‘আমরাও এক্ষেত্রে বেশ এগিয়ে গেছি’

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন | ১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার
ক্লোজআপ ওয়ান তারকা সানিয়া সুলতানা লিজা। এ সংগীত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর থেকেই তার বিরতিহীন যাত্রা শুরু গানের জগতে। স্টেজ, প্লেব্যাক, অ্যালবাম, মিউজিক ভিডিও- এসব ক্ষেত্রেই সরব তিনি। এরই মধ্যে বেশ কিছু জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন লিজা। গানের বাইরে একজন উপস্থাপিকা হিসেবেও প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তবে লিজার চলতি ব্যস্ততা শুধুই গান নিয়ে।
কারণ এখন শো নিয়ে ব্যাপক ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে তাকে। আর শো-র মাঝেই কেটেছে এ শিল্পীর এবারের পহেলা বৈশাখ। দিনটি সিরাজগঞ্জে শ্রোতাদের সঙ্গে পালন করেছেন তিনি। সব মিলিয়ে কেমন কাটলো পহেলা বৈশাখ? লিজা উত্তরে বলেন, আসলে পেশাগতভাবে গান শুরুর পর থেকেই পহেলা বৈশাখের বেশিরভাগ সময় শ্রোতাদের সঙ্গেই আমি কাটাই। প্রতিবারই শো-র ব্যস্ততা থাকে। এবারও ছিল। পহেলা বৈশাখ শ্রোতাদের সঙ্গেই কাটিয়েছি। আর সেটা সিরাজগঞ্জে। সঙ্গে ছিলেন আমার সহযোদ্ধা মিউজিশিয়ানরা। অসাধারণ একটি শো করেছি সেখানে। শ্রোতারা গানের তালে তালে নেচেছেন। পহেলা বৈশাখের শো তাই অন্যরকম একটা উন্মাদনা ছিল। সফলভাবে শোটি করতে পেরেছি। এজন্য শ্রোতাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। এখনও শো-র মৌসুম চলছে। কেমন ব্যস্ততা যাচ্ছে? লিজা বলেন, সত্যি বলতে অনেক ব্যস্ততা যাচ্ছে। আমার শো-র ব্যস্ততা সারা বছরই থাকে। কিন্তু তার মধ্যে শীত মৌসুম এলে সেটা বেড়ে যায়। শীত মৌসুমের পর এখনও টানা শো চলছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে শো করছি। সামনেও কিছু শো রয়েছে। আসলে বর্ষা মৌসুম পর্যন্ত এই ব্যস্ততা চলবে। আর শো করতে আমার বরাবরই ভালো লাগে। কারণ এখানে শ্রোতাদের সরাসরি গান শোনানো যায়। আবার সাড়াও সরাসরি পাওয়া যায়। নতুন গানের পরিকল্পনা কি হচ্ছে? উত্তরে লিজা বলেন, আমি নির্দিষ্ট সময় পর পর গান প্রকাশ করছি। ভিডিও আকারে সিঙ্গেলই করছি। কয়েক মাস আগে আমার সর্বশেষ গান ‘আসমানী’ প্রকাশ হয়েছে। গানটির সাড়া এখনও ভালো পাচ্ছি। নতুন বেশ কয়েকটি গানের পরিকল্পনা রয়েছে। সামনে ভিডিওসহ গানগুলো একে একে প্রকাশ করবো। প্লেব্যাক কী করা হচ্ছে? লিজা বলেন, প্লেব্যাকও করছি। বেশ কিছু ছবিতে কাজ করেছি। এর মধ্যে সর্বশেষ বদরুল আনাম সৌদের ‘গহীন বালুচর’ ছবিতে গান গেয়েছি। ‘তারে দেখি আমি রোদ্দুরে’ শিরোনামের এ গানটির সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন ইমন সাহা। বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছি এর। আর সামনেও কয়েকটি চলচ্চিত্রে গান গাওয়ার কথা রয়েছে। ব্যাটে বলে মিললে হয়তো করবো। বর্তমানে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন মনে হচ্ছে? লিজা বলেন, মোটামুটি। খুব বেশি ভালোও না। আবার খারাপও না। তবে যে যার মতো করে স্বাধীনভাবে গান প্রকাশ করতে পারছে। এক্ষেত্রে নিজের কাছে স্বত্ব রেখেও গান প্রকাশ করা যাচ্ছে। এটা একটা ইতিবাচক দিক। আমি নিজেও মাঝে মধ্যে স্বত্ব নিজের কাছে রেখে গান করি। আবার কোম্পানি থেকেও করি। সামনে ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা আরও ভালোর দিকে যাবে সেই প্রত্যাশা করি। তবে শ্রোতাদের জন্য গান শোনা এখন সহজ হয়েছে। যে কেউ বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে বসে নিজের পছন্দমতো গান ইউটিউবে শুনতে ও দেখতে পাচ্ছে। আমরাও এক্ষেত্রে বেশ এগিয়ে গেছি।
এবার ভিন্ন প্রসঙ্গে আসি। বিয়ের বাদ্য কবে নাগাদ বাজবে? লিজা বলেন, বিয়ে তো করতেই হবে। এটা সবারই করতে হয়। তবে এখনই বিয়ে করছি না। বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলে সেটা সবাইকে জানাবো। লুকিয়ে কোনো কিছু করবো না। দেখা যাক বিয়ের বাদ্যটা কবে নাগাদ বাজে!

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাখাইন উপদেষ্টা পরিষদের প্রভাবশালী সদস্যের পদত্যাগ

৩২ ধারা থেকে গুপ্তচরবৃত্তি বাতিলের ঘোষণা

৫০ বছর পরে সন্ধান মিলল যাত্রী ও বিমানের

রুশনারা ঢাকায়

বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবে ২০ জেলে নিখোঁজ

৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত

আইনজীবিকে কুপিয়ে হত্যা

হাইতি প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

দৌলতদিয়ায় আটকা ৪ শতাধিক যানবাহন

মেয়েকে বাঁচাতে বাবার চিঠি

বরিশালে কাউন্সিলর প্রার্থীকে তলব

না ফেরার দেশে রাজীব মীর

চার কর্মীর মুক্তির দাবিতে পুলিশ কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে আরিফের অবস্থান

ইয়াবাসহ হাসপাতালের দুই কর্মী গ্রেপ্তার

বিমানবন্দরে বিদেশী ওষুধসহ নারী আটক

নির্বাচনের জন্য এমাজউদ্দীনের ৪ শর্ত