রনির ঘোষণাই ঠিক, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক জাকারিয়া

অনলাইন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ২১ এপ্রিল ২০১৮, শনিবার, ১:৩৭
অবশেষে নুরুল আজিম রনির ঘোষণাই ঠিক হলো। তার ঘোষণা মতে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ স¤পাদক হলেন নগর ছাত্রলীগের বর্তমান যুগ্ন স¤পাদক জাকারিয়া দস্তগীর। এই ঘোষণাই রনি নিজেই পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বরাবরে লিখিত আবেদন করেন। যা নিজের ফেসবুক ওয়ালে প্রকাশ করেন তিনি। আর এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয় চট্টগ্রামসহ সারাদেশে। অধিকাংশ গণমাধ্যমে এই আবেদনের স্ক্রীনশটসহ রনির ঘোষণা প্রচার পেলেও কয়েকটি গণমাধ্যমে রনিকে বহিষ্কারের খবর প্রচার হয়।
এসব খবরে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহোগের বক্তব্যের মাধ্যমে রনির বহিষ্কারের বিষয়টিও নিশ্চিত করা হয় বলে উল্লেখ করা হয়। যা বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে কপি করে প্রকাশ করা হয়।
এ নিয়ে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত তুমুল বিতর্ক ও আলোড়ন চলছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তবে শুক্রবার রাতেই এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এই বিতর্ক ও আলোড়নের অবসান ঘটান বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ স¤পাদক এস এম জাকির হোসেন। তাদের স্বাক্ষরিত এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে রনির অব্যাহতির কথা উল্লেখ করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়-বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরী সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, নুরুল আজিম রনি (বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চট্টগ্রাম মহানগর শাখা) এর নিজ আবেদনের প্রেক্ষিতে তাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হলো এবং জাকারিয়া দস্তগীর (যুগ্ন স¤পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চট্টগ্রাম মহানগর শাখা) কে চট্টগ্রাম শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ স¤পাদক হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হলো। আর এ থেকে প্রমাণীত হলো রনির ঘোষণাই ঠিক। বাকী সব মিথ্যে।
এ প্রসঙ্গে নুরুল আজিম রনি বলেন, বহিষ্কার নয় অব্যাহতি চেয়ে আমি নিজেই পদ থেকে সরে দাড়ানোর আবেদন করেছি। আর এই বিষয়টি অন্ধকার গলির সাংবাদিকরা কোনো মতামত না নিয়ে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করেছে। তিনি বলেন, ব্যক্তিগত ব্যবসায়ীক লেনদেন নিয়ে নগরীর ইউনিএইড কোচিং সেন্টারের মালিক মো. রাশেদ মিয়াকে মারধরের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। দলীয় কোন্দল আর প্রতিপক্ষ গ্রুপের লোকজন লাইক-শেয়ার করে তা ভাইরাল করে তোলে। এর আগে অতিরিক্ত ফি ফেরতের জন্য চট্টগ্রাম বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষকে নিয়ে ভিডিও ছড়ানো হয়। এতে নানা আলোচনা-সমালোচনার জন্ম নেয়। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম মতে কতিপয় গণমাধ্যমও সংবাদ প্রকাশ করে। যা মোটেও সুখকর নয়।
রনির অনুসারী নেতাকর্মীরা বলেন, বৃহ¯পতিবার রাতেই পদ থেকে সরে দাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বরাবরে অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করে নিজ ফেসবুক ওয়ালে স্টাটাস দেন রনি। এতে তিনি লিখেন-পিতা মুজিবুরের হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চট্টগ্রাম মহানগরের সাধারণ সমপাদক পদ থেকে আমি সজ্ঞানে অব্যাহতি নিলাম। একান্ত ব্যক্তিগত কারণে আমি এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।
এমতাবস্থায় সংগঠনের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সমপাদক জাকারিয়া দস্তগীর সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করবেন। এ সংক্রান্ত যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রতি আবেদন করছি। প্রাণের ছাত্রলীগ ভালো থেকো, স্বকীয়তা নিয়ে লড়াই করার সৎ সাহস রেখো। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।
আর রনির ঘোষণামতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ থেকে জাকারিয়া দস্তগীরকে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ স¤পাদক নিযুক্ত করা হয়েছে। এর আগে জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ স¤পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন জাকারিয়া দস্তগীর। তিনি নগরীর ওমরগনি এমইএস কলেজের ছাত্র। তবে রনির অব্যাহতি প্রত্যাহারের দাবিতে নগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শুক্রবার রাতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বলে জানান নেতাকর্মীরা।
উল্লেখ্য, নুরুল আজিম রনি চট্টগ্রামের প্রয়াত নেতা এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারী। বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সাধারণ স¤পাদক জাকারিয়া দস্তগীরও মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারী। একই প্লাটফরমে থেকে দীর্ঘদিন ধরে তারা ছাত্রলীগের রাজনীতি করে আসছেন।
[আলীম]



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মাঠে গড়ালো খেলা, ব্যাটিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা

ফুলপুরের নিখোঁজ সেই ৩ যমজ বোন উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৬

ঝিনাইদহে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগ

দেশে ফিরছেন ভানুয়াতুতে পাচার হওয়া বাংলাদেশীরা

ছাত্রলীগের কমিটিই তো ফেসবুকে হয়, বললেন অব্যাহতি চাওয়া নেতা

লোকসভার নতুন স্পিকার ওম বিড়লা

‘পরকীয়ার কারণে খুন হন মুয়াজ্জিন সোহেল’

ভাণ্ডারিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্র হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

আজও বুয়েট শিক্ষার্থীরা রাজপথে

মুরসিকে হত্যার অভিযোগ, নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি জাতিসংঘের

‘মাদক ব্যবসায় না জড়ানোয় জান্নাতিকে পুড়িয়ে হত্যা’

বেনাপোলে বাসচাপায় ব্যবসায়ী নিহত

ঢাবি ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণ, ভিডিও ধারণ, অত:পর.....

টীকার ওপর সবচেয়ে বেশি আস্থা বাংলাদেশ ও রোয়ান্ডার

শাহবাজপুরের ক্ষতিগ্রস্থ সেতুর সংস্কার শুরু হয়নি

আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি রানার জামিন