নেপাল ট্রাজেডি

আহত শাহীন ব্যাপারী ঢামেকে

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ মার্চ ২০১৮, রোববার, ৫:৩৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪৯
নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুব বিমান বন্দরে বিমান ধ্বসে আহত শাহীন ব্যপারীকে ঢামেকে (ঢাকা মেডিকেল কলেজ)  নিয়ে আসা হয়েছে বিকাল ৫ টা ১০ মিনিটে। বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-০০৭২ ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান বেলা ৩টা ৩২ মিনিটে। তার বাড়ি নারায়নগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে, বয়স ৪২। দেশে তার স্ত্রী কন্যা রয়েছে। তিনি একাই গিয়েছিলেন নেপালে ঘুরতে। ইউএস বাংলা এয়ার লাইন্সের বিমান দুর্ঘটনায় নিহত হন ৪৯ জন তার মধ্যে বাংলাদেশি ২৬ জন। আহত ৬ জন যাত্রীকে পর্যায়ক্রমে দেশে নিয়ে আসা হয়েছে আবার দু’জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারত ও সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়া হয়। তার আগে নেপাল থেকে শেহরিন আহমেদ, কামরুন্নাহার স্বর্ণা, মেহেদী হাসান, আলমুন্নাহার অ্যানি ও রাশেদ রুবায়েত ঢাকায় ফিরেছেন। তারাও এখন ঢামেকে চিকিৎসাধীন আছেন। ঢামেকের বার্ন ইউনিটের কর্তব্যরত ডাক্তার সামন্ত লাল বলেন, শাহীন ব্যাপারীর শরীরের ১৬ শতাংশ বার্ন রয়েছে এবং অন্যান্য আহতরাও শঙ্কামুক্ত নয়। এদিকে বাংলাদেশ থেকে নেপালে যাওয়া সাতজন ডাক্তারের একজন ডা: আব্দুল্লাহ আল মামুন দেশে ফিরেছেন শাহীন ব্যাপারীর সঙ্গে। তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজের সেবা এবং আন্তরিকতায় তারা মুগ্ধ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ