তারেককে ফেরত নেবই : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ২২ এপ্রিল ২০১৮, রোববার, ১০:৫৯ | সর্বশেষ আপডেট: ৩:১৭
তারেক রহমানকে ফেরাতে বৃটিশ সরকারের সঙ্গে কথা হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সাজাপ্রাপ্ত এই ‘অপরাধীকে যেভাবেই হোক’ দেশে ফিরিয়ে আনা হবে। শনিবার লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টারে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন। এসময় তিনি বিএনপিরও কঠোর সমালোচনা করেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি বৃটিশ সরকারের সঙ্গে কথা বলেছি। যে অপরাধী সাজাপ্রাপ্ত, সে কী করে এখানে থাকে? কাজেই তাকে তাড়াতাড়ি ফেরত ৎ দেন। তিনি আরও বলেন, জিয়াউর রহমান খুনি, তার স্ত্রী খুনি এবং তার  ছেলেও খুনি। এই খুনিদের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে হবে। আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ থাকবে, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অপবাদ ছড়ানোর উপযুক্ত জবাব দেওয়া। বাংলাদেশ আন্তর্জাতিকভাবে যে সম্মান  পেয়েছে সেটা রক্ষা করতে হবে।
তারেক রহমানকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন করার সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, “বিএনপিতে কি চেয়ারপারসন হওয়ার মতো একটাও লোক ছিল না?
বাংলাদেশে মানবাধিকার লংঘন হচ্ছে বলে যারা বক্তব্য-বিবৃতি দিয়ে আসছেন, তাদের  উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১১ লাখ মানুষকে আশ্রয়  দেওয়ার পরও কেউ যদি আমাদের মানবতাবিরোধী বলে, তারাই যে মানবতাবিরোধী, তারাই যে দোষী, তারাই যে অপরাধী, খুনি, দুর্নীতির্বাজ।
সংবর্ধনায় যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আবদুল গাফফার চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বক্তব্য রাখেন।।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দেশের স্বার্থে নতুন মেরূকরণ হতে পারে

এমপিদের লাগাম টানছে না ইসি

স্টিয়ারিং কমিটিতে যারা থাকছেন

এনডিআই-এর নির্বাচনী ২০ দফা

সিলেটে একদিন পিছিয়েও সমাবেশের অনুমতি পায়নি ঐক্যফ্রন্ট

জাপার দুর্গে আওয়ামী লীগের দৃষ্টি

শিক্ষকদের সহযোগিতা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

সৌদি আরবে শঙ্কায় লাখ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক

তিন জেলায় বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৪

তিনদিনের সফরে ঢাকায় এলিস ওয়েলস

টাঙ্গাইলে দীপু মনির জনসভা বাতিল, উত্তেজনা

খাসোগি হত্যার দায় স্বীকার সৌদির

ল্যান্ডমার্ক ম্যাচে মাশরাফিদের অন্য ‘লড়াই’

জাতীয় আইনজীবী ঐক্যফ্রন্ট ঘোষণা

‘ক্ষমতায় গেলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল’

‘ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই’