। ২০১৪ সালের ২ জুন তিনি বৃটিশ হোম অফিস (স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে) সপরিবারে পাসপোর্ট জমা দেন। সেখান থেকে তা বাংলাদেশের হাই কমিশনে আসে। তিনি বলেন, বিএনপির কেউ দেখতে চাইলে বা আইনগতভাবে কেউ চাইলে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। প্রতিমন্ত্রীর ভাষায়Ñ এটি আমি আগেও বলেছি। প্রমাণও দিয়েছি। এত কিছুর পরও যদি কারও কোনো প্রশ্ন থাকে, বিশেষ করে জাতীয়তবাদী দলের কেউ যদি আগ্রহী হন, আমরা ব্যবস্থা করব। লন্ডনে আমাদের বাংলাদেশ হাই কমিশনে গিয়ে দেখে আসবেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Samir

২০১৮-০৪-২৩ ১০:৪৬:১৯

This is Joy bangla minister!

anwar talukder

২০১৮-০৪-২৩ ১০:১১:৪৫

ওনারা যে আওয়ামীলীগ, এইসব কথা না বললে মানুষ ভুলে যায়।তাই জনগণকে তাদের পরিচয় মনে করিয়ে দেবার জন্যই তাদেরকে এই জাতীয় বেফাঁস কথা বার্তা বলতে হয়।

আজাদ

২০১৮-০৪-২৩ ০৮:৫৪:২৭

একটা চিঠি মাননীয় প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম সাহেব নিজস্ব ফেসবুক দিয়ে প্রমান করার চেষ্টা করছে যে উনার দাবী অনুযায়ী জনাব তারেক রহমান সাহেব নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন । আজকের দৈনিক কালের কণ্ঠ কে তিনি বলেছেন, লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে পাসপোর্ট জমা দিয়ে তারেক এই পদক্ষেপ নিয়েছেন। মন্ত্রী সাহেব আবার জনাব তারেক রহমান সাহেবের পাসপোর্ট এর ছবিও দিয়েছেন । প্রথমত তারেক রহমান সাহেব কখনও বাংলাদেশ হাইকমিশনে পাসপোর্ট দেননি ।এই চিঠির কথা অনুযায়ী উনি পাসপোর্ট দিয়েছেন UK HOME OFFICE এ যেখানে proof of identity " পরিচয়ের প্রমান" হিসেবে পাসপোর্ট জমা দিতে হয় । এই চিঠির কথা অনুসারে uk home office সেই পাসপোর্ট বাংলাদেশ হাই কমিশনে দিয়েছে রাখার জন্য । RETENTION কথাটা ব্যাবহার করেছে যার মানে ধরে রাখা । এখানে নাগরিকত্ব বর্জন এর কথা কোথা থেকে আসলো বুঝলাম না ...।। আসলে কাগজ দিলেই তো হয় না একটু পরেও দেখতে হয় । পররাষ্ট্র মন্ত্রী ভুলে গেছেন বাংলাদেশ এবং বৃটেনের মধ্যে একটা ট্রিটি আছে ডুয়েল সিটিজেনশীপ ট্রিটি। এই ট্রিটির ফলে একজন বাংলাদেশী বৃটিশ নাগরিকত্ব পেলেও তার বাংলাদেশী নাগরিকত্বের কোন ক্ষতি হয় না। তেমনি এক জন বৃটিশ বাংলাদেশী নাগরিকত্ব পেলে ও তার বৃটিশ নাগরিকত্ত্ব চলে যায় না, এটা একজন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জানেন না এটা কি করে সম্ভব।

আপনার মতামত দিন

শিবির সন্দেহে শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে পুলিশে দিল ছাত্রলীগ

তিন জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

আত্মহত্যার আগে ফেসবুকে যা লিখেছেন ঢাবি শিক্ষার্থী মুশফিক

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চায় তুরস্ক

শহীদুল আলম: আত্মমর্যাদা ও মানবাধিকারের স্বপক্ষে একক কন্ঠস্বর

বিয়েতে বাবার অসম্মতি, যুবকের আত্মহত্যা

জেদ্দায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি পরিবারের ৪ সদস্য নিহত

‘এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না’

চীন ও চট্টগ্রাম বন্দর নিয়ে বিজেপি নেতার পরিকল্পনা

বাজপেয়ী প্রয়াত

কোটা আন্দোলনের নেত্রী লুমা রিমান্ডে

তাদের উদ্দেশ্য কি?

ওয়ান ইলেভেনের ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছি

সাইবার হামলার আশঙ্কায় সব ব্যাংকে সতর্কতা জারি

ঢাকার নিন্দা বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে তলব

বাংলাদেশে বাকস্বাধীনতা ও প্রতিবাদের অধিকারের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন