সিরিয়ায় তিন দেশের ১০৫ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৫ এপ্রিল ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:১২
সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্রাগারের ওপর বৃষ্টির মতো ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও বৃটেনের সমন্বয়ে গঠিত পশ্চিমা জোট। শনিবার দিবাগত রাতে ১০৫টি ক্ষেপণাস্ত্র আছড়ে পড়ে সিরিয়ায়। পেন্টাগন বলেছে, সিরিয়ার তিনটি রাসায়নিক অস্ত্রাগার লক্ষ্য করে এই হামলা চালানো হয়েছে। এর মধ্যে একটি হলো দামেসো্কা বারজেহ জেলায় একটি গবেষণা ও উন্নয়নমুলক কেন্দ্র। এ ছাড়া বাকি দুটি হলো হোম শহরে অবস্থিত দুটি রাসায়নিক প্রতিষ্ঠান বা অস্ত্রাগার। প্রায় এক সপ্তাহ আগে সিরিয়ায় বেসামরিক ব্যক্তিদের ওপর বিষাক্ত রাসায়নিক গ্যাস ছোড়ার অভিযোগ আনা হয়েছে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের বিরুদ্ধে।
এর জবাবে এমন হামলা চালানো হয়েছে। প্রেসিডেন্ট আসাদের বিরুদ্ধে এটাই পশ্চিমা দেশগুলোর সবচেয়ে বৃহৎ বোমা হামলা। তবে এমন হামলার বিরোধী পশ্চিমা দেশগুলোর প্রতিপক্ষ রাশিয়া। হামলা চালানো তিন দেশ যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও বৃটেন বলেছে, তারা সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র সক্ষমতার বিরুদ্ধে আক্রমণ চালাচ্ছে। এটা তাদের সীমাবদ্ধ অভিযান। প্রেসিডেন্ট আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করা তাদের উদ্দেশ্য নয়। অথবা সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে হস্তক্ষেপ করাও তাদের উদ্দেশ্য নয়। সিরিয়ার বিরুদ্ধে শনিবার রাতের অভিযানকে সফল বলে আখ্যায়িত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। তিনি টুইটে বলেছেন, মিশন সম্পন্ন হয়েছে। যেন তার কণ্ঠে সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের কণ্ঠ প্রতিধ্বনিত হয়েছে। তিনি ২০০৩ সালে ইরাকে আগ্রাসন চালানোর পর বলেছিলেন ‘মিশন অ্যাকমপ্লিশড’। সিরিয়ায় হামলা চালানোর পর পেন্টাগনে যুক্তরাষ্ট্রের লেফটেন্যান্ড জেনারেল কেনেথ ম্যাকেঞ্জি বলেছেন, আমরা বিশ্বাস করি সিরিয়ার বারজেহতে হামলা চালিয়ে আমরা তাদের রাসায়নিক অস্ত্র কর্মসূচির একেবারে হৃদপিন্ডে আঘাত করতে সক্ষম হয়েছি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kazi

২০১৮-০৪-১৫ ০১:৪৬:১৫

কিছু লোক মরেছে আসাদের রাসায়নিক গ্যাসে কিছু মরবে ত্রিদেশীয় বোমায়। সিরিয়ান জনগণের কি ফায়দা হল।

আপনার মতামত দিন

তিন সিটিতে সুষ্ঠু ভোট কারচুপির আভাস দিয়েছেন ওবায়দুল কাদের

আমাদের কান চিলেই নেয়...

ইউনাইটেড মাল্টিট্রেড মার্কেটিং গ্রুপের চেয়ারম্যানসহ দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুদক

রাতের উল্লাসে ফরাসি চুম্বন

সেন্ট্রাল হাসপাতালে ফের ভুল চিকিৎসায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগ

কোটা আন্দোলনের নেতা তারিক নিখোঁজ

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তাারি পরোয়ানার আবেদন

ট্রাম্প-পুতিনের বৈঠক নিয়ে জল্পনা

উখিয়ায় ট্রাক উল্টে নিহত ৫

তবুও বীরের বেশে ফিরবেন মদরিচরা

এ রকম ফাইনাল আগে কখনো হয়নি

কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

ছবিতে পরাজিত ক্রোয়েশিয়া সমর্থকরা

ইমানুয়েল-কোলিন্দার ফ্রেঞ্চ কিস (ভিডিও সহ)

ছবিতে ফ্রান্সের বিশ্বকাপ বিজয়

মাতোয়ারা ফ্রান্স, লুটপাট, কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ