ইউনাইটেডে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার দাবি বিএনপির

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:০১
কারাগারে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন এবং তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে জানিয়ে সুচিকিৎসা নিশ্চিতের দাবি   জানিয়েছে বিএনপি। এ জন্য ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দেয়ার দাবিও জানিয়েছে দলটি। গতকাল বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ দাবি জানান। তিনি বলেন, ক্ষমতাসীনদের দাপটে কারাকর্তৃপক্ষ মুঠোবন্দি হয়ে গেছে। তাদের মধ্যে ফ্যাসিবাদের রোগ তীব্র আকার ধারণ করেছে। এখন খালেদা জিয়া আগের চেয়ে গুরুতর অসুস্থ।
নির্জন, পরিত্যক্ত ও স্যাঁতসেঁতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রাখায় তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হাঁটু ও পায়ের সমস্যায় ভুগছেন। কারাগারে তাকে দেয়া বিছানা-বালিশ অর্থোপেডিকের একজন রোগীর জন্য অনুপযোগী। আমরা দলের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়াকে ব্যক্তিগত চিকিৎসকের অধীনে চিকিৎসা দেয়ার দাবি জানালেও তা দেয়নি সরকার। রিজভী বলেন, সরকারের ইচ্ছা অনুযায়ী সরকারি চিকিৎসকদের দিয়ে গঠিত মেডিকেল বোর্ডও কারাগারে খালেদা জিয়াকে অর্থোপেডিকের বেড দেয়ার সুপারিশ করেছে। তারপরও খালেদা জিয়াকে সেই বেড দেয়া হয়নি। যে কারণে তার হাত-পা ও কোমরের ব্যথা আগের চেয়ে বেড়েছে। এখন তার জরুরি ভিত্তিতে এমআরআইসহ উন্নত চিকিৎসা দরকার। এক প্রশ্নের জবাবে রিজভী আহমেদ বলেন, খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা কিছুদিন পরপর তার সঙ্গে দেখা করেন। তাদের মাধ্যমে আমরা তার অসুস্থতার কথা জানতে পেরেছি। একই সঙ্গে তিনি বলেন, অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে সরকার খালেদা জিয়াকে অবনতিশীল স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে ফেলে রাখার জন্যই কারাকর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে। বিষয়টি গভীর উদ্বেগের ও বন্দি নির্যাতনের শামিল। রিজভী আহমেদ বলেন, আগে খালেদা জিয়ার সঙ্গে প্রতি সপ্তাহে দেখা করা যেতো। এখন ১০ দিন পরপর দেখা করার নির্দেশ হতে যাচ্ছে। এর উদ্দেশ্যই হচ্ছে বেগম জিয়াকে মানসিকভাবে যন্ত্রণা দেয়া। সরকারের নির্দেশেই কারাকর্তৃপক্ষ বেগম জিয়ার প্রতি নিষ্ঠুর ও অমানবিক আচরণ করছে। এসব অন্যায়ের বিরুদ্ধে বার বার প্রতিবাদ করলেও কারাকর্তৃপক্ষ আমলে নিচ্ছে না। উল্টো প্রতিদিন তাদের নির্যাতনের মাত্রা বাড়ছে। রিজভী বলেন, দেশের একজন জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ ও কোটি কোটি মানুষের আশা ও ভরসার স্থল খালেদা জিয়া। বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার প্রতীক তিনি। বারবার দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে তিনি সফলভাবে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তার সুচিকিৎসা নিয়ে কারাকর্তৃৃপক্ষের টালবাহানা অত্যন্ত রহস্যজনক। সরকারের নির্দেশেই কারাকর্তৃপক্ষ খালেদা জিয়ার প্রতি এমন নিষ্ঠুর ও অমানবিক আচরণ করছে। একজন জাতীয় নেতার ওপর এহেন নির্দয় আচরণ শুধুমাত্র প্রতিহিংসা চরিতার্থ করা ছাড়া অন্য কোনো কারণ নেই। বিএনপির মুখপাত্র বলেন, সরকার বলছে কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বিএনপি নোংরা রাজনীতি করতে না পারায় হতাশায় ডুবছে। লন্ডন ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে, কোটা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ছিল সাহসী পদক্ষেপ। কিন্তু আমি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে বলতে চাই- বিএনপি কোনো ষড়যন্ত্র করেনি। যৌক্তিক আন্দোলনে বিএনপির সমর্থনের বিষয়ে আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমাদেরই দলের এক নেতার সঙ্গে আলাপ করেছেন। বরং আপনারা (সরকার) কোটা সংস্কার চাননি। কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে পরাজিত হওয়ায় এখন বেসামাল হয়ে পড়েছেন। পরাজয়ের গ্লানি অন্যদিকে প্রবাহিত করার জন্য দিশাহারা হয়ে প্রতিদিন বেশরমের মতো বকবক করছেন। রিজভী বলেন, এর আগে ভিসির বাসায় হামলার কথা বলে সাধারণ ছাত্রদের কোটা সংস্কার আন্দোলনকে দিকভ্রান্ত করার চেষ্টা করা হয়েছে। এটা আরো প্রমাণিত হয়েছে রগকাটা ছাত্রলীগ নেত্রী এশার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের মাধ্যমে। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কার চেয়েছিল, বাতিল নয়, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী জেদের বশে কোটা বাতিলের ঘোষণা দিয়ে দিলেন। বিষয়টি যে শুভঙ্করের ফাঁকি এবং সাম্প্রতিককালের সেরা প্রহসন সেটি আমরা আগেই বলেছিলাম। এটি নিয়ে শিক্ষার্থীসহ গোটা জাতি এখনো অন্ধকারে। ছাত্রদের যৌক্তিক দাবি মেনে নিলেও এখনো প্রজ্ঞাপন জারি না করার মাধ্যমেও প্রমাণিত হয়েছে সরকার আন্দোলনকে দিকভ্রান্ত করতে চেয়েছিল। রিজভী বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা এখনো চলছে। এখনো ছাত্রলীগের আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে শিক্ষার্থীরা। ব্রিফিংয়ে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খোন্দকার, আবদুস সালাম ও সহ দপ্তর সম্পাদক মুনির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

চার কর্মীর মুক্তির দাবিতে পুলিশ কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে আরিফের অবস্থান

ইয়াবাসহ হাসপাতালের দুই কর্মী গ্রেপ্তার

বিমানবন্দরে বিদেশী ওষুধসহ নারী আটক

নির্বাচনের জন্য এমাজউদ্দীনের ৪ শর্ত

মিরপুরে গুপ্তধনের খোঁজে অভিযান

ইমরান খান কি জয়ের গন্ধ পাচ্ছেন?

রাশিয়ার হামলায় ২৬ সিরিয়ান নিহত

‘জনপ্রিয়তা প্রমাণের জন্য প্রধানমন্ত্রী তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ঘোষণা দেবেন’

প্রিয়া ভারিয়ারের প্রতিদ্বন্দ্বী রাহুল গান্ধী!

প্রতিবেশী দেশে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে বিল পাসের আহ্বান সুষমার

জার্মানিতে বাসে ছুরিকাঘাতে আহত ১৪

যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হামাস-ইসরাইল

সোহরাওয়ার্দী অভিমুখে নেতাকর্মীদের ঢল

অধ্যাপক মোজাফফর আইসিইউতে

বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবি ১৬ জেলে উদ্ধার, নিখোঁজ ১

মিসৌরিতে নৌকাডুবিতে নিহতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৭