রাশিয়া সফরে যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শেষের পাতা

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ২১ মার্চ ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৫৫
রোহিঙ্গা সংকট এবং দ্বিপক্ষীয় নানা বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য রাশিয়া সফরে যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। আগামী ২রা এপ্রিল রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে তার বৈঠকের কথা রয়েছে। পররাষ্ট্র্র মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্র মতে, ‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে রাশিয়ার সমর্থন জরুরি। কারণ, দেশটি জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য। রাশিয়ার সঙ্গে কার্যকর যোগাযোগে অনেক দিন ধরে চেষ্টা চলছে। সেই চেষ্টারই ফল এ মন্ত্রীর আসন্ন সফর। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা গতকাল মানবজমিনকে বলেন, এর আগে সরকার রাশিয়াতে একজন বিশেষ দূত পাঠাতে চেয়েছিল। কিন্তু সে সময়ে রাশিয়ার পক্ষ থেকে সাড়া না পাওয়ায় ওই দূত পাঠানো যায়নি। দুই মন্ত্রীর মধ্যে অন্য কী কী বিষয়ে আলোচনা হতে পারে জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা বলেন, রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আলোচনাই মূল ফোকাসে থাকবে। রূপপুর বিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়েও আলোচনা হবে। ওই প্রকল্প রাশিয়ার আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় তৈরি হচ্ছে। রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র বাংলাদেশের সবচেয়ে ব্যয়বহুল প্রকল্প এবং এ প্রকল্পে রাশিয়ার সহায়তার পরিমাণ ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি। এছাড়া দুই দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের পরিমাণ প্রায় দেড় বিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে বাংলাদেশের রপ্তানি প্রায় ৭০০ মিলিয়ন ডলার। ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা রাশিয়ার বাজারে আমাদের রপ্তানির পরিমাণ বাড়াতে চাই। তৈরি পোশাক শিল্পের রপ্তানি কীভাবে বাড়ানো যায় সে বিষয়ে বাংলাদেশ আগ্রহী।’ এদিকে রাশিয়া ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে পুনঃনির্বাচিত হওয়ায় ভ্লাদিমির পুতিনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে তাকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণও জানানো হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

অলিউললাহ

২০১৮-০৩-২০ ১২:৩৯:০৯

রাশিয়া +চীন একসাতে মায়ানমারকে চাপ দিলে রুহিনগা সনকট সমাধান সহজ অন থায় কঠিন

আপনার মতামত দিন

রিয়েলিটি টিভি তারকাদের যৌন সম্পর্ক, উপার্জন অঢেল টাকা

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ