আসুন, জিসানকে বাঁচাই

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার
আকাশের চাঁদ হয়ে মর্জিনার কোলজুড়ে এসেছিল জিসান। সেই ফুটফুটে শিশুটি এখন অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। জিসানের দিনমজুর বাবা রবিউল ইসলামের বাড়ি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজার গ্রামে। বাবা-মা দুজনেই স্বপ্ন দেখেছিল ছেলেকে নিয়ে। কিন্তু হঠাৎ জিসান আক্রান্ত হয় প্যানক্রিয়াটাইটিস বা অগ্ন্যাশয়ের জটিলতায়। এতে তাদের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে।
গ্রামের ডাক্তার-কবিরাজ ভুল চিকিৎসা দিয়ে রোগটিকে আরো জটিলতর পর্যায়ে নিয়ে গেছে। গত ২৫শে মার্চে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ইআরসিপি করে ব্যর্থ হয়ে ডাক্তার জানান, জিসানকে বিদেশে বা ভালো কোন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যেতে। তার দিনমজুর বাবা ইতিমধ্যে ঋণ করে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ব্যয় করে ফেলেছে। গতকাল পেট ব্যথা বাড়লে তাকে ভর্তি করানো হয় ইবেন সিনা হসপিটালে। চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়েছেন, তাকে উন্নত চিকিৎসায় ভারতে নিতে। কিন্তু দিনমজুর রবিউল ইসলামের পক্ষে ছেলেকে ভারতে নিয়ে চিকিৎসার ব্যয়ভার মেটানো সম্ভব নয়। প্রয়োজন প্রায় তিন লক্ষাধিক টাকার মতো। তাই সমাজের বিত্তবানদের কাছে জিসানের বাবা মায়ের আবেদন জানিয়েছেন- সবাই যদি একটু সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে হয়তো জিসানকে ভারতে নিয়ে চিকিৎসা করানো সম্ভব। বেঁচে যাবে কোমলমতি শিশুটি। সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা-বিকাশ একাউন্ট নাম্বার: ০১৭৩৪৯১৮৪৫৬, রকেট একাউন্ট নাম্বার: ০১৭১৯৮০৮৩৬১২, ডাচ-বাংলা ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার: ১০৮.১৫১.৬১২৫৩, মো. খাইরুল ইসলাম, শান্তিনগর শাখা, ঢাকা। রোগী সম্পর্কিত যে কোন তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৭৩৪৯১৮৪৫৬, ০১৭৪৮৩২৫৫৯১।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সোনা কারসাজির নিরপেক্ষ তদন্ত চায় ফিনল্যান্ড বিএনপি

চবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মানবন্ধনেও ছাত্রলীগের হামলা!

রিমান্ডে আসাদ পংপং

ছোট বড় সকল নির্বাচনে স্বচ্ছতা দেখতে চায় ইইউ

ঢাকায় সর্বোচ্চ গরম

দেশের বাইরে পাসের হার ৯২ দশমিক ২৮ শতাংশ

জাবিতে ১৯ বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন

আবারও বড় ঋণ কেলেঙ্কারিতে জনতা ব্যাংক

বিবি’র ওপর ‘আস্থা’ রাখুন!

হুমায়ূন আহমেদের শেষের দিনগুলো

দিনাজপুরে ছেলেরা পিছিয়ে

আরিফকে সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন সেলিম

যশোর বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বললেন বিপর্যয় নয়, কম পাস

ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ২০ থেকে ২৬ জুলাই

গতানুগতিক পড়ালেখায় ভাল ফল সম্ভব নয়

পাকিস্তানের নির্বাচনে দৃষ্টি সেনাবাহিনীর!