আলাপন

‘চ্যালেঞ্জটা ছুড়ে দিতে চাই’

বিনোদন

কামরুজ্জামান মিলু | ১৯ এপ্রিল ২০১৮, বৃহস্পতিবার
নিজেকে নতুন সাজে দর্শকের সামনে আনতে বেশ কয়েকমাস ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছেন আজমেরী হক বাঁধন। ২০০৬ সালে লাক্স তারকা হিসেবে শোবিজে কাজ শুরু করা এই গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী এখন পর্যন্ত বেশকিছু নাটক ও বিজ্ঞাপনে কাজ করে পেয়েছেন দর্শকপ্রিয়তা। মুশফিকুর রহমান গুলজারের পরিচালনায় ‘নিঝুম অরণ্য’ নামে একটি চলচ্চিত্রেও কাজ করেছেন তিনি। এরই মধ্যে তার দাম্পত্য জীবনে ঘটেছে নানা অশুভ ঘটনা। ২০১০ সালে তার বিয়ে এবং এর কয়েক বছর পরই বিচ্ছেদের ধকল কাটিয়ে এখন নিজের একমাত্র কন্যা সায়রাকে নিয়ে একাই রয়েছেন বাঁধন। নিয়মিত জিমে সময় দিচ্ছেন। নতুন কিছু কাজ নিয়ে ভাবছেন। সবশেষ দুই মাস কোনো নাটকে কাজ করেননি বাঁধন।
এরই মধ্যে চারপাশে খবর এসেছে প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়ার নতুন ছবি ‘দহন’-এ অভিনয় করতে যাচ্ছেন এ অভিনেত্রী। ঘটনা আসলে কতটুকু সত্যি? এই প্রশ্নে বাঁধন মানবজমিনকে বলেন, আমি এখনো কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হইনি। অনেকের সঙ্গেই চলচ্চিত্রে কাজের বিষয়ে কথা হলেও চুড়ান্ত সাইনিং এখনো কোনো ছবিতে করিনি। অনেকে মনে করেন যে, আমি গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী। তাই অন্য কোনো চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে অভিনয় হয়তো আমাকে দিয়ে হবে না। কিন্তু এ বিষয়টি একদম ভুল। আমি যে কোনো ভালো চরিত্রে বড় পর্দায় কাজ করতে আগ্রহী। এদিকে নিজের শরীরের ওজন ১৮ কেজি কমিয়েছেন তিনি। এখানেই শেষ না। নিজেকে নতুন লুকেও দর্শকের সামনে আনছেন। এই পরিবর্তনটা কেনো জরুরী মনে করলেন বাঁধন? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সংসার নিয়ে মাঝে অনেক ঝড় বেয়ে গেছে আমার জীবনে। আমার মেয়ের বয়স এখন সাড়ে ছয় বছর। আমি চাই না আমার মেয়ে বড় হয়ে দেখুক যে তার মা একজন হেরে যাওয়া মানুষ। বিপদে পিছপা হওয়া মানুষ আমি না। আমি ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি এবং আমার বিশ্বাস মিডিয়াসহ চারপাশের মানুষ আমাকে যেভাবে সাহায্য করছে তাতে আমি সফল হতে পারব। আমি সায়রার মা হিসেবে এই ইমেজটা তার কাছে ধরে রাখতে চাই। সন্তানের ভালো রাখার জন্যই মূলত আমার এই যুদ্ধ। বাঁধন আরো বলেন, গত পাঁচ বছরে আমি অনেক কাজ করেছি। সে সময় সব কাজ ঢাকার মধ্যে করতে হয়েছে। ঢাকার বাইরে কোনো কাজ থাকলেও আমি করতে পারিনি। সব কিছু¦ই করেছি আমার মেয়ের ভালোর জন্য। কারণ শুটিং স্পটেও তাকে নিয়ে যেতে হতো। আমিই তাকে দেখভাল করে আসছি এবং এখনো করছি। তবে এখন অনেক কিছু বোঝে সায়রা। গত পাঁচ বছর তাকে অনেক বেশি সময় দিতে হয়েছে। প্রসঙ্গত, বর্তমানে প্রতিদিন ২ ঘন্টা করে সপ্তাহে পাঁচদিনই নিয়মিত ব্যায়াম করছেন বাঁধন। খাবারেও এনেছেন পরিবর্তন। সবশেষ দর্শক তাকে আহসান হাবিব সকালের রচনা এবং দীপু হাজরার পরিচালনায় ‘রাইটার’ নামে খন্ড নাটকে ছোট পর্দায় দেখেছেন। বাঁধন বলেন, ধারাবাহিক নাটকে একদমই কাজ করছি না। সামনে রোজার ঈদ উপলক্ষে হয়তো দু-একটা খন্ড নাটকে কাজ করা হবে। আর মাঝে বেশ কিছুটা সময় বিষন্নতা ভর করেছিল  আমার উপর। আমি অনেক অসুস্থ হয়ে গিয়েছিলাম। তাই ডাক্তারের পরামর্শে ব্যায়াম করা শুরু করেছি। আর বর্তমানে অভিনয়ের ক্ষুধা অনেক বেড়েছে। এখনো অনেক কিছু করার আছে আমার। তাই চেষ্টা করছি। চলচ্চিত্রে শুধুই গ্ল্যামারাস চরিত্রে নয়, ভালো নির্মাতার ভালো গল্পের কাজ করতে আগ্রহী আমি। ভালো চরিত্র করতে চাই। আমার ভক্তরা যেন আমাকে দেখে হতাশ না হয়। এই চ্যালেঞ্জটা ছুড়ে দিতে চাই এখন। নিজেকে সুন্দর করে উপস্থাপন করতে আমার কাউন্সেলিং যে করেছে তাকে, বন্ধুদের এবং মিডিয়ার সহকর্মীদের আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই। কারণ তাদের জন্যই আমি নতুন করে কাজ করার চেষ্টা করছি। সামনে ভালো কিছু কাজ দর্শকদের উপহার দিতে চাই। 



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ফারাক্কা ব্যারেজের লকগেট ভেঙে বিপত্তি

‘ডাবিং করতে গিয়ে বেশ ভয় পেয়েছিলাম’

আন্দোলন ও নির্বাচন ২ প্রস্তুতিতেই বিএনপি

মি-টু আন্দোলনের মুখে এম জে আকবরের পদত্যাগ

নীতিমালা নেই অ্যাপস চালুর চিন্তা

সিলেট, চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতে সমাবেশের তারিখ চূড়ান্ত করেছে ঐক্যফ্রন্ট

দুই উইকেট পড়ে গেছে আরো পড়বে

সক্ষমতা সূচকে পেছালো বাংলাদেশ

দুর্গাপূজায় সেই নাসিরনগর

কারাগারে থেকেই দুই পুরস্কার

গ ইউনিটে ফেল ঘ ইউনিটে প্রথম!

বিএনপি’র ভরসা ভোটার আওয়ামী লীগের উন্নয়ন

জিপ্লেক্স’র মাধ্যমে আরো উন্নত কন্টাক্ট সেন্টার গড়লো রবি

চ্যারিটেবলের রায় আগে লেখা হয়েছে: নজরুল

বিবেকের অনশন

মাহবুব তালুকদারের পদত্যাগ চায় ১৪ দল