গেইলের পর ধোনির ব্যাটে ঝড়, তবুও হারলো চেন্নাই

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার
ব্যাট হাতে ঝড় তুলে ক্রিস গেইলকে ‘আড়াল’ করেও দলকে জেতাতে পারেননি মহেন্দ্র সিং ধোনি। আইপিএলের এবারের আসরে টানা দুই ম্যাচ জয়ের পর হারের অভিজ্ঞতা পেল চেন্নাই সুপার কিংস। সবশেষ ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ছুঁড়ে দেওয়া ১৯৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৪ রানে হার মানে ধোনির দল। পাঁচ উইকেট হাতে রেখে শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ১৭। ৪৪ বলে ৭৯ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন ধোনি। তাতে ছিল ৬ চার ও ৫ ছক্কার মার।
১৪তম ওভারে পাঞ্জাব অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সরাসরি থ্রোতে রানআউট হন আম্বাতি রাইদু (৩৫ বলে ৪৯)। ১৯তম ওভারে আউট হওয়ার আগে রবিন্দ্র জাদেজার ব্যাট থেকে আসে ১৩ বলে ১৯। এর আগে টস হেরে ব্যাটিং পেয়ে সাত উইকেটে ১৯৭ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ দাঁড় করায় পাঞ্জাব। প্রথম দুই ম্যাচে একাদশে সুযোগ না পাওয়ার জবাব দেন গেইল। ৩৩ বলে ৭ চার ও ৪ ছক্কার সাহায্যে ৬৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন ‘ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব’। আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল ২২ বলে ৩৭, মায়াঙ্ক আগারওয়াল ১৯ বলে ৩০, যুবরাজ সিং ১৩ বলে ২০, করুন নায়ার ১৭ বলে ২৯, ১৪ রান করেন অশ্বিন। চেন্নাইয়ের হয়ে দু’টি করে উইকেট নেন শার্দুল ঠাকুর ও ইমরান তাহির। হরভজন সিং, শেন ওয়াটসন ও ডোয়াইন ব্রাভো পান একটি করে। চেন্নাই ও পাঞ্জাব দু’দলই তিন ম্যাচ শেষে দু’টিতে জিতলো। সমান ৪ পয়েন্ট হলেও নেট রান রেটে এগিয়ে থাকায় ৮ দলের পয়েন্ট তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে পাঞ্জাব। তিনে চেন্নাই। টানা তিন জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সোনা কারসাজির নিরপেক্ষ তদন্ত চায় ফিনল্যান্ড বিএনপি

চবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মানবন্ধনেও ছাত্রলীগের হামলা!

রিমান্ডে আসাদ পংপং

ছোট বড় সকল নির্বাচনে স্বচ্ছতা দেখতে চায় ইইউ

ঢাকায় সর্বোচ্চ গরম

দেশের বাইরে পাসের হার ৯২ দশমিক ২৮ শতাংশ

জাবিতে ১৯ বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন

আবারও বড় ঋণ কেলেঙ্কারিতে জনতা ব্যাংক

বিবি’র ওপর ‘আস্থা’ রাখুন!

হুমায়ূন আহমেদের শেষের দিনগুলো

দিনাজপুরে ছেলেরা পিছিয়ে

আরিফকে সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন সেলিম

যশোর বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বললেন বিপর্যয় নয়, কম পাস

ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ২০ থেকে ২৬ জুলাই

গতানুগতিক পড়ালেখায় ভাল ফল সম্ভব নয়

পাকিস্তানের নির্বাচনে দৃষ্টি সেনাবাহিনীর!