সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের হামলা

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৪ এপ্রিল ২০১৮, শনিবার, ১২:৫০ | সর্বশেষ আপডেট: ১:১৮
সিরিয়ায় সরকার বিরোধীদের উপর রাসায়নিক হামলার দায়ে সরকার নিয়ন্ত্রিত এলাকার বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স। পূর্ব ঘৌটায় সরকার বিরোধীদের উপর রাসায়নিক হামলার দায়ে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রা¤প শনিবার প্রথম প্রহরে মার্কিন বাহিনীকে  হামলা শুরুর আদেশ দেন বলে জানিয়েছে রয়টার্স।
রাসায়নিক হামলা বন্ধ না করা হলে দেশটির উপর হামলার হুঁশিয়ারি আগে থেকেই দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রা¤প। এবার হামলা শুরুর পর তিনি জানিয়েছেন বাসার আল আসাদ রাসায়নিক হামলা বন্ধ না করা পর্যন্ত মার্কিন বাহিনীর এ হামলা অব্যাহত থাকবে। আর এর সঙ্গে সহমত প্রকাশ করেছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁও।
তবে সিরিয়ার গণমাধ্যম এ হামলাকে আন্তর্জাতিক আইনের চরম লঙ্ঘন আখ্যা দিয়ে এ হামলা ব্যর্থ হয়েছে বলে জানিয়েছে। এদিকে সিরিয়ায় তিন যৌথ বাহিনীর এ হামলার কারণ হিসেবে পশ্চিমা গণমাধ্যমকে দোষারোপ করছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা। সিরিয়াতে যখন শান্তির সূচনা হচ্ছিল ঠিক এমন সময়ে যৌথ বাহিনী এমন হামলা চালনা করলো বলেও জানিয়েছেন তিনি।
প্রসঙ্গত, গত সাত বছর ধরে সিরিয়াতে গৃহযুদ্ধ চলমান রয়েছে।
আর সরকার বিরোধীদের দমনে তাদের সহায়তা করছিল মিত্র রাষ্ট্র রাশিয়া।

[পিসি]



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

৩ বাংলাদেশির লাশ আসতে সময় লাগবে

যশোরে পিকআপের চাপায় স্কুলছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন

ইউরোপজুড়ে আন্দোলনে স্কুল শিক্ষার্থীরা

আরেক তরুণীকেও ধাক্কা দেয় সেই বাস

মেইল-ফেসবুক আইডি হ্যাকের ভয়ঙ্কর চক্র

ছাত্রদলের কেন এই পরিণতি?

ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি সম্পন্ন

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধিতে আপত্তি পোশাক খাতের ৩ সংগঠনের

সিনেমা হলের আধুনিকায়ন

ফিফা সদস্য গ্রেপ্তার মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় দমনপীড়নের প্রকাশ

স্ত্রীকে খুন করে থানায় বললেন ‘আমি অনুতপ্ত’

জাহালমকে নিয়ে নাটক বা সিনেমা নয়

পর্যবেক্ষণকারী ৮ শিক্ষকের শাস্তি দাবি করায় ক্ষোভ

তৃণমূল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী অনুষ্ঠানমালা ছড়িয়ে দিতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছে ১২ বছরের স্বস্তিকা গার্গী চক্রবর্তী

৩৭তম বিসিএসের নিয়োগ পেলেন ১ হাজার ২২১ ক্যাডার