চট্টগ্রামে ২ ব্যক্তির পায়ুপথে ৮৫০০ পিস ইয়াবা!

বাংলারজমিন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: | ১৭ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার
লম্বা দাড়ি, মাথায় টুপি আর গায়ে পাঞ্জাবি পরা দুই ব্যক্তির পায়ুপথ থেকে ৮৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলের সদস্যরা। সোমবার ভোরে চট্টগ্রাম মহানগরী কোতোয়ালি থানার ব্রিজঘাট এলাকায় দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরা হচ্ছে- রশিদ আহম্মেদ (৬০) ও ফরিদ আহম্মেদ (৫২)। তাদের বাড়ি টেকনাফ উপজেলার নোয়াখালী পাড়া গ্রামে। ইয়াবা পাচারের দায়ে দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে নগরীর কোতোয়ালি থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ তাদের আদালতে প্রেরণ করেছে বলে জানান মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মেট্রো উপ-অঞ্চলের উপ-পরিচালক শামীম আহমেদ। তিনি জানান, দুই ব্যক্তি টেকনাফ থেকে পায়ুপথে ইয়াবা নিয়ে চট্টগ্রামে আসছে। গোপন সূত্রে এমন খবর পেয়ে কর্ণফুলী শাহ আমানত সেতু এলাকায় অবস্থান নেয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলের সদস্যরা।
কিন্তু এই দুই ব্যক্তি টের পেয়ে বাস থেকে নেমে রিকশা করে চলে যাচ্ছিলেন। এ সময় পিছু নিয়ে কোতোয়ালি থানার ব্রিজঘাট এলাকায় তাদের আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা পায়ুপথে লুকিয়ে রাখা ইয়াবার কথা স্বীকার করে। পায়ুপথ থেকে ৮৫০০ পিস ইয়াবা বের করে দেয়।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা শামীম আহমেদ বলেন, ধর্মীয় পোশাক পরে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামসহ সারা দেশে দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা পাচার করে আসছিল এই দুই ব্যক্তি। এর আগেও ইয়াবা পাচার করতে গিয়ে তারা কক্সবাজারে গ্রেপ্তার হয়েছিল।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিমানবন্দরে আত্মহত্যার চেষ্টা করা রুনা বললেন আমি মরতে চাই

দুর্নীতিবাজদের নিয়ে জোট করে সরকার উৎখাতের চেষ্টা হচ্ছে

সহস্রাধিক সাইট পেজে নজরদারি

সাধারণের ভোট ভাবনা

মেজর (অব.) মান্নানকে দুদকে তলব

ডিজিটাল আইন স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়

২৯শে সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশ

ঢাকায় বৃহস্পতিবার বিএনপি’র সমাবেশ

জগাখিচুড়ির ঐক্য টিকবে না

৫৭ ধারার মামলায় চবি শিক্ষক কারাগারে

পদ্মার ডান তীরে ভাঙন ফের আতঙ্ক

মালদ্বীপে বিরোধীদের অভাবনীয় জয়

চট্টগ্রামে গণধর্ষণের শিকার দুই কিশোরী

বিচারকের প্রতি দুই আসামির অনাস্থা

ভালো মানুষকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন: প্রেসিডেন্ট

শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যাওয়ার কথা বলেননি ড. কামাল